বাবার মৃত্যুর শোক সইতে না পেরে ছেলের আত্মহত্যা
jugantor
বাবার মৃত্যুর শোক সইতে না পেরে ছেলের আত্মহত্যা

  নেত্রকোনা প্রতিনিধি  

১২ নভেম্বর ২০২০, ১৩:২৭:৫১  |  অনলাইন সংস্করণ

বাবার মৃত্যুর শোক সইতে না পেরে ছেলের আত্মহত্যা

বাবার মৃত্যু শোক সইতে না পেরে মাত্র কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন ছেলে। নিহত ছেলের নাম শেখ রাসেল (২২)।

বুধবার রাতে নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলার বিশকাকুনী ইউনিয়নের ধোবারুহী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শেখ রাসেলের বাবা হাফেজ মাওলানা আবদুল বারী (৬০) স্থানীয় একটি মাদ্রাসার শিক্ষক ছিলেন। বুধবার দিবাগত রাত ৮টার দিকে তিনি স্টোক করে মারা যান।

এতে শেখ রাসেল মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে ওই রাতেই বাড়ির পাশে তাদের ফিশারিজ ঘরের আড়ায় গলায় মাফলার পেঁচিয়ে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন।

এদিকে মৃত্যুর আগে শেখ রাসেল তার ফেসবুক ওয়ালে লেখেন– ‘আমার দুনিয়ায়, আমার আখেরাত আমার আব্বা! ড. মাত্র আব্বারে মৃত ঘোষণা করল! দোয়া চাই, অবশ্যই আব্বাকে একা ছাড়ব নাহ... আমিও সঙ্গী হব, ইনশাআল্লাহ। আমার দুনিয়া, আমার আব্বা আমার সব, আমার কলিজা।’

তিনি আরও লিখেন– ‘আমার অক্সিজেন ফুরিয়ে গেল, আমার দেহ থেকে কলিজা বিছিন্ন হলো! বাবা আমাদের জন্য আমৃত্যু সংগ্রাম করে গেলেন প্রতিদান দিলাম, দুশ্চিন্তা, ক্রোধ, আর নানা বাজে কাজ! আব্বা তুমি আমার সুপার হিরো! আমার বেঁচে থাকার সম্বল তুমি নাই আমি কি করে থাকব, বলো? ১০টা বেজে গেল, কই তোমার ফোন তো এলো নাহ! কই আমার খোঁজ তো কেউ নিল না।’

পূর্বধলা থানার ওসি মোহাম্মদ তাওহীদুর রহমান জানান, খবর পেয়ে ইতিমধ্যে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেছে। পুলিশের ঊধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনাসাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বাবার মৃত্যুর শোক সইতে না পেরে ছেলের আত্মহত্যা

 নেত্রকোনা প্রতিনিধি 
১২ নভেম্বর ২০২০, ০১:২৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বাবার মৃত্যুর শোক সইতে না পেরে ছেলের আত্মহত্যা
ছবি: যুগান্তর

বাবার মৃত্যু শোক সইতে না পেরে মাত্র কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন ছেলে। নিহত ছেলের নাম শেখ রাসেল (২২)।

বুধবার রাতে নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলার বিশকাকুনী ইউনিয়নের ধোবারুহী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শেখ রাসেলের বাবা হাফেজ মাওলানা আবদুল বারী (৬০) স্থানীয় একটি মাদ্রাসার শিক্ষক ছিলেন। বুধবার দিবাগত রাত ৮টার দিকে তিনি স্টোক করে মারা যান।

এতে শেখ রাসেল মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে ওই রাতেই বাড়ির পাশে তাদের ফিশারিজ ঘরের আড়ায় গলায় মাফলার পেঁচিয়ে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন।

এদিকে মৃত্যুর আগে শেখ রাসেল তার ফেসবুক ওয়ালে লেখেন– ‘আমার দুনিয়ায়, আমার আখেরাত আমার আব্বা! ড. মাত্র আব্বারে মৃত ঘোষণা করল! দোয়া চাই, অবশ্যই আব্বাকে একা ছাড়ব নাহ... আমিও সঙ্গী হব, ইনশাআল্লাহ। আমার দুনিয়া, আমার আব্বা আমার সব, আমার কলিজা।’

তিনি আরও লিখেন– ‘আমার অক্সিজেন ফুরিয়ে গেল, আমার দেহ থেকে কলিজা বিছিন্ন হলো! বাবা আমাদের জন্য আমৃত্যু সংগ্রাম করে গেলেন প্রতিদান দিলাম, দুশ্চিন্তা, ক্রোধ, আর নানা বাজে কাজ! আব্বা তুমি আমার সুপার হিরো! আমার বেঁচে থাকার সম্বল তুমি নাই আমি কি করে থাকব, বলো? ১০টা বেজে গেল, কই তোমার ফোন তো এলো নাহ! কই আমার খোঁজ তো কেউ নিল না।’

পূর্বধলা থানার ওসি মোহাম্মদ তাওহীদুর রহমান জানান, খবর পেয়ে ইতিমধ্যে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেছে। পুলিশের ঊধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনাসাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন