জেল জরিমানা উপেক্ষা করে যমুনায় দলবেঁধে ইলিশ শিকার!
jugantor
জেল জরিমানা উপেক্ষা করে যমুনায় দলবেঁধে ইলিশ শিকার!

  মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি  

২০ অক্টোবর ২০২০, ১১:৩৯:০৫  |  অনলাইন সংস্করণ

জেলে

জেল জরিমানা উপক্ষো করে মানিকগঞ্জের দৌলতপুর উপজেলার যমুনা নদীতে দলবেঁধে ইলিশ শিকার করছেন জেলেরা। অনেকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে অর্থদণ্ডসহ মুচলেকা দেয়ার পরেও ফের মা ইলিশ নিধনে নেমে পড়ছেন।

নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মাছ ধরায় সাড়াঁশি অভিযানে নেমেছে দৌলতপুর উপজেলা প্রশাসন।

উপজেলার চরকাটারি, বাঘুটিয়া, বাঁচামারা ইউনিয়নের অংশের যমুনা নদীতে অভিযান চালিয়ে মা ইলিশ ধরার অপরাধে সোমবার দিনগত রাতে ২৩ জনকে এক বছর করে ও একজনকে দুই বছর কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

এ ছাড়া দুজনকে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে।

অপরদিকে তাদের কাছ থেকে ২ লাখ মিটার কারেন্ট জাল জব্দ করে তা পুড়িয়ে দেয়া হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে ১৫ কেজি ইলিশ জব্দ করার পর স্থানীয় এতিমখানায় বিতরণ করা হয়।

সোমবার দুপুর থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত যমুনা নদীতে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ইমরুল হাসান ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে ৭ জনকে এক বছর করে কারাদণ্ড দেন।

এছাড়া নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) জুয়েল আহমেদের কোর্ট ১৯ জনের মধ্যে ১৬ জনকে এক বছর করে কারাদণ্ড দেন। আরও একজনকে ২ বছর (দুদিন আগে তাকে জরিমানা করা হয়েছিল) কারাদণ্ড দেয়া হয়। এছাড়া ২ জনকে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়।

জেল জরিমানা উপেক্ষা করে যমুনায় দলবেঁধে ইলিশ শিকার!

 মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি 
২০ অক্টোবর ২০২০, ১১:৩৯ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
জেলে
ছবি-যুগান্তর

জেল জরিমানা উপক্ষো করে মানিকগঞ্জের দৌলতপুর উপজেলার যমুনা নদীতে দলবেঁধে ইলিশ শিকার করছেন জেলেরা। অনেকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে অর্থদণ্ডসহ মুচলেকা দেয়ার পরেও ফের মা ইলিশ নিধনে নেমে পড়ছেন। 

নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মাছ ধরায় সাড়াঁশি অভিযানে নেমেছে দৌলতপুর উপজেলা প্রশাসন। 

উপজেলার চরকাটারি, বাঘুটিয়া, বাঁচামারা ইউনিয়নের অংশের যমুনা নদীতে অভিযান চালিয়ে মা ইলিশ ধরার অপরাধে সোমবার দিনগত রাতে ২৩ জনকে এক বছর করে ও একজনকে দুই বছর কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। 

এ ছাড়া দুজনকে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে।

অপরদিকে তাদের কাছ থেকে ২ লাখ মিটার কারেন্ট জাল জব্দ করে তা পুড়িয়ে দেয়া হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে ১৫ কেজি ইলিশ জব্দ করার পর স্থানীয় এতিমখানায় বিতরণ করা হয়। 

সোমবার দুপুর থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত যমুনা নদীতে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ইমরুল হাসান ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে ৭ জনকে এক বছর করে কারাদণ্ড দেন। 
    
এছাড়া নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) জুয়েল আহমেদের কোর্ট ১৯ জনের মধ্যে ১৬ জনকে এক বছর করে কারাদণ্ড দেন।  আরও একজনকে ২ বছর (দুদিন আগে তাকে জরিমানা করা হয়েছিল) কারাদণ্ড দেয়া হয়। এছাড়া ২ জনকে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়। 

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন