বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে নিয়োগবঞ্চিত শ্রমিকদের বিক্ষোভ
jugantor
বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে নিয়োগবঞ্চিত শ্রমিকদের বিক্ষোভ

  দিনাজপুর প্রতিনিধি  

২২ অক্টোবর ২০২০, ১৮:৩৩:৩০  |  অনলাইন সংস্করণ

বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে নিয়োগবঞ্চিত শ্রমিকদের বিক্ষোভ

দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে উৎপাদন শ্রমিক হিসেবে নিয়োগের দাবিতে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছেন তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের নিয়োগবঞ্চিত আন্দোলনরত শ্রমিকরা। এ সময় তারা আগামী ২৮ অক্টোবরের মধ্যে নিয়োগ না হলে কঠোর আন্দোলন কর্মসূচির আলটিমেটাম দিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রধান গেটের সামনে ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন করে এ আলটিমেটাম দেন নিয়োগবঞ্চিত আন্দোলনরত শ্রমিকরা।

মানববন্ধন কর্মসূচি চলাকালে আন্দোলন পরিচালনা কমিটির সভাপতি হাবিবুর রহমান বলেন, তারা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের দ্বিতীয় ইউনিটের কাজ শুরুর সময় থেকে উন্নয়ন শ্রমিক হিসেবে কাজ করছিলেন। উন্নয়নকাজ শেষ হওয়ার পর তাদের উৎপাদন শ্রমিক হিসেবে নিয়োগের কথা। কিন্তু পরবর্তীতে তাদের উৎপাদন শ্রমিক হিসেবে নিয়োগে টালবাহনা শুরু করে তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র কর্তৃপক্ষ।

তিনি বলেন, চাকরির জন্য বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের বঞ্চিত ১৪৩ জন শ্রমিক গত ২০১৭ সাল থেকে আন্দোলন করে আসছেন। আন্দোলনরত শ্রমিকদের নিয়োগ দেয়ার জন্য বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি) এবং বিদ্যুৎ ও জ্বালানি মন্ত্রণালয় আদেশ জারি করলেও তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র কর্তৃপক্ষ অদৃশ্য কারণে তাদের নিয়োগ না দিয়ে টালবাহনা করছে। তিনি অভিযোগ করে বলেন, তাদের (আন্দোলনরত শ্রমিক) জন্য বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি) পদ সৃষ্টি করলেও তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র কর্তৃপক্ষ তাদের নিয়োগ না দিয়ে চীনা ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান হারবিন কোম্পানিতে কর্মরত শ্রমিকদের নিয়োগ দেয়ার ষড়যন্ত্র করছে। তিনি এ ষড়যন্ত্র বন্ধ করে আন্দোলনরত শ্রমিকদের নিয়োগ দেয়ার আহবান জানান।

আন্দোলন পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক আবু সাইদ আগামী ২৮ তারিখের মধ্যে আন্দোলনরত শ্রমিকদের নিয়োগ দেয়ার দাবি জানিয়ে বলেন, ২৮ অক্টোবরের মধ্যে নিয়োগ না দেয়া হলে আরও কঠোর আন্দোলন কর্মসূচি শুরু করা হবে।
মানববন্ধন শেষে বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি বাজার এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল করেন শ্রমিকরা। মানববন্ধনে আন্দোলনরত শ্রমিক ও তাদের পরিবারের সদস্যরা অংশগ্রহণ করেন।

শ্রমিকরা জানান, আন্দোলনরত ১৪৩ জন শ্রমিককে নিয়োগ দেয়ার জন্য পরিপত্র জারি করলেও তাপবিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ তাদের নিয়োগ না দিয়ে টালবাহনা করছেন। এজন্য তারা আবারও আন্দোলনে নেমেছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রধান প্রকৌশলী ওয়াজেদ আলী সরদার জানান, আন্দোলনরত শ্রমিকদের বর্তমানে নিয়োগ দেয়ার জন্য কোনো অনুমতি পাওয়া যায়নি। সরকার অনুমতি দিলে নিয়োগের কাজ শুরু করা হবে।

বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে নিয়োগবঞ্চিত শ্রমিকদের বিক্ষোভ

 দিনাজপুর প্রতিনিধি 
২২ অক্টোবর ২০২০, ০৬:৩৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে নিয়োগবঞ্চিত শ্রমিকদের বিক্ষোভ
বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে নিয়োগবঞ্চিত শ্রমিকদের বিক্ষোভ

দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে উৎপাদন শ্রমিক হিসেবে নিয়োগের দাবিতে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছেন তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের নিয়োগবঞ্চিত আন্দোলনরত শ্রমিকরা। এ সময় তারা আগামী ২৮ অক্টোবরের মধ্যে নিয়োগ না হলে কঠোর আন্দোলন কর্মসূচির আলটিমেটাম দিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রধান গেটের সামনে ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন করে এ আলটিমেটাম দেন নিয়োগবঞ্চিত আন্দোলনরত শ্রমিকরা।

মানববন্ধন কর্মসূচি চলাকালে আন্দোলন পরিচালনা কমিটির সভাপতি হাবিবুর রহমান বলেন, তারা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের দ্বিতীয় ইউনিটের কাজ শুরুর সময় থেকে উন্নয়ন শ্রমিক হিসেবে কাজ করছিলেন। উন্নয়নকাজ শেষ হওয়ার পর তাদের উৎপাদন শ্রমিক হিসেবে নিয়োগের কথা। কিন্তু পরবর্তীতে তাদের উৎপাদন শ্রমিক হিসেবে নিয়োগে টালবাহনা শুরু করে তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র কর্তৃপক্ষ।

তিনি বলেন, চাকরির জন্য বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের বঞ্চিত ১৪৩ জন শ্রমিক গত ২০১৭ সাল থেকে আন্দোলন করে আসছেন। আন্দোলনরত শ্রমিকদের নিয়োগ দেয়ার জন্য বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি) এবং বিদ্যুৎ ও জ্বালানি মন্ত্রণালয় আদেশ জারি করলেও তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র কর্তৃপক্ষ অদৃশ্য কারণে তাদের নিয়োগ না দিয়ে টালবাহনা করছে। তিনি অভিযোগ করে বলেন, তাদের (আন্দোলনরত শ্রমিক) জন্য বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি) পদ সৃষ্টি করলেও তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র কর্তৃপক্ষ তাদের নিয়োগ না দিয়ে চীনা ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান হারবিন কোম্পানিতে কর্মরত শ্রমিকদের নিয়োগ দেয়ার ষড়যন্ত্র করছে। তিনি এ ষড়যন্ত্র বন্ধ করে আন্দোলনরত শ্রমিকদের নিয়োগ দেয়ার আহবান জানান।

আন্দোলন পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক আবু সাইদ আগামী ২৮ তারিখের মধ্যে আন্দোলনরত শ্রমিকদের নিয়োগ দেয়ার দাবি জানিয়ে বলেন, ২৮ অক্টোবরের মধ্যে নিয়োগ না দেয়া হলে আরও কঠোর আন্দোলন কর্মসূচি শুরু করা হবে। 
মানববন্ধন শেষে বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি বাজার এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল করেন শ্রমিকরা। মানববন্ধনে আন্দোলনরত শ্রমিক ও তাদের পরিবারের সদস্যরা অংশগ্রহণ করেন।

শ্রমিকরা জানান, আন্দোলনরত ১৪৩ জন শ্রমিককে নিয়োগ দেয়ার জন্য পরিপত্র জারি করলেও তাপবিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ তাদের নিয়োগ না দিয়ে টালবাহনা করছেন। এজন্য তারা আবারও আন্দোলনে নেমেছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রধান প্রকৌশলী ওয়াজেদ আলী সরদার জানান, আন্দোলনরত শ্রমিকদের বর্তমানে নিয়োগ দেয়ার জন্য কোনো অনুমতি পাওয়া যায়নি। সরকার অনুমতি দিলে নিয়োগের কাজ শুরু করা হবে।
 

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন