ফজরের নামাজ পড়তে উঠে দুর্বৃত্তদের হাতে প্রাণ গেল মাদ্রাসাছাত্রীর
jugantor
ফজরের নামাজ পড়তে উঠে দুর্বৃত্তদের হাতে প্রাণ গেল মাদ্রাসাছাত্রীর

  নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি  

১৫ অক্টোবর ২০২০, ১৯:১০:১৬  |  অনলাইন সংস্করণ

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ফজরের নামাজ পড়তে উঠে বাড়ির পাশেই ওতপেতে থাকা দুর্বৃত্তদের হাতে প্রাণ গেছে তানজিনা আক্তার (১৪) নামে এক মাদ্রাসাছাত্রীর।

বৃহস্পতিবার দুপুরে আড়াইহাজার উপজেলার গোপালদী পৌরসভার রামচন্দ্রদী এলাকার নিজ বাড়ির পাশে একটি গর্ত থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত তানজিনা আক্তার উপজেলার রামচন্দ্রদী এলাকার মাটিকাটা শ্রমিক আফতাব উদ্দিন ওরফে আকতার হোসেনের মেয়ে। সে স্থানীয় একটি কওমি মাদ্রাসার ছাত্রী।

নিহতের বাবা আকতার হোসেন বলেন, বৃহস্পতিবার ফজর নামাজ পড়তে আমরা সবাই ঘুম থেকে উঠি। একই সময় তানজিনা আক্তারও নামাজ পড়তে উঠে। নামাজের পর মেয়েকে খুঁজে না পেয়ে আশপাশে খুঁজেও তাকে পাওয়া যায়নি। সকালে বাড়ির পাশে একটি গর্তে তানজিনার লাশ দেখতে পান। তানজিনাকে কে বা কারা হত্যা করে লাশটি গর্তে ফেলে দেয়।

আড়াইহাজার থানার গোপালদী তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর আজহার উদ্দিন পরিবারের বরাত দিয়ে জানান, তানজিনা আক্তার একটি মাদ্রাসায় লেখাপড়া করে। বৃহস্পতিবার ভোরে কে বা কারা তানজিনাকে শ্বাসরোধে হত্যা করে তাদের বাড়ির পাশে একটি গর্তে লাশটি ফেলে দিয়ে যায়। ঘটনার সংবাদ পেয়ে দুপুরে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়।

তিনি আরও জানান, তানজিনাকে পরিকল্পিতভাবে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

ফজরের নামাজ পড়তে উঠে দুর্বৃত্তদের হাতে প্রাণ গেল মাদ্রাসাছাত্রীর

 নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি 
১৫ অক্টোবর ২০২০, ০৭:১০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ফজরের নামাজ পড়তে উঠে বাড়ির পাশেই ওতপেতে থাকা দুর্বৃত্তদের হাতে প্রাণ গেছে তানজিনা আক্তার (১৪) নামে এক মাদ্রাসাছাত্রীর। 

বৃহস্পতিবার দুপুরে আড়াইহাজার উপজেলার গোপালদী পৌরসভার রামচন্দ্রদী এলাকার নিজ বাড়ির পাশে একটি গর্ত থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। 

নিহত তানজিনা আক্তার উপজেলার রামচন্দ্রদী এলাকার মাটিকাটা শ্রমিক আফতাব উদ্দিন ওরফে আকতার হোসেনের মেয়ে। সে স্থানীয় একটি কওমি মাদ্রাসার ছাত্রী। 

নিহতের বাবা আকতার হোসেন বলেন, বৃহস্পতিবার ফজর নামাজ পড়তে আমরা সবাই ঘুম থেকে উঠি। একই সময় তানজিনা আক্তারও নামাজ পড়তে উঠে। নামাজের পর মেয়েকে খুঁজে না পেয়ে আশপাশে খুঁজেও তাকে পাওয়া যায়নি। সকালে বাড়ির পাশে একটি গর্তে তানজিনার লাশ দেখতে পান। তানজিনাকে কে বা কারা হত্যা করে লাশটি গর্তে ফেলে দেয়।

আড়াইহাজার থানার গোপালদী তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর আজহার উদ্দিন পরিবারের বরাত দিয়ে জানান, তানজিনা আক্তার একটি মাদ্রাসায় লেখাপড়া করে। বৃহস্পতিবার ভোরে কে বা কারা তানজিনাকে শ্বাসরোধে হত্যা করে তাদের বাড়ির পাশে একটি গর্তে লাশটি ফেলে দিয়ে যায়। ঘটনার সংবাদ পেয়ে দুপুরে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়। 

তিনি আরও জানান, তানজিনাকে পরিকল্পিতভাবে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন