৫০ দিনেও সন্ধান মেলেনি কিশোর অটোচালকের
jugantor
৫০ দিনেও সন্ধান মেলেনি কিশোর অটোচালকের

  শ্রীনগর (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি  

১৬ অক্টোবর ২০২০, ১৯:৪৩:১০  |  অনলাইন সংস্করণ

সানজিদ

শ্রীনগরে নিখোঁজের ১ মাস ২০ দিন পর গত রোববার রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ থেকে অটোরিকশাটি পুলিশ উদ্ধার করলেও পিতৃহীন কিশোর অটোচালক সানজিদের (১৪) কোনো সন্ধান মেলেনি। এদিকে সন্তানের খোঁজে তার মা পাগলপ্রায়।

গত ২২ আগস্ট উপজেলার বাড়ৈখালী থেকে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশাসহ ১৪ বছরের কিশোর চালক সানজিদ নিখোঁজ হয়।

স্থানীয়রা জানান, সানজিদ বাড়ৈখালী গ্রামের মৃত রিপন মিয়ার ছেলে। ৩ বছর আগে রিপন মিয়া মারা যান। সংসারের অভাব-অনটনে মা ও ছোট বোনের মুখে দু'মুঠো ভাত তুলে দিতে সানজিদ পড়ালেখা ছেড়ে অটোরিকশা চালাতে শুরু করে।

সানজিদের মা আঁখি বেগম জানান, গত ২২ আগস্ট সকালে সানজিদ গ্যারেজ থেকে অটোরিকশা নিয়ে বের হয়ে নিখোঁজ হয়। আঁখি বেগম বাদী হয়ে ২৩ আগস্ট শ্রীনগর থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন।

গত ৮-১০ দিন আগে নিখোঁজ সানজিদের মা আঁখি বেগম লোকমুখে শুনতে পারেন বাড়ৈখালী এলাকার কালাম মেম্বারের বাড়ির পাশের ভাড়াটিয়া কলাবিক্রেতা আমির হোসেনের ছেলে বিল্লাল অটোটি ছিনতাই করে নিয়ে গেছে।

এর সূত্র ধরে আঁখি বেগমের ভাই বুদ্ধি করে গোয়ালন্দ গিয়ে অটোরিকশাটি চিহ্নিত করে ও স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় এর চালক আব্বাসকে আটক করে গোয়ালন্দ থানায় নিয়ে যায়। সেখানে জিজ্ঞাসাবাদে আব্বাস জানায়- অটোটি সে তার খালাতো ভাই বিল্লালের কাছ থেকে কিনেছে। নিখোঁজ সানজিদের ব্যাপারে সে কিছু জানে না।
পরে শ্রীনগর থানা পুলিশ অটোসহ আব্বাসকে শ্রীনগর থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করে মুন্সীগঞ্জ কোর্টে প্রেরণ করে।

শ্রীনগর থানায় দায়েরকৃত সাধারণ ডায়েরির তদন্তকারী কর্মকর্তা শ্রীনগর থানার এসআই আ. কাদির জানান, রাজবাড়ী থেকে একজনকে আটক ও অটোরিকশাটি উদ্ধার করা হয়েছে। নিখোঁজ চালক সানজিদের সন্ধান পেতে পুলিশ কাজ করছে।

৫০ দিনেও সন্ধান মেলেনি কিশোর অটোচালকের

 শ্রীনগর (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি 
১৬ অক্টোবর ২০২০, ০৭:৪৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সানজিদ
সানজিদ

শ্রীনগরে নিখোঁজের ১ মাস ২০ দিন পর গত রোববার রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ থেকে অটোরিকশাটি পুলিশ উদ্ধার করলেও পিতৃহীন কিশোর অটোচালক সানজিদের (১৪) কোনো সন্ধান মেলেনি। এদিকে সন্তানের খোঁজে তার মা পাগলপ্রায়।

গত ২২ আগস্ট উপজেলার বাড়ৈখালী থেকে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশাসহ ১৪ বছরের কিশোর চালক সানজিদ নিখোঁজ হয়।

স্থানীয়রা জানান, সানজিদ বাড়ৈখালী গ্রামের মৃত রিপন মিয়ার ছেলে। ৩ বছর আগে রিপন মিয়া মারা যান। সংসারের অভাব-অনটনে মা ও ছোট বোনের মুখে দু'মুঠো ভাত তুলে দিতে সানজিদ পড়ালেখা ছেড়ে অটোরিকশা চালাতে শুরু করে। 

সানজিদের মা আঁখি বেগম জানান, গত ২২ আগস্ট সকালে সানজিদ গ্যারেজ থেকে অটোরিকশা নিয়ে বের হয়ে নিখোঁজ হয়। আঁখি বেগম বাদী হয়ে ২৩ আগস্ট শ্রীনগর থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন।

গত ৮-১০ দিন আগে নিখোঁজ সানজিদের মা আঁখি বেগম লোকমুখে শুনতে পারেন বাড়ৈখালী এলাকার কালাম মেম্বারের বাড়ির পাশের ভাড়াটিয়া কলাবিক্রেতা আমির হোসেনের ছেলে বিল্লাল অটোটি ছিনতাই করে নিয়ে গেছে।

এর সূত্র ধরে আঁখি বেগমের ভাই বুদ্ধি করে গোয়ালন্দ গিয়ে অটোরিকশাটি চিহ্নিত করে ও স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় এর চালক আব্বাসকে আটক করে গোয়ালন্দ থানায় নিয়ে যায়। সেখানে জিজ্ঞাসাবাদে আব্বাস জানায়- অটোটি সে তার খালাতো ভাই বিল্লালের কাছ থেকে কিনেছে। নিখোঁজ সানজিদের ব্যাপারে সে কিছু জানে না।
পরে শ্রীনগর থানা পুলিশ অটোসহ আব্বাসকে শ্রীনগর থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করে মুন্সীগঞ্জ কোর্টে প্রেরণ করে।

শ্রীনগর থানায় দায়েরকৃত সাধারণ ডায়েরির তদন্তকারী কর্মকর্তা শ্রীনগর থানার এসআই আ. কাদির জানান, রাজবাড়ী থেকে একজনকে আটক ও অটোরিকশাটি উদ্ধার করা হয়েছে। নিখোঁজ চালক সানজিদের সন্ধান পেতে পুলিশ কাজ করছে।
 

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন