বিয়ের ৮ দিন পর ‘লাপাত্তা’ নববধূ
jugantor
বিয়ের ৮ দিন পর ‘লাপাত্তা’ নববধূ

  বন্দর (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি  

৩১ অক্টোবর ২০২০, ২২:৫৫:০৬  |  অনলাইন সংস্করণ

বিয়ের ৮ দিন পর লাপাত্তা লাপাত্তা নববধূ ঝুমুর (১৯)। ৫ দিন ধরে খোঁজ নেই তার। বাবার বাড়ি বেড়াতে এসে ২৫ অক্টোবর নিখোঁজ হন তিনি।

নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার কলাগাছিয়া ইউনিয়নের দিঘলদী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিখোঁজের ৪ দিন পর শুক্রবার মা সালেহা বেগম বন্দর থানায় জিডি করেছেন।

সালেহা বেগম জানান, গত ১৬ অক্টোবর মেয়ে ঝুমুরকে পারিবারিকভাবে বিয়ে দেয়া হয়। বিয়ের এক সপ্তাহ পর ঝুমুর তার স্বামীকে নিয়ে আমাদের বাড়িতে বেড়াতে আসে।

স্থানীয়রা জানায়, গত ২৫ অক্টোবর ভোরে তার স্বামী ফজর নামাজের জন্য ঘর থেকে বের হন। বাড়ি এসে তিনি ঝুমুরকে পাননি। এলাকাবাসীর ধারণা, ঝুমুর হয়তো প্রেমের টানে প্রেমিকের হাত ধরে পালিয়ে গেছে।

এ ব্যাপারে বন্দর থানার ওসি ফখরুদ্দীন ভূইয়া জানান, নববধূ নিখোঁজের ব্যাপারে থানায় সাধারণ ডায়েরি হয়েছে। বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে দেখা হচ্ছে। তবে নববধূর নিখোঁজের ব্যাপারটি প্রেমঘটিত হতে পারে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে এবং তার খোঁজ পাওয়ার জন্য পুলিশের পক্ষ থেকে সর্বোচ্চ চেষ্টা চলছে।

বিয়ের ৮ দিন পর ‘লাপাত্তা’ নববধূ

 বন্দর (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি 
৩১ অক্টোবর ২০২০, ১০:৫৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বিয়ের ৮ দিন পর লাপাত্তা লাপাত্তা নববধূ ঝুমুর (১৯)। ৫ দিন ধরে খোঁজ নেই তার। বাবার বাড়ি বেড়াতে এসে ২৫ অক্টোবর নিখোঁজ হন তিনি।

নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার কলাগাছিয়া ইউনিয়নের দিঘলদী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিখোঁজের ৪ দিন পর শুক্রবার মা সালেহা বেগম বন্দর থানায় জিডি করেছেন।

সালেহা বেগম জানান, গত ১৬ অক্টোবর মেয়ে ঝুমুরকে পারিবারিকভাবে বিয়ে দেয়া হয়। বিয়ের এক সপ্তাহ পর  ঝুমুর তার স্বামীকে নিয়ে আমাদের বাড়িতে বেড়াতে আসে।

স্থানীয়রা জানায়, গত ২৫ অক্টোবর ভোরে তার স্বামী ফজর নামাজের জন্য ঘর থেকে বের হন। বাড়ি এসে তিনি ঝুমুরকে পাননি। এলাকাবাসীর ধারণা, ঝুমুর হয়তো প্রেমের টানে প্রেমিকের হাত ধরে পালিয়ে গেছে।

এ ব্যাপারে বন্দর থানার ওসি ফখরুদ্দীন ভূইয়া জানান, নববধূ নিখোঁজের ব্যাপারে থানায় সাধারণ ডায়েরি হয়েছে।  বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে দেখা হচ্ছে। তবে নববধূর নিখোঁজের ব্যাপারটি প্রেমঘটিত হতে পারে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে এবং তার খোঁজ পাওয়ার জন্য পুলিশের পক্ষ থেকে সর্বোচ্চ চেষ্টা চলছে।

 
আরও খবর
 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন