বেগমগঞ্জে নারী নির্যাতন: চতুর্থ দিনেও উত্তাল নোয়াখালী
jugantor
বেগমগঞ্জে নারী নির্যাতন: চতুর্থ দিনেও উত্তাল নোয়াখালী

  নোয়াখালী প্রতিনিধি  

০৮ অক্টোবর ২০২০, ১৪:৫৩:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

বেগমগঞ্জে নারী নির্যাতন: চতুর্থ দিনেও উত্তাল নোয়াখালী

গৃহবধূকে বেঁধে বিবস্ত্র করে নির্যাতন, শ্লীলতাহানি ও ধর্ষণচেষ্টার ঘটনায় ছড়িয়ে পড়া ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরালের ঘটনায় চতুর্থ দিন বৃহস্পতিবারও আন্দোলনে উত্তাল নোয়াখালী।

সকাল ৯টা থেকে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন জেলা শহরের প্রেসক্লাব চত্বর, আইনজীবী সমিতির সামনে, জেলা প্রশাসক অফিসের সামনে এবং মুজিব চত্বরে মানববন্ধন করে।

এ সময় বিক্ষোভে গোটা শহর প্রকম্পিত করে তোলা হয়।

ধর্ষণকারীদের ফাঁসির দাবিতে বিক্ষোভ করেন কমিউনিস্ট পার্টি, বামজোঠ, বাসদ, জাসদ ছাত্রলীগ, ছাত্রফ্রন্ট, ছাত্র ইউনিয়ন, ছাত্রজোট, মহিলা সমিতি কল্যাণ পরিষদ, মহিলা জোট, নোয়াখালী জেলা স্কুলছাত্র ঐক্য ফোরাম।

প্রতিবাদ ও বিক্ষোভকারীরা এ সময় বিভিন্ন স্লোগান দেন। তারা বলেন, আমার সোনার বাংলায় ধর্ষকের ঠাঁই নেই। এ সময় বিক্ষোভকারীরা নির্যাতনকারীদের ফাঁসির দাবিসংবলিত প্ল্যাকার্ড, পোস্টার ও ব্যানার বহন করেন।

প্রসঙ্গত ২ সেপ্টেম্বর রাত ৯টার দিকে বেগমগঞ্জ উপজেলার একলাসপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের খালপাড় এলাকায় ওই গৃহবধূর বসতঘরে ঢুকে তার স্বামীকে পাশের কক্ষে বেঁধে রাখেন স্থানীয় বাদল ও তার সহযোগীরা। এর পর গৃহবধূকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন তারা। এ সময় গৃহবধূ বাধা দিলে তারা বিবস্ত্র করে বেধড়ক মারধর করে মোবাইলে ভিডিওচিত্র ধারণ করেন। সেটি ছড়িয়ে দেন ইন্টারনেটে। এ ঘটনায় দেশব্যাপী তোলপাড় সৃষ্টি হয়।

রোববার রাত ১টার দিকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে নির্যাতিত গৃহবধূ (৩৫) বাদী হয়ে মামলা করেন।

বেগমগঞ্জে নারী নির্যাতন: চতুর্থ দিনেও উত্তাল নোয়াখালী

 নোয়াখালী প্রতিনিধি 
০৮ অক্টোবর ২০২০, ০২:৫৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বেগমগঞ্জে নারী নির্যাতন: চতুর্থ দিনেও উত্তাল নোয়াখালী
ফাইল ছবি

গৃহবধূকে বেঁধে বিবস্ত্র করে নির্যাতন, শ্লীলতাহানি ও ধর্ষণচেষ্টার ঘটনায় ছড়িয়ে পড়া ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরালের ঘটনায় চতুর্থ দিন বৃহস্পতিবারও আন্দোলনে উত্তাল নোয়াখালী।

সকাল ৯টা থেকে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন জেলা শহরের প্রেসক্লাব চত্বর, আইনজীবী সমিতির সামনে, জেলা প্রশাসক অফিসের সামনে এবং মুজিব চত্বরে মানববন্ধন করে।

এ সময় বিক্ষোভে গোটা শহর প্রকম্পিত করে তোলা হয়।

ধর্ষণকারীদের ফাঁসির দাবিতে বিক্ষোভ করেন কমিউনিস্ট পার্টি, বামজোঠ, বাসদ, জাসদ ছাত্রলীগ, ছাত্রফ্রন্ট, ছাত্র ইউনিয়ন, ছাত্রজোট, মহিলা সমিতি কল্যাণ পরিষদ, মহিলা জোট, নোয়াখালী জেলা স্কুলছাত্র ঐক্য ফোরাম।

প্রতিবাদ ও বিক্ষোভকারীরা এ সময় বিভিন্ন স্লোগান দেন। তারা বলেন, আমার সোনার বাংলায় ধর্ষকের ঠাঁই নেই। এ সময় বিক্ষোভকারীরা নির্যাতনকারীদের ফাঁসির দাবিসংবলিত প্ল্যাকার্ড, পোস্টার ও ব্যানার বহন করেন।

প্রসঙ্গত ২ সেপ্টেম্বর রাত ৯টার দিকে বেগমগঞ্জ উপজেলার একলাসপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের খালপাড় এলাকায় ওই গৃহবধূর বসতঘরে ঢুকে তার স্বামীকে পাশের কক্ষে বেঁধে রাখেন স্থানীয় বাদল ও তার সহযোগীরা। এর পর গৃহবধূকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন তারা। এ সময় গৃহবধূ বাধা দিলে তারা বিবস্ত্র করে বেধড়ক মারধর করে মোবাইলে ভিডিওচিত্র ধারণ করেন। সেটি ছড়িয়ে দেন ইন্টারনেটে। এ ঘটনায় দেশব্যাপী তোলপাড় সৃষ্টি হয়।

রোববার রাত ১টার দিকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে নির্যাতিত গৃহবধূ (৩৫) বাদী হয়ে মামলা করেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : নোয়াখালীতে নারীকে নির্যাতন করে ভিডিও

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন