ওসি প্রদীপের বিরুদ্ধে করা চার মামলা তদন্তের নির্দেশ
jugantor
ওসি প্রদীপের বিরুদ্ধে করা চার মামলা তদন্তের নির্দেশ

  কক্সবাজার প্রতিনিধি  

১৬ নভেম্বর ২০২০, ২১:০২:৫৪  |  অনলাইন সংস্করণ

কক্সবাজারের টেকনাফ থানার বরখাস্ত ওসি প্রদীপসহ অন্য আসামিদের বিরুদ্ধে ক্রসফায়ারে হত্যার অভিযোগে দায়ের করা ৪টি মামলা তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

সোমবার বিকালে কক্সবাজার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত ৪ এর বিচারক তামান্না ফারাহ সংক্ষিপ্ত শুনানি শেষে এ আদেশ দেন।

এতে দুটি মামলা সিআইডিকে, একটি পিবিআইকে ও অপর একটি মামলা সহকারী পুলিশ সুপার উখিয়া-টেকনাফ সার্কেলকে তদন্ত করে আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের আদেশ দেন।

গত ৩১ জুলাই টেকনাফের মেরিন ড্রাইভ রোডে শামলাপুর চেকপোস্টে সেনাবাহিনীর (অব.) মেজর সিনহা হত্যাকাণ্ডের পর ওসি প্রদীপ গ্রেফতার হওয়ার পর তার দায়িত্বকালীন কথিত ক্রসফায়ারে নিহত স্বজনদের অনেকে আদালতে মামলার আবেদন করেন।

এর মধ্যে গত ১০ সেপ্টেম্বর টেকনাফের বাহারছড়ার আবদুল আমিন ও হোয়াইক্যংয়ের মুফিদ আলম নামের দুইজনকে ক্রসফায়ারের নামে হত্যার অভিযোগে বহিষ্কৃত ওসি প্রদীপ কুমার দাসসহ ৫৬ জনের বিরুদ্ধে আদালতে দুটি মামলার আবেদন করা হয়েছিল।

এছাড়া টেকনাফের হোয়াইক্যং ইউনিয়নের শাহাবউদ্দিন, মিজানুর রহমান ও মাহমুদুর রহমান নামে আরও ৩ জনকে হত্যার অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করেছিলেন নিহতের স্বজনরা। উক্ত ৫ মামলার মধ্যে আজ আদালত ৪টি মামলার তদন্তের নির্দেশ দেন বাকি একটি মামলা পরবর্তীতে শুনানির দিন ধার্য করা হয়।

আব্দুল আমিন ও মাহমুদুর রহমান হত্যা মামলাটি সিআইডিকে ও শাহাব উদ্দিন হত্যা মামলাটি পিবিআইকে এবং মিজানুর রহমান হত্যা মামলাটি উখিয়া-টেকনাফের সহকারী পুলিশ সুপারকে তদন্তের নির্দেশ দেন।

এর আগে মামলার আবেদনগুলো আমলে নিয়ে এ সংক্রান্ত পূর্বের কোনো মামলা রয়েছে কিনা এবং ময়নাতদন্ত করা হয়েছে কিনা জানতে চেয়ে টেকনাফ থানাকে নির্দেশ দিয়েছিলেন আদালত। থানা থেকে প্রতিবেদন দেয়ায় আজ (সোমবার) উক্ত মামলাগুলো তদন্তের নির্দেশ দেয়া হল।

ওসি প্রদীপের বিরুদ্ধে করা চার মামলা তদন্তের নির্দেশ

 কক্সবাজার প্রতিনিধি 
১৬ নভেম্বর ২০২০, ০৯:০২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কক্সবাজারের টেকনাফ থানার বরখাস্ত ওসি প্রদীপসহ অন্য আসামিদের বিরুদ্ধে ক্রসফায়ারে হত্যার অভিযোগে দায়ের করা ৪টি মামলা তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। 

সোমবার বিকালে কক্সবাজার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত ৪ এর বিচারক তামান্না ফারাহ সংক্ষিপ্ত শুনানি শেষে এ আদেশ দেন। 

এতে দুটি মামলা সিআইডিকে, একটি পিবিআইকে ও অপর একটি মামলা সহকারী পুলিশ সুপার উখিয়া-টেকনাফ সার্কেলকে তদন্ত করে আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের আদেশ দেন। 

গত ৩১ জুলাই টেকনাফের মেরিন ড্রাইভ রোডে শামলাপুর চেকপোস্টে সেনাবাহিনীর (অব.) মেজর সিনহা হত্যাকাণ্ডের পর ওসি প্রদীপ গ্রেফতার হওয়ার পর তার দায়িত্বকালীন কথিত ক্রসফায়ারে নিহত স্বজনদের অনেকে আদালতে মামলার আবেদন করেন।

এর মধ্যে গত ১০ সেপ্টেম্বর টেকনাফের বাহারছড়ার আবদুল আমিন ও হোয়াইক্যংয়ের মুফিদ আলম নামের দুইজনকে ক্রসফায়ারের নামে হত্যার অভিযোগে বহিষ্কৃত ওসি প্রদীপ কুমার দাসসহ ৫৬ জনের বিরুদ্ধে আদালতে দুটি মামলার আবেদন করা হয়েছিল। 

এছাড়া টেকনাফের হোয়াইক্যং ইউনিয়নের শাহাবউদ্দিন, মিজানুর রহমান ও মাহমুদুর রহমান নামে আরও ৩ জনকে হত্যার অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করেছিলেন নিহতের স্বজনরা। উক্ত ৫ মামলার মধ্যে আজ আদালত ৪টি মামলার তদন্তের নির্দেশ দেন বাকি একটি মামলা পরবর্তীতে শুনানির দিন ধার্য করা হয়। 

আব্দুল আমিন ও মাহমুদুর রহমান হত্যা মামলাটি সিআইডিকে ও শাহাব উদ্দিন হত্যা মামলাটি পিবিআইকে এবং মিজানুর রহমান হত্যা মামলাটি উখিয়া-টেকনাফের সহকারী পুলিশ সুপারকে তদন্তের নির্দেশ দেন। 

এর আগে মামলার আবেদনগুলো আমলে নিয়ে এ সংক্রান্ত পূর্বের কোনো মামলা রয়েছে কিনা এবং ময়নাতদন্ত করা হয়েছে কিনা জানতে চেয়ে টেকনাফ থানাকে নির্দেশ দিয়েছিলেন আদালত। থানা থেকে প্রতিবেদন দেয়ায় আজ (সোমবার) উক্ত মামলাগুলো তদন্তের নির্দেশ দেয়া হল।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ওসি প্রদীপ কুমার দাস

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন