যুবলীগ নেতা হত্যা: তিন নেতাকে আসামি করার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন
jugantor
যুবলীগ নেতা হত্যা: তিন নেতাকে আসামি করার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

  কুমিল্লা ব্যুরো  

১৫ নভেম্বর ২০২০, ২২:৩৭:৪৪  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লায় যুবলীগ নেতা জিল্লুর রহমান চৌধুরী হত্যা মামলায় মহানগর যুবলীগ আহবায়ক আবদুল্লাহ আল মাহমুদ সহিদ, কোতোয়ালি থানা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আহম্মেদ নিয়াজ পাভেল ও মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি জহিরুল ইসলাম রিন্টুকে আসামি করার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে।

রোববার দুপুরে কুমিল্লা ক্লাবে এ সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন আদর্শ সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান তারিকুর রহমান জুয়েল।

এ সময় কুমিল্লা মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক হাবিবুর আল আমিন সাদী, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক সাদেকুর রহমান পিয়াসসহ দলীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তারিকুর রহমান জুয়েল বলেন, গত ১১ নভেম্বর স্থানীয় অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জেরে জিল্লুর রহমান চৌধুরী নামের এক ব্যক্তিকে হত্যা করা হয়। কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের পক্ষ থেকে এ হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা জানিয়ে আমরা দোষীদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি করছি। কিন্তু হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত নয় মহানগর যুবলীগ আহবায়ক আবদুল্লাহ আল মাহমুদ সহিদ, কোতোয়ালি থানা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আহম্মেদ নিয়াজ পাভেল ও মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি জহিরুল ইসলাম রিন্টুকে আসামি করা হয়েছে। যা অত্যন্ত দুঃখজনক নিন্দনীয়। আমরা অবিলম্বে এসব নেতাদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানাই।

উল্লেখ্য, গত ১১ নভেম্বর কুমিল্লা নগরীর চৌয়ারা এলাকায় সন্ত্রাসী হামলায় খুন হন যুবলীগ নেতা জিল্লুর রহমান চৌধুরী।

যুবলীগ নেতা হত্যা: তিন নেতাকে আসামি করার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

 কুমিল্লা ব্যুরো 
১৫ নভেম্বর ২০২০, ১০:৩৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লায় যুবলীগ নেতা জিল্লুর রহমান চৌধুরী হত্যা মামলায় মহানগর যুবলীগ আহবায়ক আবদুল্লাহ আল মাহমুদ সহিদ, কোতোয়ালি থানা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আহম্মেদ নিয়াজ পাভেল ও মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি জহিরুল ইসলাম রিন্টুকে আসামি করার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে।

রোববার দুপুরে কুমিল্লা ক্লাবে এ সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন আদর্শ সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান তারিকুর রহমান জুয়েল।

এ সময় কুমিল্লা মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক হাবিবুর আল আমিন সাদী, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক সাদেকুর রহমান পিয়াসসহ দলীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তারিকুর রহমান জুয়েল বলেন, গত ১১ নভেম্বর স্থানীয় অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জেরে জিল্লুর রহমান চৌধুরী নামের এক ব্যক্তিকে হত্যা করা হয়। কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের পক্ষ থেকে এ হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা জানিয়ে আমরা দোষীদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি করছি। কিন্তু হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত নয় মহানগর যুবলীগ আহবায়ক আবদুল্লাহ আল মাহমুদ সহিদ, কোতোয়ালি থানা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আহম্মেদ নিয়াজ পাভেল ও মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি জহিরুল ইসলাম রিন্টুকে আসামি করা হয়েছে। যা অত্যন্ত দুঃখজনক নিন্দনীয়। আমরা অবিলম্বে এসব নেতাদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানাই।

উল্লেখ্য, গত ১১ নভেম্বর কুমিল্লা নগরীর চৌয়ারা এলাকায় সন্ত্রাসী হামলায় খুন হন যুবলীগ নেতা জিল্লুর রহমান চৌধুরী।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন