বরগুনায় ট্রলারে মিলল ২১ আগ্নেয়াস্ত্র
jugantor
বরগুনায় ট্রলারে মিলল ২১ আগ্নেয়াস্ত্র

  যুগান্তর রিপোর্ট, বরগুনা  

১৩ অক্টোবর ২০২০, ১২:৪৫:৩৯  |  অনলাইন সংস্করণ

বরগুনায় ট্রলারে মিলল ২১ আগ্নেয়াস্ত্র

বরগুনার পাথরঘাটাসংলগ্ন বিষখালী-বলেশ্বর নদীর মোহনা থেকে কোস্টগার্ড সদস্যরা অভিযান চালিয়ে ২১ আগ্নেয়াস্ত্র ও ১০টি ছুরি উদ্ধার করেছে।

সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে একটি ইঞ্জিনচালিত ট্রলারে অভিযান চালিয়ে মাছের ককসিট থেকে এসব অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করতে পারেনি কোস্টগার্ড।

কোস্টগার্ড স্টেশন কমান্ডার লে. মেহেদি হাসান জানান, গোপন সুন্দরবনসহ পাথরঘাটা উপকূলীয় এলাকায় ডাকাতি করতে কলাপাড়া থেকে পাথরঘাটার উদ্দেশ্যে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র আসছে এমন গোপন সংবাদ পাওয়া যায়।

এর ভিত্তিতে বলেশ্বর ও বিষখালী নদীর মোহনায় অবস্থান নেন কোস্টগার্ড সদস্যরা।

পরে লালদিয়ারচর নামক স্থানে একটি ইঞ্জিনচালিত ট্রলার ফেলে রেখে পালিয়ে যায় ডাকাতরা। ওই ট্রলারে মাছের ককসিটের ভেতরে বরফ থেকে সাতটি দেশীয় পিস্তল ১৪টি একনলা বন্দুক(পাইপগান) ও ১০টি ছুরি উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

তবে ধারণা করা হচ্ছে, একটি ডাকাত দল ডাকাতির উদ্দেশে সংঘবদ্ধ হচ্ছিল। ট্রলার ও অস্ত্রগুলো পাথরঘাটা থানায় পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

পাথরঘাটা থানার ওসি শাহাবুদ্দিন যুগান্তরকে বলেন, কোস্টগার্ড সদস্যরা এখন পর্যন্ত আমাদের কিছু জানাননি।

বরগুনায় ট্রলারে মিলল ২১ আগ্নেয়াস্ত্র

 যুগান্তর রিপোর্ট, বরগুনা 
১৩ অক্টোবর ২০২০, ১২:৪৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বরগুনায় ট্রলারে মিলল ২১ আগ্নেয়াস্ত্র
ছবি: যুগান্তর

বরগুনার পাথরঘাটাসংলগ্ন বিষখালী-বলেশ্বর নদীর মোহনা থেকে কোস্টগার্ড সদস্যরা অভিযান চালিয়ে ২১ আগ্নেয়াস্ত্র ও ১০টি ছুরি উদ্ধার করেছে।

সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে একটি ইঞ্জিনচালিত ট্রলারে অভিযান চালিয়ে মাছের ককসিট থেকে এসব অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করতে পারেনি কোস্টগার্ড।

কোস্টগার্ড স্টেশন কমান্ডার লে. মেহেদি হাসান জানান, গোপন সুন্দরবনসহ পাথরঘাটা উপকূলীয় এলাকায় ডাকাতি করতে কলাপাড়া থেকে পাথরঘাটার উদ্দেশ্যে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র আসছে এমন গোপন সংবাদ পাওয়া যায়।

এর ভিত্তিতে বলেশ্বর ও বিষখালী নদীর মোহনায় অবস্থান নেন কোস্টগার্ড সদস্যরা।  

পরে লালদিয়ারচর নামক স্থানে একটি ইঞ্জিনচালিত ট্রলার ফেলে রেখে পালিয়ে যায় ডাকাতরা। ওই ট্রলারে মাছের ককসিটের ভেতরে বরফ থেকে সাতটি দেশীয় পিস্তল ১৪টি একনলা বন্দুক(পাইপগান) ও ১০টি ছুরি উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

তবে ধারণা করা হচ্ছে, একটি ডাকাত দল ডাকাতির উদ্দেশে সংঘবদ্ধ হচ্ছিল। ট্রলার ও অস্ত্রগুলো পাথরঘাটা থানায় পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

পাথরঘাটা থানার ওসি শাহাবুদ্দিন যুগান্তরকে বলেন, কোস্টগার্ড সদস্যরা এখন পর্যন্ত আমাদের কিছু জানাননি।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন