মাদারীপুরে আড়িয়াল খাঁ’র পেটে গেল ৬টি বসতঘর
jugantor
মাদারীপুরে আড়িয়াল খাঁ’র পেটে গেল ৬টি বসতঘর

  টেকেরহাট (মাদারীপুর) প্রতিনিধি  

২৫ অক্টোবর ২০২০, ২২:৩৩:৫১  |  অনলাইন সংস্করণ

আড়িয়াল খাঁ

মাদারীপুরে হঠাৎ করেই আড়িয়াল খাঁ নদের ভাঙন দেখা দিয়েছে। শনিবার রাতে সদর উপজেলার উত্তর পাঁচখোলা এলাকার দুটি ইটভাটার একাংশ, ৬টি বসতঘর ও ৩শ’ মিটার সড়ক নদে বিলীন হয়ে গেছে।

স্থানীয়রা জানান, আড়িয়াল খাঁ নদে পানি কমতে শুরু করায় দেখা দিয়েছে ভাঙন। হঠাৎ করেই শনিবার রাতে উত্তর পাঁচখোলা এলাকার দুটি ইটভাটার একাংশ, ৩শ’ মিটার সড়ক ও ৬টি বসতঘর নদে বিলীন হয়ে যায়। এতে মানবেতর জীবনযাপন করছেন নদের পাশের বাসিন্দা। সড়কটি নদে বিলীন হওয়ায় যাতায়াতে মারাত্মক সমস্যায় পড়েছেন ওই এলাকার বাসিন্দারা। এমনকি এখনও রয়েছে ভাঙন আতঙ্ক। ব্যক্তিগত উদ্যোগে কেউ কেউ ইট, সুরকি ও বালুর বস্তা ফেলে ভাঙন ঠেকানোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। তা পর্যাপ্ত না হওয়ায় দ্রুত ভাঙন রোধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণে সরকারের সহযোগিতা চেয়েছেন ভুক্তভোগীরা।

নদের ভাঙনে ক্ষতিগ্রস্ত একেবি ইটভাটার মালিক আ. মান্নান খান বলেন, শনিবার সন্ধ্যা থেকে রাত পর্যন্ত হঠাৎ করে আড়িয়াল খাঁ নদে ভাঙন শুরু হয়। আমার ইটভাটার একাংশ নদে বিলীন হয়ে যায়। নদের পাড়ে প্রায় ১৫ লাখ ইট স্তূপ করে রাখা ছিল। ভাঙনে আমার স্তূপ করা ইট নদে বিলীন হয়ে যায়। সরকার যেন দ্রুত ভাঙন রোধে ব্যবস্থা গ্রহণ করে।

মাদারীপুরে আড়িয়াল খাঁ’র পেটে গেল ৬টি বসতঘর

 টেকেরহাট (মাদারীপুর) প্রতিনিধি 
২৫ অক্টোবর ২০২০, ১০:৩৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
আড়িয়াল খাঁ
আড়িয়াল খাঁ

মাদারীপুরে হঠাৎ করেই আড়িয়াল খাঁ নদের ভাঙন দেখা দিয়েছে। শনিবার রাতে সদর উপজেলার উত্তর পাঁচখোলা এলাকার দুটি ইটভাটার একাংশ, ৬টি বসতঘর ও ৩শ’ মিটার সড়ক নদে বিলীন হয়ে গেছে।

স্থানীয়রা জানান, আড়িয়াল খাঁ নদে পানি কমতে শুরু করায় দেখা দিয়েছে ভাঙন। হঠাৎ করেই শনিবার রাতে উত্তর পাঁচখোলা এলাকার দুটি ইটভাটার একাংশ, ৩শ’ মিটার সড়ক ও ৬টি বসতঘর নদে বিলীন হয়ে যায়। এতে মানবেতর জীবনযাপন করছেন নদের পাশের বাসিন্দা। সড়কটি নদে বিলীন হওয়ায় যাতায়াতে মারাত্মক সমস্যায় পড়েছেন ওই এলাকার বাসিন্দারা। এমনকি এখনও রয়েছে ভাঙন আতঙ্ক। ব্যক্তিগত উদ্যোগে কেউ কেউ ইট, সুরকি ও বালুর বস্তা ফেলে ভাঙন ঠেকানোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। তা পর্যাপ্ত না হওয়ায় দ্রুত ভাঙন রোধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণে সরকারের সহযোগিতা চেয়েছেন ভুক্তভোগীরা।

নদের ভাঙনে ক্ষতিগ্রস্ত একেবি ইটভাটার মালিক আ. মান্নান খান বলেন, শনিবার সন্ধ্যা থেকে রাত পর্যন্ত হঠাৎ করে আড়িয়াল খাঁ নদে ভাঙন শুরু হয়। আমার ইটভাটার একাংশ নদে বিলীন হয়ে যায়। নদের পাড়ে প্রায় ১৫ লাখ ইট স্তূপ করে রাখা ছিল। ভাঙনে আমার স্তূপ করা ইট নদে বিলীন হয়ে যায়। সরকার যেন দ্রুত ভাঙন রোধে ব্যবস্থা গ্রহণ করে।
 

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন