প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ, যুবক কারাগারে
jugantor
প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ, যুবক কারাগারে

  রায়পুর (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি  

১৪ অক্টোবর ২০২০, ০৯:৫৫:৪০  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ, যুবক কারাগারে

লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলায় মানসিক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে (১৩) ধর্ষণ মামলায় সুমন (২৬) নামে এক যুবককে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনায় মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে সুমনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করেন।

বুধবার সকালে সুমনকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ।

গত ১১ অক্টোবর উপজেলার চরপাতা ইউপির গাছিরহাট এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে। অভিযুক্ত সুমন একই এলাকার দিনমজুর মো. শাহজাহানের ছেলে ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার দর্জি দোকানি।

মেয়েটির বাবা কামাল হোসেন জানান, প্রায় এক বছর ধরে তার প্রতিবন্ধী স্কুলপড়ুয়া মেয়েটির সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে একই বাড়ির শাহজাহানের ছেলে সুমন।

গত ১১ অক্টোবর কৌশলে মেয়েটিকে ঘর থেকে ডেকে সুপারি বাগানে নিয়ে ধর্ষণ করে সুমন।

এ সময় বাড়ির অন্য এক লোক ঘটনাটি দেখে সুমন ও মেয়েটিকে হাতেনাতে আটক করে স্থানীয় ইউপি সদস্যকে অবহিত করেন।

গত সোমবার দুপুরে মেয়ের বাবা ইউপি চেয়ারম্যানকে অবহিত করলে তিনি সুমনকে গ্রামপুলিশ দিয়ে আটক করে নিজ কার্যালয়ে নিয়ে বসিয়ে রেখে পরে ছেড়ে দেন। মেয়েটি অপ্রাপ্তবয়স্ক হওয়া শর্তেও তাকে বিয়ে করার জন্য সুমনসহ তার বাবা-মাকে অনুরোধ করেন ইউপি সদস্যসহ বাড়ির লোকজন। কিন্তু মেয়েটিকে বিয়ে করা যাবে না বলে অপমান-অপদস্থ করে তার বাবাকে ঘর থেকে বের করে দেয়া হয়।

পরে বাধ্য হয়ে পুলিশকে অবহিত করলে সুমনকে তার বাড়ি থেকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত মো. সুমন বলেন, আমি ধর্ষণের সঙ্গে জড়িত না। মেয়েটিকে রুমান নামে এক ছেলে ধর্ষণ করেছে। আমি মেয়েটিকে বিয়ে করব কেন? মেয়েটিকে মারধর করে আমার নাম বলতে বলায়, সে আমার নাম বলছে।

রায়পুর থানার ওসি আবদুল জলিল বলেন, বুধবার সকালে প্রতিবন্ধী কিশোরীকে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।

আটক সুমনকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে পাঠানো হয়েছে।

প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ, যুবক কারাগারে

 রায়পুর (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি 
১৪ অক্টোবর ২০২০, ০৯:৫৫ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ, যুবক কারাগারে
ফাইল ছবি

লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলায় মানসিক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে (১৩) ধর্ষণ মামলায় সুমন (২৬) নামে এক যুবককে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনায় মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে সুমনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করেন।

বুধবার সকালে সুমনকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ।

গত ১১ অক্টোবর উপজেলার চরপাতা ইউপির গাছিরহাট এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে। অভিযুক্ত সুমন একই এলাকার দিনমজুর মো. শাহজাহানের ছেলে ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার দর্জি দোকানি।

মেয়েটির বাবা কামাল হোসেন জানান, প্রায় এক বছর ধরে তার প্রতিবন্ধী স্কুলপড়ুয়া মেয়েটির সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে একই বাড়ির শাহজাহানের ছেলে সুমন।

গত ১১ অক্টোবর কৌশলে মেয়েটিকে ঘর থেকে ডেকে সুপারি বাগানে নিয়ে ধর্ষণ করে সুমন।

এ সময় বাড়ির অন্য এক লোক ঘটনাটি দেখে সুমন ও মেয়েটিকে হাতেনাতে আটক করে স্থানীয় ইউপি সদস্যকে অবহিত করেন।

গত সোমবার দুপুরে মেয়ের বাবা ইউপি চেয়ারম্যানকে অবহিত করলে তিনি সুমনকে গ্রামপুলিশ দিয়ে আটক করে নিজ কার্যালয়ে নিয়ে বসিয়ে রেখে পরে ছেড়ে দেন। মেয়েটি অপ্রাপ্তবয়স্ক হওয়া শর্তেও তাকে বিয়ে করার জন্য সুমনসহ তার বাবা-মাকে অনুরোধ করেন ইউপি সদস্যসহ বাড়ির লোকজন। কিন্তু মেয়েটিকে বিয়ে করা যাবে না বলে অপমান-অপদস্থ করে তার বাবাকে ঘর থেকে বের করে দেয়া হয়।

পরে বাধ্য হয়ে পুলিশকে অবহিত করলে সুমনকে তার বাড়ি থেকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত মো. সুমন বলেন, আমি ধর্ষণের সঙ্গে জড়িত না। মেয়েটিকে রুমান নামে এক ছেলে ধর্ষণ করেছে। আমি মেয়েটিকে বিয়ে করব কেন? মেয়েটিকে মারধর করে আমার নাম বলতে বলায়, সে আমার নাম বলছে।

রায়পুর থানার ওসি আবদুল জলিল বলেন, বুধবার সকালে প্রতিবন্ধী কিশোরীকে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।

আটক সুমনকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে পাঠানো হয়েছে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন