ফুলতলী সীমান্তে ১০ হাজার ইয়াবা জব্দ
jugantor
ফুলতলী সীমান্তে ১০ হাজার ইয়াবা জব্দ

  বান্দরবান প্রতিনিধি  

২৫ অক্টোবর ২০২০, ১৩:৪৮:২০  |  অনলাইন সংস্করণ

ইয়াবা

বান্দরবানের মিয়ানমার সীমান্তবর্তী নাইক্ষ্যংছড়ি থেকে ১০ হাজার ইয়াবা জব্দ করেছে বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন (বিজিবি)।

শনিবার রাতে উপজেলার সদর ইউনিয়নের ফুলতলী সীমান্ত থেকে এসব ইয়াবা জব্দ করা হয়। তবে এ ঘটনায় তাৎক্ষণিক কাউকে আটক করতে না পারলেও জড়িত মাদকপাচারকারী চক্রকে চিহ্নিত করার মাধ্যমে আইনি কার্যক্রম হাতে নিয়েছে ১১ বিজিবি।

বিজিবি ও স্থানীয় সূত্র জানায়, মিয়ানমার সীমান্ত পার হয়ে ইয়াবার একটি চালান পাচার করবে মাদককারবারি চক্র- এমন সংবাদ পাওয়া যায়।

এর ভিত্তিতে অভিযান চালায় ১১-বিজিবির ফুলতলী বিওপির একটি টহল দল। দলটি ফুলতলী বিওপির পশ্চিম দিকে কড়ইবাগান এলাকায় পৌঁছালে মাদককারবারিরা দ্রুত পালিয়ে জঙ্গলে গা ঢাকা দেয়। পরে ঘটনাস্থল থেকে ১০ হাজার পিস ইয়াবা জব্দ করা হয়।

ইয়াবা পাচারে জড়িত মাদককারবারিদের শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে। এ ঘটনায় পলাতক আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে নাইক্ষ্যংছড়ি-১১ বিজিবি অধিনায়ক লে. কর্নেল শাহ আবদুল আজিজ আহমেদ জানান, প্রধানমন্ত্রী মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছেন। এ অবস্থায় বিজিবি তাদের কর্তব্য পালনে অটুট। মাদকবিরোধী অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

ফুলতলী সীমান্তে ১০ হাজার ইয়াবা জব্দ

 বান্দরবান প্রতিনিধি 
২৫ অক্টোবর ২০২০, ০১:৪৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ইয়াবা
ফাইল ছবি

বান্দরবানের মিয়ানমার সীমান্তবর্তী নাইক্ষ্যংছড়ি থেকে ১০ হাজার ইয়াবা জব্দ করেছে বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন (বিজিবি)।

শনিবার রাতে উপজেলার সদর ইউনিয়নের ফুলতলী সীমান্ত থেকে এসব ইয়াবা জব্দ করা হয়। তবে এ ঘটনায় তাৎক্ষণিক কাউকে আটক করতে না পারলেও জড়িত মাদকপাচারকারী চক্রকে চিহ্নিত করার মাধ্যমে আইনি কার্যক্রম হাতে নিয়েছে ১১ বিজিবি।

বিজিবি ও স্থানীয় সূত্র জানায়, মিয়ানমার সীমান্ত পার হয়ে ইয়াবার একটি চালান পাচার করবে মাদককারবারি চক্র- এমন সংবাদ পাওয়া যায়।

এর ভিত্তিতে অভিযান চালায় ১১-বিজিবির ফুলতলী বিওপির একটি টহল দল। দলটি ফুলতলী বিওপির পশ্চিম দিকে কড়ইবাগান এলাকায় পৌঁছালে মাদককারবারিরা দ্রুত পালিয়ে জঙ্গলে গা ঢাকা দেয়। পরে ঘটনাস্থল থেকে ১০ হাজার পিস ইয়াবা জব্দ করা হয়।

ইয়াবা পাচারে জড়িত মাদককারবারিদের শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে। এ ঘটনায় পলাতক আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে নাইক্ষ্যংছড়ি-১১ বিজিবি অধিনায়ক লে. কর্নেল শাহ আবদুল আজিজ আহমেদ জানান, প্রধানমন্ত্রী মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছেন। এ অবস্থায় বিজিবি তাদের কর্তব্য পালনে অটুট। মাদকবিরোধী অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন