নোয়াখালীতে চকোলেটের প্রলোভন দেখিয়ে শিশু ধর্ষণ
jugantor
নোয়াখালীতে চকোলেটের প্রলোভন দেখিয়ে শিশু ধর্ষণ

  নোয়াখালী প্রতিনিধি  

২৪ অক্টোবর ২০২০, ০৮:৪১:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

শিশু ধর্ষণ

নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলায় চকোলেট দেয়ার কথা বলে সাত বছর বয়সী একটি শিশুকে ধর্ষণ করা হয়েছে। এ ঘটনার পর ধর্ষক আবদুল হক কাজী (৫৫) পলাতক রয়েছে।

ভুক্তভোগী শিশুর বাবা বৃহস্পতিবার রাতে ওই ধর্ষকের বিরুদ্ধে নারীও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন।

এর আগে বুধবার দুপুরে উপজেলার চরজব্বার ইউনিয়নের চরহাছান গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

আবদুল হক কাজী একই ইউনিয়নের চরহাছান গ্রামের দায়মুদ্দিন কাজীর ছেলে। নির্যাতিত শিশুটিকে গুরুতর আহত অবস্থায় স্থানীয় চরজব্বার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

চরজব্বার থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ইব্রাহীম খলিল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় ভুক্তভোগী শিশুর বাবা বৃহস্পতিবার রাতে অভিযুক্ত আসামির বিরুদ্ধে নারীও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন।

থানায় দায়ের করা এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, নির্যাতিতা ওই মেয়েটি শিশু শ্রেণিতে পড়ে। বুধবার দুপুরে সে বাড়ির পাশে খেলাধুলা করার সময় প্রতিবেশী আবদুল হক কাজী তাকে চকোলেট দেয়ার কথা বলে বসতঘরে নিয়ে ধর্ষণ করে।

পরে শিশুটি গুরুতর আহত অবস্থায় বাড়িতে গিয়ে তার মাকে ঘটনাটি জানিয়ে দেয়। এক পর্যায়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের সহযোগিতায় শিশুটির পরিবার চরজব্বার থানায় মামলা দায়ের করে।

পরিদর্শক (তদন্ত) ইব্রাহীম খলিল বলেন, অভিযুক্ত আসামিকে গ্রেফতারে পুলিশ জোর তৎপরতা অব্যাহত রেখেছে।

নোয়াখালীতে চকোলেটের প্রলোভন দেখিয়ে শিশু ধর্ষণ

 নোয়াখালী প্রতিনিধি 
২৪ অক্টোবর ২০২০, ০৮:৪১ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
শিশু ধর্ষণ
ফাইল ছবি

নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলায় চকোলেট দেয়ার কথা বলে সাত বছর বয়সী একটি শিশুকে ধর্ষণ করা হয়েছে। এ ঘটনার পর ধর্ষক আবদুল হক কাজী (৫৫) পলাতক রয়েছে।

ভুক্তভোগী শিশুর বাবা বৃহস্পতিবার রাতে ওই ধর্ষকের বিরুদ্ধে নারীও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন।

এর আগে বুধবার দুপুরে উপজেলার চরজব্বার ইউনিয়নের চরহাছান গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

আবদুল হক কাজী একই ইউনিয়নের চরহাছান গ্রামের দায়মুদ্দিন কাজীর ছেলে। নির্যাতিত শিশুটিকে গুরুতর আহত অবস্থায় স্থানীয় চরজব্বার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

চরজব্বার থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ইব্রাহীম খলিল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় ভুক্তভোগী শিশুর বাবা বৃহস্পতিবার রাতে অভিযুক্ত আসামির বিরুদ্ধে নারীও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন।

থানায় দায়ের করা এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, নির্যাতিতা ওই মেয়েটি শিশু শ্রেণিতে পড়ে। বুধবার দুপুরে সে বাড়ির পাশে খেলাধুলা করার সময় প্রতিবেশী আবদুল হক কাজী তাকে চকোলেট দেয়ার কথা বলে বসতঘরে নিয়ে ধর্ষণ করে।  

পরে শিশুটি গুরুতর আহত অবস্থায় বাড়িতে গিয়ে তার মাকে ঘটনাটি জানিয়ে দেয়। এক পর্যায়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের সহযোগিতায় শিশুটির পরিবার চরজব্বার থানায় মামলা দায়ের করে।  

পরিদর্শক (তদন্ত) ইব্রাহীম খলিল বলেন, অভিযুক্ত আসামিকে গ্রেফতারে পুলিশ জোর তৎপরতা অব্যাহত রেখেছে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন