শেরপুরে কলেজছাত্রীকে অটোরিকশায় যৌন হয়রানি
jugantor
শেরপুরে কলেজছাত্রীকে অটোরিকশায় যৌন হয়রানি

  শেরপুর প্রতিনিধি   

১৮ অক্টোবর ২০২০, ২২:৫১:৩৬  |  অনলাইন সংস্করণ

শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার আয়নাপুর গ্রামে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশায় এক কলেজছাত্রীকে যৌন হয়রানি করেছে হানিফ মিয়া (৩০) নামে এক বখাটে। সম্মান বাঁচাতে ওই কিশোরী চলন্ত অটোরিকশা থেকে ঝাঁপ দেয়। রোববার দুপুরের এ ঘটনায় ঝিনাইগাতী থানায় একটি মামলা হয়েছে।

ঝিনাইগাতী থানার ওসি মো. ফায়েজুর রহমান জানান, নাচুনমহরী গ্রামের ওই কিশোরী ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটের একটি নার্সিং ইন্সটিটিউটের ছাত্রী। রোববার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে পুজোর কেনাকাটা করার জন্য সে আয়নাপুর গ্রাম থেকে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশায় শেরপুরের উদ্দেশে রওনা দেয়। এ সময় অটোরিকশায় চালক ও দুইজন যাত্রী ছিল। পথে কারারপাড়া নামক স্থানে এলে আয়নাপুর গ্রামের আতাব উদ্দিনের ছেলে হানিফ মিয়া মেয়েটিকে যৌন হয়রানি শুরু করে।

একপর্যায়ে হয়রানির মাত্রা বেড়ে গেলে মেয়েটি চিৎকার করতে থাকে কিন্তু জায়গাটি ফাঁকা থাকায় কেউ এগিয়ে আসেনি। অটোরিকশাটি থামাতে বললেও চালক থামায়নি। অটোরিকশায় থাকা যাত্রীটিও তাকে রক্ষায় এগিয়ে আসেনি। যে কারণে নিজের সম্মান বাঁচাতে মেয়েটি চলন্ত অটোরিকশা থেকে লাফ দেয়। এতে সে পায়ে আঘাত পায়। এ সময় চালক দ্রুত অটোরিকশাটি নিয়ে সটকে পড়ে।

মেয়েটি ব্যাথায় কাতরাতে থাকলে কয়েকজন এগিয়ে আসেন। পরে পরিচিত এক ব্যক্তি বাড়িতে খবর দিলে স্বজনরা এসে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঝিনাইগাতী থানায় নিয়ে অভিযোগ দায়ের করেন।

থানার ওসি মো. ফায়েজুর রহমান বলেন, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। বখাটে হানিফকে ধরতে পুলিশি অভিযান চলছে।

শেরপুরে কলেজছাত্রীকে অটোরিকশায় যৌন হয়রানি

 শেরপুর প্রতিনিধি  
১৮ অক্টোবর ২০২০, ১০:৫১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার আয়নাপুর গ্রামে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশায় এক কলেজছাত্রীকে যৌন হয়রানি করেছে হানিফ মিয়া (৩০) নামে এক বখাটে। সম্মান বাঁচাতে ওই কিশোরী চলন্ত অটোরিকশা থেকে ঝাঁপ দেয়। রোববার দুপুরের এ ঘটনায় ঝিনাইগাতী থানায় একটি মামলা হয়েছে। 

ঝিনাইগাতী থানার ওসি মো. ফায়েজুর রহমান জানান, নাচুনমহরী গ্রামের ওই কিশোরী ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটের একটি নার্সিং ইন্সটিটিউটের ছাত্রী। রোববার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে পুজোর কেনাকাটা করার জন্য সে আয়নাপুর গ্রাম থেকে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশায় শেরপুরের উদ্দেশে রওনা দেয়। এ সময় অটোরিকশায় চালক ও দুইজন যাত্রী ছিল। পথে কারারপাড়া নামক স্থানে এলে আয়নাপুর গ্রামের আতাব উদ্দিনের ছেলে হানিফ মিয়া মেয়েটিকে যৌন হয়রানি শুরু করে। 

একপর্যায়ে হয়রানির মাত্রা বেড়ে গেলে মেয়েটি চিৎকার করতে থাকে কিন্তু জায়গাটি ফাঁকা থাকায় কেউ এগিয়ে আসেনি। অটোরিকশাটি থামাতে বললেও চালক থামায়নি। অটোরিকশায় থাকা যাত্রীটিও তাকে রক্ষায় এগিয়ে আসেনি। যে কারণে নিজের সম্মান বাঁচাতে মেয়েটি চলন্ত অটোরিকশা থেকে লাফ দেয়। এতে সে পায়ে আঘাত পায়। এ সময় চালক দ্রুত অটোরিকশাটি নিয়ে সটকে পড়ে। 

মেয়েটি ব্যাথায় কাতরাতে থাকলে কয়েকজন এগিয়ে আসেন। পরে পরিচিত এক ব্যক্তি বাড়িতে খবর দিলে স্বজনরা এসে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঝিনাইগাতী থানায় নিয়ে অভিযোগ দায়ের করেন।

থানার ওসি মো. ফায়েজুর রহমান বলেন, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। বখাটে হানিফকে ধরতে পুলিশি অভিযান চলছে।
 

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন