নদীতে মাছ ধরতে গিয়ে বাকপ্রতিবন্ধী যুবক নিখোঁজ
jugantor
নদীতে মাছ ধরতে গিয়ে বাকপ্রতিবন্ধী যুবক নিখোঁজ

  চাটমোহর (পাবনা) প্রতিনিধি  

০৫ নভেম্বর ২০২০, ২২:০৭:৫৭  |  অনলাইন সংস্করণ

পাবনার চাটমোহরে নদীতে মাছ ধরতে গিয়ে বাকপ্রতিবন্ধী নজরুল ইসলাম (৩৫) নামে এক যুবক নিখোঁজ হয়েছেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার ছাইকোলা ইউনিয়নের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত গুমানী নদীতে এ ঘটনা ঘটে।

নজরুল ইসলাম ছাইকোলা কানাইয়ের চর গ্রামের শহীদুল ইসলামের ছেলে। তিনি বাকপ্রতিবন্ধী।

স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বর্ষার পানি নামার সময় ছাইকোলা কানাইয়ের চরসহ বিভিন্ন এলাকায় গুমানী নদীতে স্রোতের সৃষ্টি করার জন্য অবৈধভাবে সোঁতি বাঁধ দিয়ে মাছ শিকার করে থাকেন এলাকার কিছু প্রভাবশালী ব্যক্তি। বৃহস্পতিবার দুপুরে কানাইয়ের চর এলাকার ওই সোঁতি বাঁধের পাশে হাত দিয়ে মাছ মারার সময় নজরুল ইসলাম আচমকা স্রোতের তোড়ে পানিতে তলিয়ে যান। স্থানীয়রা দীর্ঘসময় খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে ফায়ার সার্ভিসে খবর দেয়।

খবর পেয়ে ওই এলাকায় যান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈকত ইসলাম, চাটমোহর থানার ওসি আমিনুল ইসলাম, পরিদর্শক (তদন্ত) হান্নান মাহমুদসহ ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা। পরে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা এলাকাবাসীর সহায়তায় নজরুল ইসলামকে খুঁজে পাননি। এদিকে ঘটনার পরপরই ওই এলাকা থেকে জাল তুলে নিয়ে পালিয়ে যান সোঁতি জাল মালিকরা। সোঁতি বাঁধের স্রোতের কারণে এ ঘটনা বলে স্থানীয়দের অভিযোগ।

চাটমোহর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈকত ইসলাম যুগান্তরকে জানান, নিখোঁজ ব্যক্তিকে উদ্ধারের জন্য রাজশাহীর ডুবুরি দলকে খবর দেয়া হয়েছে। তারা এসে উদ্ধার কাজ শুরু করবে।

নদীতে মাছ ধরতে গিয়ে বাকপ্রতিবন্ধী যুবক নিখোঁজ

 চাটমোহর (পাবনা) প্রতিনিধি 
০৫ নভেম্বর ২০২০, ১০:০৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পাবনার চাটমোহরে নদীতে মাছ ধরতে গিয়ে বাকপ্রতিবন্ধী নজরুল ইসলাম (৩৫) নামে এক যুবক নিখোঁজ হয়েছেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার ছাইকোলা ইউনিয়নের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত গুমানী নদীতে এ ঘটনা ঘটে।

নজরুল ইসলাম ছাইকোলা কানাইয়ের চর গ্রামের শহীদুল ইসলামের ছেলে। তিনি বাকপ্রতিবন্ধী। 

স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বর্ষার পানি নামার সময় ছাইকোলা কানাইয়ের চরসহ বিভিন্ন এলাকায় গুমানী নদীতে স্রোতের সৃষ্টি করার জন্য অবৈধভাবে সোঁতি বাঁধ দিয়ে মাছ শিকার করে থাকেন এলাকার কিছু প্রভাবশালী ব্যক্তি। বৃহস্পতিবার দুপুরে কানাইয়ের চর এলাকার ওই সোঁতি বাঁধের পাশে হাত দিয়ে মাছ মারার সময় নজরুল ইসলাম আচমকা স্রোতের তোড়ে পানিতে তলিয়ে যান। স্থানীয়রা দীর্ঘসময় খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে ফায়ার সার্ভিসে খবর দেয়।

খবর পেয়ে ওই এলাকায় যান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈকত ইসলাম, চাটমোহর থানার ওসি আমিনুল ইসলাম, পরিদর্শক (তদন্ত) হান্নান মাহমুদসহ ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা। পরে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা এলাকাবাসীর সহায়তায় নজরুল ইসলামকে খুঁজে পাননি। এদিকে ঘটনার পরপরই ওই এলাকা থেকে জাল তুলে নিয়ে পালিয়ে যান সোঁতি জাল মালিকরা। সোঁতি বাঁধের স্রোতের কারণে এ ঘটনা বলে স্থানীয়দের অভিযোগ।

চাটমোহর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈকত ইসলাম যুগান্তরকে জানান, নিখোঁজ ব্যক্তিকে উদ্ধারের জন্য রাজশাহীর ডুবুরি দলকে খবর দেয়া হয়েছে। তারা এসে উদ্ধার কাজ শুরু করবে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন