পাইকগাছায় হিতামপুরের কপোতাক্ষ নদে ভাঙন: আতঙ্কে ৫ গ্রামের
jugantor
পাইকগাছায় হিতামপুরের কপোতাক্ষ নদে ভাঙন: আতঙ্কে ৫ গ্রামের

  মানুষ জিএম মিজানুর রহমান, পাইকগাছা (খুলনা)  

২৩ অক্টোবর ২০২০, ২২:৪৭:১৬  |  অনলাইন সংস্করণ

পাইকগাছায় হিতামপুরের কপোতাক্ষ নদে ভাঙন: আতঙ্কে ৫ গ্রামের

খুলনার পাইকগাছার বোয়ালিয়ার কপোতাক্ষ নদের ভাঙন ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে, আতঙ্কে আছে ৫ গ্রামের মানুষ।

যেকোনো সময় দুটি ইউনিয়নের ৫টি গ্রাম প্লাবিত হওয়ার আশঙ্কা করছেন এলাকাবাসী। এলাকাবাসী ওয়াপদার বাঁধটি সংস্কারের জন্য খুলনা-৬ আসনের এমপি মো. আকতারুজ্জামান বাবুসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

জানা যায়, উপজেলার হিতামপুর মৌজার ১৬নং পোল্ডারের কপোতক্ষ নদের হিতামপুর স্লুইস গেট সংলগ্ন এলাকায় ভাঙন দেখা দিয়েছে। ইতোমধ্যে নদের চরসহ ওয়াপদার বাঁধের বেশির ভাগ এলাকায় নদের গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবিএম খালিদ হোসেন সিদ্দিকীকে অবহিত করলে তিনি তাৎক্ষণিক পাউবোর উপসহকারী প্রকৌশলী (এসও) ফরিদ উদ্দীনকে ভাঙনকবলিত এলাকায় পাঠিয়ে খোঁজখবর নেন।

এদিকে ভাঙন দেখা দেয়ায় কপিলমুনি ইউনিয়নের আগড়ঘাটা, সিলেমানপুর ও গদাইপুরের হিতামপুর, চরমলই, মেলেকপুরাইকাটির মানুষ চরম আতঙ্কে রয়েছেন। ক্ষতিগ্রস্ত হবে চিংড়ি ঘের, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, মসজিদ, মন্দির, ফসলি জমি, কাঁচা ঘরবাড়ি ও মুরগির ফার্ম।

পাইকগাছা উপসহকারী প্রকৌশলী ফরিদউদ্দীন বলেন, আমি ভাঙনকবলিত স্থান পরিদর্শন করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবিএম খালিদ হোসেন সিদ্দিকীসহ ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। অচিরেই বাঁধের কাজ শুরু হবে।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী পলাশ কুমার ব্যানার্জি জানান, কিছুদিন আগে চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে কাজ করেছি।

স্থানীয় সংসদ সদস্য আকতারুজ্জামান বাবু জানান, ভাঙনকবলিত এলাকার ভেতর দিয়ে ৩শ' মিটারের বিকল্প বাঁধ তৈরি করার পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে।

পাইকগাছায় হিতামপুরের কপোতাক্ষ নদে ভাঙন: আতঙ্কে ৫ গ্রামের

 মানুষ জিএম মিজানুর রহমান, পাইকগাছা (খুলনা) 
২৩ অক্টোবর ২০২০, ১০:৪৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
পাইকগাছায় হিতামপুরের কপোতাক্ষ নদে ভাঙন: আতঙ্কে ৫ গ্রামের
পাইকগাছায় হিতামপুরের কপোতাক্ষ নদে ভাঙন: আতঙ্কে ৫ গ্রামের

খুলনার পাইকগাছার বোয়ালিয়ার কপোতাক্ষ নদের ভাঙন ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে, আতঙ্কে আছে ৫ গ্রামের মানুষ।

যেকোনো সময়  দুটি ইউনিয়নের ৫টি গ্রাম প্লাবিত হওয়ার আশঙ্কা করছেন এলাকাবাসী। এলাকাবাসী ওয়াপদার বাঁধটি সংস্কারের জন্য খুলনা-৬ আসনের এমপি মো. আকতারুজ্জামান বাবুসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

জানা যায়, উপজেলার হিতামপুর মৌজার ১৬নং পোল্ডারের কপোতক্ষ নদের হিতামপুর স্লুইস গেট সংলগ্ন এলাকায় ভাঙন দেখা দিয়েছে। ইতোমধ্যে নদের চরসহ ওয়াপদার বাঁধের বেশির ভাগ এলাকায় নদের গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবিএম খালিদ হোসেন সিদ্দিকীকে অবহিত করলে তিনি তাৎক্ষণিক পাউবোর উপসহকারী প্রকৌশলী (এসও) ফরিদ উদ্দীনকে ভাঙনকবলিত এলাকায় পাঠিয়ে খোঁজখবর নেন।

এদিকে ভাঙন দেখা দেয়ায় কপিলমুনি ইউনিয়নের আগড়ঘাটা, সিলেমানপুর ও গদাইপুরের হিতামপুর, চরমলই, মেলেকপুরাইকাটির মানুষ চরম আতঙ্কে রয়েছেন। ক্ষতিগ্রস্ত হবে চিংড়ি ঘের, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, মসজিদ, মন্দির, ফসলি জমি, কাঁচা ঘরবাড়ি ও মুরগির ফার্ম।

পাইকগাছা উপসহকারী প্রকৌশলী ফরিদউদ্দীন বলেন, আমি ভাঙনকবলিত স্থান পরিদর্শন করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবিএম খালিদ হোসেন সিদ্দিকীসহ ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। অচিরেই বাঁধের কাজ শুরু হবে। 

পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী পলাশ কুমার ব্যানার্জি জানান, কিছুদিন আগে চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে কাজ করেছি।

স্থানীয় সংসদ সদস্য আকতারুজ্জামান বাবু জানান, ভাঙনকবলিত এলাকার  ভেতর দিয়ে ৩শ' মিটারের বিকল্প বাঁধ তৈরি করার পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে।
 

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন