শিশু শিক্ষার্থী ধর্ষণে কিশোর গ্রেফতার
jugantor
শিশু শিক্ষার্থী ধর্ষণে কিশোর গ্রেফতার

  শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি  

০২ নভেম্বর ২০২০, ১৯:১৭:৪৯  |  অনলাইন সংস্করণ

গাজীপুরের শ্রীপুরে দ্বিতীয় শ্রেণির এক শিশুছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার পর এক কিশোরকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এদিকে ওই ঘটনার বিচার চাওয়ায় রোববার রাতে শিশুছাত্রীর বাড়িতে হামলা চালিয়েছে কিশোরের স্বজনরা।

অভিযুক্ত কিশোর (১৪) শ্রীপুরের পটকা গ্রামের বাসিন্দা। সে স্থানীয় একটি হাফেজিয়া মাদ্রাসার ছাত্র।

ভিকটিমের বাবা ও স্বজনরা জানান, শুক্রবার বিকালে ওই ছাত্রী স্থানীয় পটকা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে ফুটবল খেলা দেখতে যায়। ওই সময় চকোলেট খাওয়ানোর কথা বলে অভিযুক্ত কিশোর পাশের শালবনে নিয়ে ধর্ষণ করে। ওই ছাত্রী রোববার সকালে প্রস্রাব করার সময় ব্যথায় কান্নাকাটি শুরু করে।

পরে ওই ছাত্রী তার বাবা-মাকে ধর্ষণের ঘটনা জানায়। ঘটনা প্রতিবেশীদের জানিয়ে রোববার রাতে শ্রীপুর থানা পুলিশকে অবহিত করে। পুলিশ ওই রাতেই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় অভিযুক্তের স্বজনরা ক্ষিপ্ত হয়ে ওই রাতেই ছাত্রীর বাড়িতে হামলা চালিয়ে টিনের প্রাচীর ও চালে কুপিয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করে।

শ্রীপুর থানার ওসি খোন্দকার ইমাম হোসেন জানান, এ ঘটনায় সোমবার থানায় মামলা রুজু হয়েছে। অভিযুক্ত কিশোরকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কিশোর সংশোধন কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। ভিকটিম শিশুছাত্রীকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

শিশু শিক্ষার্থী ধর্ষণে কিশোর গ্রেফতার

 শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি 
০২ নভেম্বর ২০২০, ০৭:১৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

গাজীপুরের শ্রীপুরে দ্বিতীয় শ্রেণির এক শিশুছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার পর এক কিশোরকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এদিকে ওই ঘটনার বিচার চাওয়ায় রোববার রাতে শিশুছাত্রীর বাড়িতে হামলা চালিয়েছে কিশোরের স্বজনরা।

অভিযুক্ত কিশোর (১৪) শ্রীপুরের পটকা গ্রামের বাসিন্দা। সে স্থানীয় একটি হাফেজিয়া মাদ্রাসার ছাত্র।

ভিকটিমের বাবা ও স্বজনরা জানান, শুক্রবার বিকালে ওই ছাত্রী স্থানীয় পটকা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে ফুটবল খেলা দেখতে যায়। ওই সময় চকোলেট খাওয়ানোর কথা বলে অভিযুক্ত কিশোর পাশের শালবনে নিয়ে ধর্ষণ করে। ওই ছাত্রী রোববার সকালে প্রস্রাব করার সময় ব্যথায় কান্নাকাটি শুরু করে।

পরে ওই ছাত্রী তার বাবা-মাকে ধর্ষণের ঘটনা জানায়। ঘটনা প্রতিবেশীদের জানিয়ে রোববার রাতে শ্রীপুর থানা পুলিশকে অবহিত করে। পুলিশ ওই রাতেই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় অভিযুক্তের স্বজনরা ক্ষিপ্ত হয়ে ওই রাতেই ছাত্রীর বাড়িতে হামলা চালিয়ে টিনের প্রাচীর ও চালে কুপিয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করে।

শ্রীপুর থানার ওসি খোন্দকার ইমাম হোসেন জানান, এ ঘটনায় সোমবার থানায় মামলা রুজু হয়েছে। অভিযুক্ত কিশোরকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কিশোর সংশোধন কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। ভিকটিম শিশুছাত্রীকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন