খুমেক হাসপাতালে স্বাস্থ্যসেবার মানোন্নয়নে জেলা প্রশাসকের উদ্ভাবনী উদ্যোগ
jugantor
খুমেক হাসপাতালে স্বাস্থ্যসেবার মানোন্নয়নে জেলা প্রশাসকের উদ্ভাবনী উদ্যোগ

  যুগান্তর ডেস্ক  

২২ অক্টোবর ২০২০, ২২:৪৫:২৩  |  অনলাইন সংস্করণ

খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির বৃহস্পতিবারের সভায় খুলনার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন একটি উদ্ভাবনী স্বাস্থ্য মডেল উপস্থাপন করেন যার নাম Integrated & Sustainable Digital HealthModel, Khulna. জনপ্রতিনিধি, খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক, চিকিৎসক, কর্মকর্তা এবং খুলনা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ও উপাধ্যক্ষের সঙ্গে সমন্বয় করে এ মডেল উপস্থাপন করা হয়।

জেলা প্রশাসক বলেন, এই মডেলের আওতায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশন-২০২১ এবং ভিশন-২০৪১ মোতাবেক Digitalization এর উদ্যোগের মাধ্যমে গতানুগতিক ব্যবস্থাপনা মডেলের পাশাপাশি বিভিন্ন জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক মডেল যেমন- TQM (Total QualityManagement), 5s Model, 5s Plus, Kaizen Model ইত্যাদির সমন্বয়ে এবং স্বাস্থ্য বিভাগ, জনপ্রতিনিধি, স্থানীয় প্রশাসন এবং জনসাধারণের সমন্বিত অংশগ্রহণের মাধ্যমে বিদ্যমান সমস্যা সমাধানের উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে। তিনি আরও বলেন, সবার জন্য সুস্বাস্থ্য প্রধানমন্ত্রীর অঙ্গীকার। সে লক্ষেই প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মোতাবেক খুলনা জেলা প্রশাসন কাজ করে যাচ্ছে।

সভায় সভাপতিত্ব করেন বঙ্গবন্ধুর ভ্রাতুষ্পুত্র ও খুলনা-২ আসনের সংসদ সদস্য সেখ সালাহউদ্দিন জুয়েল। সংসদ সদস্য বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ সকল সূচকে ঈর্ষণীয় গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। সময়ের চাহিদা আলোকে উপস্থাপিত স্বাস্থ্যসেবার মডেল বাস্তবায়ন করা গেলে এ অঞ্চলের মানুষ তথা দক্ষিণ-পশ্চিম অঞ্চলের বিশাল জনগোষ্ঠী উপকৃত হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

সভার প্রধান অতিথি খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আবদুল খালেক বলেন, স্বাস্থ্যসেবার ক্ষেত্রে এ মডেল সংশ্লিষ্ট সবার অংশগ্রহণ ও সমন্বয়ের ক্ষেত্রে গুরত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে, যা জনগণের কাঙ্খিত স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করবে।

খুলনা বিভাগের বিভাগীয় কমিশনার ড. মু. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার বলেন, এ মডেলের মাধ্যমে স্বাস্থ্যসেবা হবে স্বচ্ছ ও জবাবদিহিমূলক, যা এ সরকারের অন্যতম কমিটমেন্ট।

খুলনা জেলা প্রশাসকের উদ্ভাবনী উদ্যোগটি সভায় গৃহীত হয়।

সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন সরদার রাকিবুল ইসলাম মহোদয়, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার, খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ, ডা. মুন্সী রেজা সেকান্দার, পরিচালক, খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, ডা. আব্দুল আহাদ, অধ্যক্ষ, খুলনা মেডিকেল কলেজ, ডা. মেহেদী নেওয়াজ, উপাধ্যক্ষ, খুলনা মেডিকেল কলেজসহ জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা, মহানগর আওয়ামী লীগের নেতা এবং হাসপাতালের চিকিৎসকরা।

খুমেক হাসপাতালে স্বাস্থ্যসেবার মানোন্নয়নে জেলা প্রশাসকের উদ্ভাবনী উদ্যোগ

 যুগান্তর ডেস্ক 
২২ অক্টোবর ২০২০, ১০:৪৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির বৃহস্পতিবারের সভায় খুলনার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন  একটি উদ্ভাবনী স্বাস্থ্য মডেল উপস্থাপন করেন যার নাম Integrated & Sustainable Digital HealthModel, Khulna. জনপ্রতিনিধি, খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক, চিকিৎসক, কর্মকর্তা এবং খুলনা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ও উপাধ্যক্ষের সঙ্গে সমন্বয় করে এ মডেল উপস্থাপন করা হয়।

জেলা প্রশাসক বলেন, এই মডেলের আওতায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশন-২০২১ এবং ভিশন-২০৪১ মোতাবেক Digitalization এর উদ্যোগের মাধ্যমে গতানুগতিক ব্যবস্থাপনা মডেলের পাশাপাশি বিভিন্ন জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক মডেল যেমন- TQM (Total QualityManagement), 5s Model, 5s Plus, Kaizen Model ইত্যাদির সমন্বয়ে এবং স্বাস্থ্য বিভাগ, জনপ্রতিনিধি, স্থানীয় প্রশাসন এবং জনসাধারণের সমন্বিত অংশগ্রহণের মাধ্যমে বিদ্যমান সমস্যা সমাধানের উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে। তিনি আরও বলেন, সবার জন্য সুস্বাস্থ্য প্রধানমন্ত্রীর অঙ্গীকার। সে লক্ষেই প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মোতাবেক খুলনা জেলা প্রশাসন কাজ করে যাচ্ছে।

সভায় সভাপতিত্ব করেন বঙ্গবন্ধুর ভ্রাতুষ্পুত্র ও খুলনা-২ আসনের সংসদ সদস্য সেখ সালাহউদ্দিন জুয়েল। সংসদ সদস্য বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ সকল সূচকে ঈর্ষণীয় গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। সময়ের চাহিদা আলোকে উপস্থাপিত স্বাস্থ্যসেবার মডেল বাস্তবায়ন করা গেলে এ অঞ্চলের মানুষ তথা দক্ষিণ-পশ্চিম অঞ্চলের বিশাল জনগোষ্ঠী উপকৃত হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

সভার প্রধান অতিথি খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আবদুল খালেক বলেন, স্বাস্থ্যসেবার ক্ষেত্রে এ মডেল সংশ্লিষ্ট সবার অংশগ্রহণ ও সমন্বয়ের ক্ষেত্রে গুরত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে, যা জনগণের কাঙ্খিত স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করবে।

খুলনা বিভাগের বিভাগীয় কমিশনার ড. মু. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার বলেন, এ মডেলের মাধ্যমে স্বাস্থ্যসেবা হবে স্বচ্ছ ও জবাবদিহিমূলক, যা এ সরকারের অন্যতম কমিটমেন্ট।

খুলনা জেলা প্রশাসকের উদ্ভাবনী উদ্যোগটি সভায় গৃহীত হয়।

সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন সরদার রাকিবুল ইসলাম মহোদয়, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার, খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ, ডা. মুন্সী রেজা সেকান্দার, পরিচালক, খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, ডা. আব্দুল আহাদ, অধ্যক্ষ, খুলনা মেডিকেল কলেজ, ডা. মেহেদী নেওয়াজ, উপাধ্যক্ষ, খুলনা মেডিকেল কলেজসহ জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা, মহানগর আওয়ামী লীগের নেতা এবং হাসপাতালের চিকিৎসকরা।
 

 
আরও খবর
 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন