ফের উত্তপ্ত পার্বত্য চট্টগ্রাম: গুলিতে পিসিপির সদস্য নিহত
jugantor
ফের উত্তপ্ত পার্বত্য চট্টগ্রাম: গুলিতে পিসিপির সদস্য নিহত

  রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি  

২০ অক্টোবর ২০২০, ২০:১৪:৫৮  |  অনলাইন সংস্করণ

ফের উত্তম হয়ে উঠেছে পার্বত্য চট্টগ্রাম। রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়িতে প্রতিপক্ষের গুলিতে নিহতের নাম রত্ন চাকমা (২২) নামে জেএসএস এমএন লারমা দলের ছাত্র সংগঠন পিসিপির কর্মী নিহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার দুপুর ১ টার দিকে বাঘাইছড়ি সদর উপজেলায় বাবু পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত রত্ন উপজেলার খেদারমারা গ্রামের অন্ধলাল চাকমার ছেলে। সে জেএসএস এমএন লারমা দলের ছাত্র সংগঠন পিসিপির বাঘাইছড়ি উপজেলা সদস্য ছিলেন।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্র জানায়, মঙ্গলবার সকালে বাবুপাড়ায় ইউপিডিএফ গণতান্ত্রিক দলটি জেএসএস এমএন লারমা দলের সহযোগিতায় বাঘাইছড়ি উপজেলার স্থানীয় মানুষদের সঙ্গে একটি সভা আহ্বান করে। এ খবরে প্রতিপক্ষের অস্ত্রধারীরা বাবুপাড়ায় এসে অবস্থান নেয়।

ইউপিডিএফ গণতান্ত্রিক দলটি সভার প্রস্তুতি শুরু করলে প্রতিপক্ষের লোকেরা এসে এলোপাথাড়ি ব্রাশ ফায়ার করলে ঘটনাস্থলে রত্ন চাকমা নিহত হয়। এ ঘটনার পর পর এলাকায় আতঙ্ক বিরাজ করছে।

বাঘাইছড়ি থানার ওসি মো. আশরাফ উদ্দিন জানান, সন্ত্রাসীরা হামলা করে পালিয়ে গেছে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করেছে। এ ঘটনায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। স্থানীয়দের নিরাপত্তাজনিত কারণে ঘটনাস্থলে সেনা বাহিনী ও পুলিশ টহল দিচ্ছে।

এর আগে গত ১৩ অক্টোবর ২০২০ জেলার নানিয়ারচর বুড়িঘাটে সেনা টহলের উপর গুলি করে এক সেনা সদস্য আহত হয়েছে। সেনাবাহিনী আত্মরক্ষার জন্য পাল্টা গুলি করলে আঞ্চলিক রাজনৈতিক দল ইউপিডিএফ দুই সদস্য নিহত হয়। ৮ দিনের ব্যবধানে ফের জেলার বাঘাইছড়িতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে একজন নিহত হয়।

ফের উত্তপ্ত পার্বত্য চট্টগ্রাম: গুলিতে পিসিপির সদস্য নিহত

 রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি 
২০ অক্টোবর ২০২০, ০৮:১৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ফের উত্তম হয়ে উঠেছে পার্বত্য চট্টগ্রাম। রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়িতে প্রতিপক্ষের গুলিতে নিহতের নাম রত্ন চাকমা (২২) নামে জেএসএস এমএন লারমা দলের ছাত্র সংগঠন পিসিপির কর্মী নিহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার দুপুর ১ টার দিকে বাঘাইছড়ি সদর উপজেলায় বাবু পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত রত্ন উপজেলার খেদারমারা গ্রামের অন্ধলাল চাকমার ছেলে। সে জেএসএস এমএন লারমা দলের ছাত্র সংগঠন পিসিপির বাঘাইছড়ি উপজেলা সদস্য ছিলেন।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্র জানায়, মঙ্গলবার সকালে বাবুপাড়ায় ইউপিডিএফ গণতান্ত্রিক দলটি জেএসএস এমএন লারমা দলের সহযোগিতায় বাঘাইছড়ি উপজেলার স্থানীয় মানুষদের সঙ্গে একটি সভা আহ্বান করে। এ খবরে প্রতিপক্ষের অস্ত্রধারীরা বাবুপাড়ায় এসে অবস্থান নেয়।

ইউপিডিএফ গণতান্ত্রিক দলটি সভার প্রস্তুতি শুরু করলে প্রতিপক্ষের লোকেরা এসে এলোপাথাড়ি ব্রাশ ফায়ার করলে ঘটনাস্থলে রত্ন চাকমা নিহত হয়। এ ঘটনার পর পর এলাকায় আতঙ্ক বিরাজ করছে।

বাঘাইছড়ি থানার ওসি মো. আশরাফ উদ্দিন জানান, সন্ত্রাসীরা হামলা করে পালিয়ে গেছে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করেছে। এ ঘটনায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। স্থানীয়দের নিরাপত্তাজনিত কারণে ঘটনাস্থলে সেনা বাহিনী ও পুলিশ টহল দিচ্ছে।

এর আগে গত ১৩ অক্টোবর ২০২০ জেলার নানিয়ারচর বুড়িঘাটে সেনা টহলের উপর গুলি করে এক সেনা সদস্য আহত হয়েছে। সেনাবাহিনী আত্মরক্ষার জন্য পাল্টা গুলি করলে আঞ্চলিক রাজনৈতিক দল ইউপিডিএফ দুই সদস্য নিহত হয়। ৮ দিনের ব্যবধানে ফের জেলার বাঘাইছড়িতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে একজন নিহত হয়।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন