মামলায় হাজিরা দিতে গিয়ে নব্যযুবলীগ নেতা শ্রীঘরে
jugantor
মামলায় হাজিরা দিতে গিয়ে নব্যযুবলীগ নেতা শ্রীঘরে

  কালকিনি (মাদারীপুর) প্রতিনিধি  

২৬ অক্টোবর ২০২০, ২২:৪৩:০৮  |  অনলাইন সংস্করণ

মামলায় হাজিরা দিতে গিয়ে যুবলীগ নেতা শ্রীঘরে

মাদারীপুরের কালকিনিতে একাধিক মামলার আসামি নবযোগদানকৃত উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. বাবুল আকন মাদারীপুর আদালতে হাজিরা দিতে গেলে বিচারক তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠিয়েছেন। আসামি বাবুল আকন এর আগে উপজেলা বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদকের পদে দায়িত্ব পালন করেছেন। সোমবার দুপুরে থানা পুলিশ সূত্রে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

মামলা ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত বছর এসএসসি পরীক্ষা চলাকালীন উপজেলার লক্ষীপুর ইউনাইটেড উচ্চ বিদ্যালয়ের পরীক্ষার্থী মো. তারেক মাহমুদ সরদার তার পরীক্ষা শেষে একা বাড়ি রওনা দেয়। পথিমধ্যে ওতপেতে থাকা আসামি বাবুল আকনের নেতৃত্বে বেশ কয়েকজন মিলে পরীক্ষার্থী তারেক মাহমুদকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ফেলে রাখে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী পরীক্ষার্থীর নানা দানেশ সরদার বাদী হয়ে বাবুল আকনসহ ৭ জনকে আসামি করে কালকিনি থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় গত রোববার দুপুরে বাবুল আকন জামিন আনার জন্য আদালতে হাজিরা দিতে যান। এ সময় আদালতের বিচারক তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে প্রেরণ করেন।

উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সরদার নিজামুল হক সাংবাদিকদের বলেন, বাবুল আকন একজন প্রতারক ও মিথ্যাবাদী। তার সাথে যুবলীগের বর্তমানে কোনো সম্পর্ক নেই।

এ ব্যাপারে কালকিনি থানার ওসি মো. নাছির উদ্দিন মৃধা বলেন, বাবুল আকন ছাত্র কোপানোর মামলায় জামিন আনতে গেলে আদালত তাকে জেলে পাঠিয়েছেন। বাবুলের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে।

মামলায় হাজিরা দিতে গিয়ে নব্যযুবলীগ নেতা শ্রীঘরে

 কালকিনি (মাদারীপুর) প্রতিনিধি 
২৬ অক্টোবর ২০২০, ১০:৪৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
মামলায় হাজিরা দিতে গিয়ে যুবলীগ নেতা শ্রীঘরে
মামলায় হাজিরা দিতে গিয়ে যুবলীগ নেতা শ্রীঘরে

মাদারীপুরের কালকিনিতে একাধিক মামলার আসামি নবযোগদানকৃত উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. বাবুল আকন মাদারীপুর আদালতে হাজিরা দিতে গেলে বিচারক তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠিয়েছেন। আসামি বাবুল আকন এর আগে উপজেলা বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদকের পদে দায়িত্ব পালন করেছেন। সোমবার দুপুরে থানা পুলিশ সূত্রে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

মামলা ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত বছর এসএসসি পরীক্ষা চলাকালীন উপজেলার লক্ষীপুর ইউনাইটেড উচ্চ বিদ্যালয়ের পরীক্ষার্থী মো. তারেক মাহমুদ সরদার তার পরীক্ষা শেষে একা বাড়ি রওনা দেয়। পথিমধ্যে ওতপেতে থাকা আসামি বাবুল আকনের নেতৃত্বে বেশ কয়েকজন মিলে পরীক্ষার্থী তারেক মাহমুদকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ফেলে রাখে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী পরীক্ষার্থীর নানা দানেশ সরদার বাদী হয়ে বাবুল আকনসহ ৭ জনকে আসামি করে কালকিনি থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় গত রোববার দুপুরে বাবুল আকন জামিন আনার জন্য আদালতে হাজিরা দিতে যান। এ সময় আদালতের বিচারক তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে প্রেরণ করেন।

উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সরদার নিজামুল হক সাংবাদিকদের বলেন, বাবুল আকন একজন প্রতারক ও মিথ্যাবাদী। তার সাথে যুবলীগের বর্তমানে কোনো সম্পর্ক নেই।

এ ব্যাপারে কালকিনি থানার ওসি মো. নাছির উদ্দিন মৃধা বলেন, বাবুল আকন ছাত্র কোপানোর মামলায় জামিন আনতে গেলে আদালত তাকে জেলে পাঠিয়েছেন। বাবুলের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন