ছেলের জন্য ল্যাপটপ কিনতে যেতে পারলেন না প্রধান শিক্ষক
jugantor
ছেলের জন্য ল্যাপটপ কিনতে যেতে পারলেন না প্রধান শিক্ষক

  বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি  

১১ নভেম্বর ২০২০, ২২:৩০:২৭  |  অনলাইন সংস্করণ

দিনাজপুরের বীরগঞ্জে ছেলের জন্য ল্যাপটপ কিনতে যাওয়ার সময় সড়ক দুর্ঘটনায় রবিউল ইসলাম নামে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক প্রধান শিক্ষক নিহত হয়েছেন। এ দুর্ঘটনায় তার স্ত্রী ও ছেলে আহত হয়েছেন।

বুধবার সন্ধ্যায় দিনাজপুর-ঠাকুরগাঁও মহাসড়কের বীরগঞ্জ উপজেলার হাবলুরহাট নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত রবিউল ইসলাম (৫০) বীরগঞ্জ উপজেলার চৌপুকুরিয়া আদিবাসী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও চৌপুকুরিয়া গ্রামের অধিবাসী।

স্থানীয়রা জানান, রবিউল ইসলাম তার স্ত্রী ফেন্সি বেগম ও ছেলে সংগ্রামকে নিয়ে মোটরসাইকেলযোগে বাড়ি থেকে বীরগঞ্জে আসছিলেন ছেলের ল্যাপটপ কেনার জন্য। সন্ধ্যা ৭টায় বীরগঞ্জ উপজেলার হাবলুরহাট নামক স্থানে একটি ট্রাক্টর মোটরসাইকেলটি ধাক্কা দিলে তারা তিনজন গুরুতর আহত হন। এরপর বীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তাদের নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রবিউল ইসলামকে মৃত ঘোষণা করেন।

আহত ফেন্সি বেগম (৪০) ও ছেলে সংগ্রামকে (২৩) বীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

বীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আফরোজা সুলতানা লুনা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ছেলের জন্য ল্যাপটপ কিনতে যেতে পারলেন না প্রধান শিক্ষক

 বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি 
১১ নভেম্বর ২০২০, ১০:৩০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

দিনাজপুরের বীরগঞ্জে ছেলের জন্য ল্যাপটপ কিনতে যাওয়ার সময় সড়ক দুর্ঘটনায় রবিউল ইসলাম নামে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক প্রধান শিক্ষক নিহত হয়েছেন। এ দুর্ঘটনায় তার স্ত্রী ও ছেলে আহত হয়েছেন।

বুধবার সন্ধ্যায় দিনাজপুর-ঠাকুরগাঁও মহাসড়কের বীরগঞ্জ উপজেলার হাবলুরহাট নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত রবিউল ইসলাম (৫০) বীরগঞ্জ উপজেলার চৌপুকুরিয়া আদিবাসী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও চৌপুকুরিয়া গ্রামের অধিবাসী।

স্থানীয়রা জানান, রবিউল ইসলাম তার স্ত্রী ফেন্সি বেগম ও ছেলে সংগ্রামকে নিয়ে মোটরসাইকেলযোগে বাড়ি থেকে বীরগঞ্জে আসছিলেন ছেলের ল্যাপটপ কেনার জন্য। সন্ধ্যা ৭টায় বীরগঞ্জ উপজেলার হাবলুরহাট নামক স্থানে একটি ট্রাক্টর মোটরসাইকেলটি ধাক্কা দিলে তারা তিনজন গুরুতর আহত হন। এরপর বীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তাদের নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রবিউল ইসলামকে মৃত ঘোষণা করেন।

আহত ফেন্সি বেগম (৪০) ও ছেলে সংগ্রামকে (২৩) বীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

বীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আফরোজা সুলতানা লুনা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন