নীলফামারীতে এক শিশুকে ধর্ষণ ও আরেক শিশুকে ধর্ষণচেষ্টা, গ্রেফতার ১
jugantor
নীলফামারীতে এক শিশুকে ধর্ষণ ও আরেক শিশুকে ধর্ষণচেষ্টা, গ্রেফতার ১

  ডিমলা (নীলফামারী) প্রতিনিধি  

১৯ অক্টোবর ২০২০, ২২:২০:৫০  |  অনলাইন সংস্করণ

ধর্ষণ

পৃথক ঘটনায় নীলফামারীর পল্লীতে এক শিশুকে ধর্ষণ ও আরেক শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে। দুটি ঘটনায় সোমবার নীলফামারী সদর থানা ও ডিমলা থানায় পৃথক মামলা দায়ের করা হয়েছে। এর মধ্যে ধর্ষণের ঘটনায় ডিমলা থানা পুলিশ ধর্ষক শাহজামালকে (২৬) গ্রেফতার করেছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, সোমবার বেলা ১২টার দিকে জেলার ডিমলা উপজেলার বালাপাড়া ইউনিয়নের বাকপ্রতিবন্ধীর মেয়ে তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রীকে (১০) প্রতিবেশী আমির হামজার ছেলে শাহজামাল পার্শ্ববর্তী বাঁশঝাড়ে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণের সময় শিশুটি চিৎকার দেয়। শিশুটির মা দৌড়ে গিয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় মেয়েটিকে উদ্ধার করে ডিমলা হাসপাতালে নিয়ে যান এবং ঘটনাটি পুলিশকে অবগত করেন।

পুলিশ তাৎক্ষণিকভাবে ঘটনাস্থলে গিয়ে ধর্ষককে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। বিকালে শিশুটিকে নীলফামারী সদর জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। এ ঘটনায় শিশুটির মা বাদী হয়ে ডিমলা থানায় মামলা করেছেন। ডিমলা থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম বলেন, ঘটনা জানার পর সেখানে পুলিশ পাঠিয়ে অভিযান চালিয়ে শাহজামালকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

অপর ঘটনাটি ঘটে নীলফামারী জেলা সদরের সোনারায় ইউনিয়নের স্বরূপ জয়চন্ডি গ্রামে রোববার রাত ৮টার দিকে। অভিযোগ মতে, একই গ্রামের মৃত চন্দ্র রায়ের ছেলে জগদিশ চন্দ্র রায় (৫৮) প্রতিবেশী বাড়িতে আসে। সে সময় তাদের মেয়ে (১২) ব্র্যাক স্কুলের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী ঘরে থাকলেও তার বাবা-মা বাড়ির বাইরে ছিলেন। এ সময় জগদিশ চন্দ্র রায় ঘরে ঢুকে ওই শিশুকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। মেয়েটির চিৎকারে জগদিশ চন্দ্র পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে নীলফামারী সদর থানায় মামলা দায়ের করেছেন বলে নিশ্চিত করেন সদর থানার ওসি (তদন্ত) মাহমুদ উন নবী।

নীলফামারীতে এক শিশুকে ধর্ষণ ও আরেক শিশুকে ধর্ষণচেষ্টা, গ্রেফতার ১

 ডিমলা (নীলফামারী) প্রতিনিধি 
১৯ অক্টোবর ২০২০, ১০:২০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ধর্ষণ
ধর্ষণ

পৃথক ঘটনায় নীলফামারীর পল্লীতে এক শিশুকে ধর্ষণ ও আরেক শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে। দুটি ঘটনায় সোমবার নীলফামারী সদর থানা ও ডিমলা থানায় পৃথক মামলা দায়ের করা হয়েছে। এর মধ্যে ধর্ষণের ঘটনায় ডিমলা থানা পুলিশ ধর্ষক শাহজামালকে (২৬) গ্রেফতার করেছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, সোমবার বেলা ১২টার দিকে জেলার ডিমলা উপজেলার বালাপাড়া ইউনিয়নের বাকপ্রতিবন্ধীর মেয়ে তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রীকে (১০) প্রতিবেশী আমির হামজার ছেলে শাহজামাল পার্শ্ববর্তী বাঁশঝাড়ে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণের সময় শিশুটি চিৎকার দেয়। শিশুটির মা দৌড়ে গিয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় মেয়েটিকে উদ্ধার করে ডিমলা হাসপাতালে নিয়ে যান এবং ঘটনাটি পুলিশকে অবগত করেন।

পুলিশ তাৎক্ষণিকভাবে ঘটনাস্থলে গিয়ে ধর্ষককে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। বিকালে শিশুটিকে নীলফামারী সদর জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। এ ঘটনায় শিশুটির মা বাদী হয়ে ডিমলা থানায় মামলা করেছেন। ডিমলা থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম বলেন, ঘটনা জানার পর সেখানে পুলিশ পাঠিয়ে অভিযান চালিয়ে শাহজামালকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

অপর ঘটনাটি ঘটে নীলফামারী জেলা সদরের সোনারায় ইউনিয়নের স্বরূপ জয়চন্ডি গ্রামে রোববার রাত ৮টার দিকে। অভিযোগ মতে, একই গ্রামের মৃত চন্দ্র রায়ের ছেলে জগদিশ চন্দ্র রায় (৫৮) প্রতিবেশী বাড়িতে আসে। সে সময় তাদের মেয়ে (১২) ব্র্যাক স্কুলের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী ঘরে থাকলেও তার বাবা-মা বাড়ির বাইরে ছিলেন। এ সময় জগদিশ চন্দ্র রায় ঘরে ঢুকে ওই শিশুকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। মেয়েটির চিৎকারে জগদিশ চন্দ্র পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে নীলফামারী সদর থানায় মামলা দায়ের করেছেন বলে নিশ্চিত করেন সদর থানার ওসি (তদন্ত) মাহমুদ উন নবী।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন