গ্যাসের নয়, ‘গ্যাস ট্যাবলেট’ খেয়ে বৃদ্ধার মৃত্যু
jugantor
গ্যাসের নয়, ‘গ্যাস ট্যাবলেট’ খেয়ে বৃদ্ধার মৃত্যু

  সাতক্ষীরা প্রতিনিধি  

১০ নভেম্বর ২০২০, ১৯:৫৩:৩০  |  অনলাইন সংস্করণ

পেটের গ্যাস থেকে নিরাময় পেতে গিয়ে ফার্মেসি মালিকের ভুলে শেষ পর্যন্ত মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়লেন ৭০ বছর বয়সী বৃদ্ধা রহিমা খাতুন। আনাড়ি ফার্মেসি মালিক তাকে পেটের গ্যাসের ট্যাবলেট না দিয়ে মাছের খামারে ব্যবহৃত ‘গ্যাস ট্যাবলেট’ দেন, যা খেয়ে মারা যান বৃদ্ধা রহিমা খাতুন।

সাতক্ষীরা সদর উপজেলার চৌবাড়িয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মৃত রহিমা খাতুন ওই গ্রামের বাবর আলীর স্ত্রী।

পারিবারিক সূত্রের বরাত দিয়ে সদর থানার ওসি মো. আসাদুজ্জামান জানান, রহিমা খাতুন গ্যাসের যন্ত্রণায় ভুগছিলেন। কাউকে কিছু না বলে বাড়ির পাশের রফিকুলের ফার্মেসিতে যান তিনি। সেখানে যেয়ে তিনি গ্যাসের ট্যাবলেট চান। অথচ ফার্মেসি মালিক তাকে ‘গ্যাস ট্যাবলেট’ দেন। বাড়ি এনে খাওয়ার কিছুক্ষণ পর রাতেই তার মৃত্যু ঘটে। পুলিশ রহিমা খাতুনের লাশ মঙ্গলবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

ওসি আরও জানান, বিষয়টি নিয়ে পুলিশ তদন্ত করছে। এ ব্যাপারে ফার্মেসি মালিক রফিকুল ইসলামকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

তিনি জানান, ‘গ্যাস ট্যাবলেট’ সচরাচর মাছের খামারে ব্যবহার করা হয়। বিশেষ করে মাছ ধরবার সময় এই ট্যাবলেট পানিতে দিলে মাছের অক্সিজেন সংকট দেখা যায় ফলে সহজেই মাছগুলো ধরা পড়ে। আর এই ট্যাবলেট খেয়েই রহিমা খাতুনের মৃত্যু হল।

গ্যাসের নয়, ‘গ্যাস ট্যাবলেট’ খেয়ে বৃদ্ধার মৃত্যু

 সাতক্ষীরা প্রতিনিধি 
১০ নভেম্বর ২০২০, ০৭:৫৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পেটের গ্যাস থেকে নিরাময় পেতে গিয়ে ফার্মেসি মালিকের ভুলে শেষ পর্যন্ত মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়লেন ৭০ বছর বয়সী বৃদ্ধা রহিমা খাতুন। আনাড়ি ফার্মেসি মালিক তাকে পেটের গ্যাসের ট্যাবলেট না দিয়ে মাছের খামারে ব্যবহৃত ‘গ্যাস ট্যাবলেট’ দেন, যা খেয়ে মারা যান  বৃদ্ধা রহিমা খাতুন।

সাতক্ষীরা সদর উপজেলার চৌবাড়িয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মৃত রহিমা খাতুন ওই গ্রামের বাবর আলীর স্ত্রী।

পারিবারিক সূত্রের বরাত দিয়ে সদর থানার ওসি মো. আসাদুজ্জামান জানান, রহিমা খাতুন গ্যাসের যন্ত্রণায় ভুগছিলেন। কাউকে কিছু না বলে বাড়ির পাশের রফিকুলের ফার্মেসিতে যান তিনি। সেখানে যেয়ে তিনি গ্যাসের ট্যাবলেট চান। অথচ ফার্মেসি মালিক তাকে ‘গ্যাস ট্যাবলেট’ দেন। বাড়ি এনে খাওয়ার কিছুক্ষণ পর রাতেই তার মৃত্যু ঘটে। পুলিশ রহিমা খাতুনের লাশ মঙ্গলবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

ওসি আরও জানান, বিষয়টি নিয়ে পুলিশ তদন্ত করছে। এ ব্যাপারে ফার্মেসি মালিক রফিকুল ইসলামকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

তিনি জানান, ‘গ্যাস ট্যাবলেট’ সচরাচর মাছের খামারে ব্যবহার করা হয়। বিশেষ করে মাছ ধরবার সময় এই ট্যাবলেট পানিতে দিলে মাছের অক্সিজেন সংকট দেখা যায় ফলে সহজেই মাছগুলো ধরা পড়ে। আর এই ট্যাবলেট খেয়েই রহিমা খাতুনের মৃত্যু হল।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন