বড়াইগ্রামে বসতঘরে রহস্যজনক আগুন, বৃদ্ধার মৃত্যু
jugantor
বড়াইগ্রামে বসতঘরে রহস্যজনক আগুন, বৃদ্ধার মৃত্যু

  বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিনিধি  

২৮ অক্টোবর ২০২০, ১৩:৫৪:৪৭  |  অনলাইন সংস্করণ

বড়াইগ্রামে বসতঘরে রহস্যজনক আগুন, বৃদ্ধার মৃত্যু

নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলায় বসতঘরে রহস্যজনক আগুনে দগ্ধ হয়ে এক বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে। নিহত বৃদ্ধার নাম রঞ্জিতা বেওয়া (৮০)।

মঙ্গলবার দিনগত রাত ৩টার দিকে উপজেলার তালশো গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত রঞ্জিতা বেওয়া তালশো গ্রামের মৃত আজিজুল ইসলাম মুন্সীর স্ত্রী।

নগর ইউনিয়নের ওয়ার্ড সদস্য আবু সাঈদ জানান, রাতের খাবার খেয়ে রঞ্চিতা বেওয়া ও তার নাতি রমজান আলী (১৩) ওই ঘরে ঘুমিয়ে পড়েন।

দিবাগত রাত ৩টার দিকে ঘরে রহস্যজনকভাবে আগুন লাগে। এ সময় বিষয়টি বুঝতে পেরে নাতি রমজান আলী দাদিকে নিয়ে ঘর থেকে বাইরে এসে চিৎকার শুরু করেন।

পরে এলাকাবাসী এগিয়ে এসে আগুন নেভানোর কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়েন। এ সময় সবার অগোচরে রঞ্চিতা বেওয়া পুনরায় তার গচ্ছিত টাকা ও ব্যবহার্যসামগ্রী আনতে ঘরের ভেতরে ঢোকেন।

পরে আগুন নেভানোর পর সবাই ঘরের ভেতর বৃদ্ধার মরদেহ পড়ে থাকতে দেখেন।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে।

জানা যায়, প্রায় ২০-২৫ দিন আগেও প্রতিবেশী এক যুবকের বিরুদ্ধে ওই বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেয়ার অভিযোগ ওঠে। পরে তারা বিষয়টি স্থানীয়ভাবে মীমাংসা করে নেন বলে জানা গেছে।

এ বিষয়ে বড়াইগ্রাম থানার ওসি আনোয়ারুল হক বলেন, যেহেতু ওই বাড়িতে ইতিপূর্বে একটি অগ্নিকাণ্ডের বিষয়ে বিতর্ক রয়েছে, সেহেতু আমরা নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছি।

ময়না তদন্ত রিপোর্ট শেষে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বড়াইগ্রামে বসতঘরে রহস্যজনক আগুন, বৃদ্ধার মৃত্যু

 বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিনিধি 
২৮ অক্টোবর ২০২০, ০১:৫৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বড়াইগ্রামে বসতঘরে রহস্যজনক আগুন, বৃদ্ধার মৃত্যু
ছবি: যুগান্তর

নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলায় বসতঘরে রহস্যজনক আগুনে দগ্ধ হয়ে এক বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে। নিহত বৃদ্ধার নাম রঞ্জিতা বেওয়া (৮০)।

মঙ্গলবার দিনগত রাত ৩টার দিকে উপজেলার তালশো গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত রঞ্জিতা বেওয়া তালশো গ্রামের মৃত আজিজুল ইসলাম মুন্সীর স্ত্রী।

নগর ইউনিয়নের ওয়ার্ড সদস্য আবু সাঈদ জানান, রাতের খাবার খেয়ে রঞ্চিতা বেওয়া ও তার নাতি রমজান আলী (১৩) ওই ঘরে ঘুমিয়ে পড়েন।

দিবাগত রাত ৩টার দিকে ঘরে রহস্যজনকভাবে আগুন লাগে। এ সময় বিষয়টি বুঝতে পেরে নাতি রমজান আলী দাদিকে নিয়ে ঘর থেকে বাইরে এসে চিৎকার শুরু করেন।

পরে এলাকাবাসী এগিয়ে এসে আগুন নেভানোর কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়েন। এ সময় সবার অগোচরে রঞ্চিতা বেওয়া পুনরায় তার গচ্ছিত টাকা ও ব্যবহার্যসামগ্রী আনতে ঘরের ভেতরে ঢোকেন।

পরে আগুন নেভানোর পর সবাই ঘরের ভেতর বৃদ্ধার মরদেহ পড়ে থাকতে দেখেন।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে।

জানা যায়,  প্রায় ২০-২৫ দিন আগেও প্রতিবেশী এক যুবকের বিরুদ্ধে ওই বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেয়ার অভিযোগ ওঠে। পরে তারা বিষয়টি স্থানীয়ভাবে মীমাংসা করে নেন বলে জানা গেছে।  

এ বিষয়ে বড়াইগ্রাম থানার ওসি আনোয়ারুল হক বলেন, যেহেতু ওই বাড়িতে ইতিপূর্বে একটি অগ্নিকাণ্ডের বিষয়ে বিতর্ক রয়েছে, সেহেতু আমরা নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছি।

ময়না তদন্ত রিপোর্ট শেষে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন