চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে
jugantor
চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে

  চাঁদপুর প্রতিনিধি  

১০ অক্টোবর ২০২০, ১২:৫৮:২১  |  অনলাইন সংস্করণ

চাঁদপুর পৌরসভার ভোটগ্রহণ চলছে

চাঁদপুর পৌর নির্বাচনের ভোটগ্রহণ চলছে। দলীয় প্রতীক ও ইভিএম পদ্ধতিতে এটাই প্রথম নির্বাচন চাঁদপুর পৌরসভার।

শনিবার সকাল ৯টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে; একটানা চলবে বিকাল ৫টা পর্যন্ত। নির্বাচনে প্রচুর ভোটার উপস্থিতি লক্ষ করা গেছে।

নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মনোনীত প্রার্থীসহ মোট তিনজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মো. জিল্লুর রহমান (নৌকা), বিএনপির দলীয় প্রার্থী মো. আক্তার হোসেন মাঝি (ধানের শীষ) ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী মামুনুর রশিদ বেলাল (হাতপাখা) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

তাছাড়া কাউন্সিলর পদে ৫০ জন এবং মহিলা কাউন্সিলর পদে আরও ১৪ জনসহ মোট ৬৭ প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

জেলা নির্বাচন অফিস জানায়, চাঁদপুর পৌরসভার ১৫টি ওয়ার্ডের ৫২টি কেন্দ্রে ৩০৫টি বুথে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

নির্বাচনে মোট ভোটার রয়েছে এক লাখ ১৬ হাজার ৪৮৭ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৫৮ হাজার ১৪৪ জন এবং নারী ভোটার রয়েছে ৫৮ হাজার ৩৪৩ জন।

চাঁদপুর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার তোফায়েল আহমেদ বলেন, আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে পুলিশ, এপিবিএন, ব্যাটেলিয়ান আনসারের সমন্বয়ে ৩টি মোবাইল ফোর্স ১টি স্ট্রাইকিং ফোর্স, র্যাবের ৬টি মোবাইল টিম ও বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের ২ প্লাটুন সদস্য দায়িত্ব পালন করছে। তাছাড়া নির্বাচনে ১৫টি ওয়ার্ডে জেলা প্রশাসনের ১৫ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করছেন।

এদিকে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে পুরাণবাজার বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের সামনে ২নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী ও বর্তমান প্যানেল মেয়র সিদ্দিকুর রহমান ঢালী এবং তার ছেলের ওপর হামলা হয়েছে।

তিনি জানান, প্রতিদ্বন্দ্বী কাউন্সিলর প্রার্থী আ. মালেক শেখের লোকজন তার ওপর হামলা করেছে।

চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে

 চাঁদপুর প্রতিনিধি 
১০ অক্টোবর ২০২০, ১২:৫৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
চাঁদপুর পৌরসভার ভোটগ্রহণ চলছে
ফাইল ছবি

চাঁদপুর পৌর নির্বাচনের ভোটগ্রহণ চলছে। দলীয় প্রতীক ও ইভিএম পদ্ধতিতে এটাই প্রথম নির্বাচন চাঁদপুর পৌরসভার।

শনিবার সকাল ৯টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে; একটানা চলবে বিকাল ৫টা পর্যন্ত। নির্বাচনে প্রচুর ভোটার উপস্থিতি লক্ষ করা গেছে।

নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মনোনীত প্রার্থীসহ মোট তিনজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মো. জিল্লুর রহমান (নৌকা), বিএনপির দলীয় প্রার্থী মো. আক্তার হোসেন মাঝি (ধানের শীষ) ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী মামুনুর রশিদ বেলাল (হাতপাখা) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

তাছাড়া কাউন্সিলর পদে ৫০ জন এবং মহিলা কাউন্সিলর পদে আরও ১৪ জনসহ মোট ৬৭ প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

জেলা নির্বাচন অফিস জানায়, চাঁদপুর পৌরসভার ১৫টি ওয়ার্ডের ৫২টি কেন্দ্রে ৩০৫টি বুথে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

নির্বাচনে মোট ভোটার রয়েছে এক লাখ ১৬ হাজার ৪৮৭ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৫৮ হাজার ১৪৪ জন এবং নারী ভোটার রয়েছে ৫৮ হাজার ৩৪৩ জন।

চাঁদপুর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার তোফায়েল আহমেদ বলেন, আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে পুলিশ, এপিবিএন, ব্যাটেলিয়ান আনসারের সমন্বয়ে ৩টি মোবাইল ফোর্স ১টি স্ট্রাইকিং ফোর্স, র্যাবের ৬টি মোবাইল টিম ও বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের ২ প্লাটুন সদস্য দায়িত্ব পালন করছে। তাছাড়া নির্বাচনে ১৫টি ওয়ার্ডে জেলা প্রশাসনের ১৫ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করছেন।

এদিকে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে পুরাণবাজার বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের সামনে ২নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী ও বর্তমান প্যানেল মেয়র সিদ্দিকুর রহমান ঢালী এবং তার ছেলের ওপর হামলা হয়েছে।

তিনি জানান, প্রতিদ্বন্দ্বী কাউন্সিলর প্রার্থী আ. মালেক শেখের লোকজন তার ওপর হামলা করেছে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন