জনগণ চাইলে আবার ফিরে আসব: মেয়র রফিক
jugantor
জনগণ চাইলে আবার ফিরে আসব: মেয়র রফিক

  বোরহানউদ্দিন (ভোলা) প্রতিনিধি  

২৯ অক্টোবর ২০২০, ২০:২২:৫৩  |  অনলাইন সংস্করণ

ভোলার বোরহানউদ্দিন পৌরসভার মেয়র মো. রফিকুল ইসলাম

ভোলার বোরহানউদ্দিন পৌরসভার মেয়র মো. রফিকুল ইসলাম বলেছেন, জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আস্থার মর্যাদা রাখার শতভাগ চেষ্টা করেছি। তিনি এবং বোরহানউদ্দিন পৌরসভার জনগণ চাইলে তৃতীয় মেয়াদে মেয়র হিসেবে আপনাদের মাঝে ফের ফিরে আসব।

বৃহস্পতিবার তিনি ঢাকা থেকে ফিরলে পৌরসভা চত্বরে বোরহানউদ্দিন পৌরসভার নাগরিক ঐক্য আয়োজিত সংবর্ধনা সভায় মেয়রের দ্বিতীয় মেয়াদ শেষ হওয়ার প্রাক্কালে এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আমি একটি রাজনৈতিক দলের প্রতীকে দুইবার মেয়র নির্বাচিত হয়েছি। কিন্তু মেয়র হিসেবে দল-মত নির্বিশেষে এমন কেউ বলতে পারবেন না- আমি পক্ষপাতদুষ্ট আচরণ করেছি। এ পৌরসভায় যখন প্রথমবার আমি মেয়র নির্বাচিত হয়েছি, তখন এটা ছিল দ্বিতীয় শ্রেণির পৌরসভা। তার মাথার উপর ছিল ৫৫ লাখ টাকার দেনার ভার। সব শর্ত পূরণ করে পৌরসভাকে প্রথম শ্রেণিতে উন্নীত করেছি। দিন-রাত নিরলস কাজ করে সব ধরনের নাগরিকসেবা নিশ্চিত করেছি।

তিনি আরও বলেন, আগামী মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে পৌরসভা নির্বাচনের তফসিল ও ডিসেম্বর মাসের শেষদিকে নির্বাচন হওয়ার সম্ভাবনা। ওই সময় সঠিক লোক নির্বাচিত না করলে এ পৌরসভা আবার পিছিয়ে যাবে।

এ সময় তিনি পৌরসভার নাগরিকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, সব সম্ভব হয়েছে পৌরসভার নাগরিকদের অসামান্য সহযোগিতার জন্য। এছাড়া ভোলা জেলার অভিভাবক সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ এমপি ও ভোলা-২ আসনের সংসদ সদস্য আলী আজম মুকুলের ঐকান্তিক সহযোগিতা কখনও ভুলবার নয়।
ওই সময় আরও বক্তৃতা করেন- উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি জসিমউদ্দিন হায়দার, সাংগঠনিক সম্পাদক আনম আবদুল্লাহ প্রমুখ।

জনগণ চাইলে আবার ফিরে আসব: মেয়র রফিক

 বোরহানউদ্দিন (ভোলা) প্রতিনিধি 
২৯ অক্টোবর ২০২০, ০৮:২২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ভোলার বোরহানউদ্দিন পৌরসভার মেয়র মো. রফিকুল ইসলাম
ভোলার বোরহানউদ্দিন পৌরসভার মেয়র মো. রফিকুল ইসলাম

ভোলার বোরহানউদ্দিন পৌরসভার মেয়র মো. রফিকুল ইসলাম বলেছেন, জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আস্থার মর্যাদা রাখার শতভাগ চেষ্টা করেছি। তিনি এবং বোরহানউদ্দিন পৌরসভার জনগণ চাইলে তৃতীয় মেয়াদে মেয়র হিসেবে আপনাদের মাঝে ফের ফিরে আসব।

বৃহস্পতিবার তিনি ঢাকা থেকে ফিরলে পৌরসভা চত্বরে বোরহানউদ্দিন পৌরসভার নাগরিক ঐক্য আয়োজিত সংবর্ধনা সভায় মেয়রের দ্বিতীয় মেয়াদ শেষ হওয়ার প্রাক্কালে এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আমি একটি রাজনৈতিক দলের প্রতীকে দুইবার মেয়র নির্বাচিত হয়েছি। কিন্তু মেয়র হিসেবে দল-মত নির্বিশেষে এমন কেউ বলতে পারবেন না- আমি পক্ষপাতদুষ্ট আচরণ করেছি। এ পৌরসভায় যখন প্রথমবার আমি মেয়র নির্বাচিত হয়েছি, তখন এটা ছিল দ্বিতীয় শ্রেণির পৌরসভা। তার মাথার উপর ছিল ৫৫ লাখ টাকার দেনার ভার। সব শর্ত পূরণ করে পৌরসভাকে প্রথম শ্রেণিতে উন্নীত করেছি। দিন-রাত নিরলস কাজ করে সব ধরনের নাগরিকসেবা নিশ্চিত করেছি। 

তিনি আরও বলেন, আগামী মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে পৌরসভা নির্বাচনের তফসিল ও ডিসেম্বর মাসের শেষদিকে নির্বাচন হওয়ার সম্ভাবনা। ওই সময় সঠিক লোক নির্বাচিত না করলে এ পৌরসভা আবার পিছিয়ে যাবে।   

এ সময় তিনি পৌরসভার নাগরিকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, সব সম্ভব হয়েছে পৌরসভার নাগরিকদের অসামান্য সহযোগিতার জন্য। এছাড়া ভোলা জেলার অভিভাবক সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ এমপি ও ভোলা-২ আসনের সংসদ সদস্য আলী আজম মুকুলের ঐকান্তিক সহযোগিতা কখনও ভুলবার নয়।  
ওই সময় আরও বক্তৃতা করেন- উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি জসিমউদ্দিন হায়দার, সাংগঠনিক সম্পাদক আনম আবদুল্লাহ প্রমুখ। 
 

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন