মামলা তুলে নিতে বাদীকে হুমকির অভিযোগ যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে
jugantor
মামলা তুলে নিতে বাদীকে হুমকির অভিযোগ যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে

  আমতলী ও তালতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি  

১৭ নভেম্বর ২০২০, ২২:২০:৫২  |  অনলাইন সংস্করণ

বরগুনার তালতলী উপজেলা শহরে এক নারীকে মারধরের ঘটনায় উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মো. হাবিবুর রহমান কামাল মোল্লার বিরুদ্ধে আমতলী সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে চার্জশিট দিয়েছে পুলিশ।

চার্জশিট দেয়ার পর থেকে যুবলীগ নেতা কামাল মোল্লা ও তার সহযোগীরা মামলা তুলে নিতে মামলার বাদীকে হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার মামলার বাদী রোজিনা আক্তার এ অভিযোগ করেন।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার নলবুনিয়া গ্রামের রোজিনা আক্তার পারিবারিক কাজে গত ৮ সেপ্টম্বর তালতলী উপজেলা শহরের বাঁধঘাট চৌরাস্তায় মনিকা সাতক্ষীরা দধিঘরে বসে তার পরিচিত জলিল নামের একজনের সঙ্গে কথা বলছিলেন। ওই সময় তালতলী উপজেলা যুবলীগ যুগ্ম আহবায়ক হাবিবুর রহমান কামাল মোল্লার সহযোগী শ্রী সাগর ও সাগর মিয়া নামের দুই যুবক বখাটে এসে মোবাইলে তাদের ছবি ধারণ করে।

ওই সময়ে রোজিনা তাদের ছবি তুলতে নিষেধ করলে ক্ষেপে যান মো. সাগর (১৯) ও তার আরেক সহযোগী শ্রী সাগর হাওলাদার। একপর্যায়ে তারা ওই নারীকে মারধর এবং শ্লীলতাহানি করে বলে অভিযোগ করা হয়। এর কিছুক্ষণ পরই যুবলীগ নেতা কামাল মোল্লা এসে ওই নারীকে টেনেহিঁচড়ে রাস্তায় ফেলে প্রকাশ্যে বেধড়ক মারধর করে।

পরে স্থানীয়রা ওই নারীকে উদ্ধার করে তালতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন। এ ঘটনায় রাতেই ওই নারী বাদী হয়ে তালতলী থানায় সাগরকে প্রধান আসামি করে যুবলীগ নেতা কামাল মোল্লাসহ তিনজনের নামে মামলা করেন। পুলিশ আসামি শ্রী সাগরকে গ্রেফতার করেছে।

ঘটনার ২২ দিন পরে যুবলীগ নেতা হাবিবুর রহমান কামাল মোল্লাসহ ঘটনার সঙ্গে জড়িত সাগর, শ্রী সাগর হাওলাদারের বিরুদ্ধে ২০০০ সালে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন (সংশোধিত/০৩) আইনে আমতলী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে চার্জশিট দিয়েছেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই গোলাম সরোয়ার।

এদিকে চার্জশিট দেয়ার পর থেকেই যুবলীগ নেতা কামাল মোল্লা ও তার সহযোগীরা মামলা তুলে নিতে মামলার বাদীকে জীবননাশের হুমকি দিচ্ছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। মামলা তুলে না নিলে নোয়াখালীর মতো বিবস্ত্র করে ছবি ধারণের হুমকি দিচ্ছেন যুবলীগ নেতা কামাল ও তার সহযোগীরা। মঙ্গলবার মামলার বাদী রোজিনা আক্তার এ অভিযোগ করেন।

তালতলী উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক হাবিবুর রহমান কামাল মোল্লা হুমকি দেয়ার কথা অস্বীকার করে বলেন, মামলার চার্জশিট দেয়া হয়েছে, এখন হুমকি দেয়ার প্রশ্নই আসে না। আমার বিরুদ্ধে এসব অভিযোগ ষড়যন্ত্রমূলক।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই গোলাম সরোয়ার বলেন, সত্য ঘটনা উদঘাটন করে যথাসময়েই আদালতে চার্জশিট দেয়া হয়েছে।

তালতলী থানার ওসি মো. কামরুজ্জামান বলেন, এ বিষয়টি রোজিনা মোবাইলে আমাকে জানিয়েছেন। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মামলা তুলে নিতে বাদীকে হুমকির অভিযোগ যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে

 আমতলী ও তালতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি 
১৭ নভেম্বর ২০২০, ১০:২০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বরগুনার তালতলী উপজেলা শহরে এক নারীকে মারধরের ঘটনায় উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মো. হাবিবুর রহমান কামাল মোল্লার বিরুদ্ধে আমতলী সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে চার্জশিট দিয়েছে পুলিশ। 

চার্জশিট দেয়ার পর থেকে যুবলীগ নেতা কামাল মোল্লা ও তার সহযোগীরা মামলা তুলে নিতে মামলার বাদীকে হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার মামলার বাদী রোজিনা আক্তার এ অভিযোগ করেন। 

মামলা সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার নলবুনিয়া গ্রামের রোজিনা আক্তার পারিবারিক কাজে গত ৮ সেপ্টম্বর তালতলী উপজেলা শহরের বাঁধঘাট চৌরাস্তায় মনিকা সাতক্ষীরা দধিঘরে বসে তার পরিচিত জলিল নামের একজনের সঙ্গে কথা বলছিলেন। ওই সময় তালতলী উপজেলা যুবলীগ যুগ্ম আহবায়ক হাবিবুর রহমান কামাল মোল্লার সহযোগী শ্রী সাগর ও সাগর মিয়া নামের দুই যুবক বখাটে এসে মোবাইলে তাদের ছবি ধারণ করে। 

ওই সময়ে রোজিনা তাদের ছবি তুলতে নিষেধ করলে ক্ষেপে যান মো. সাগর (১৯) ও তার আরেক সহযোগী শ্রী সাগর হাওলাদার। একপর্যায়ে তারা ওই নারীকে মারধর এবং শ্লীলতাহানি করে বলে অভিযোগ করা হয়। এর কিছুক্ষণ পরই যুবলীগ নেতা কামাল মোল্লা এসে ওই নারীকে টেনেহিঁচড়ে রাস্তায় ফেলে প্রকাশ্যে বেধড়ক মারধর করে।

পরে স্থানীয়রা ওই নারীকে উদ্ধার করে তালতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন। এ ঘটনায় রাতেই ওই নারী বাদী হয়ে তালতলী থানায় সাগরকে প্রধান আসামি করে যুবলীগ নেতা কামাল মোল্লাসহ তিনজনের নামে মামলা করেন। পুলিশ আসামি শ্রী সাগরকে গ্রেফতার করেছে।

ঘটনার ২২ দিন পরে যুবলীগ নেতা হাবিবুর রহমান কামাল মোল্লাসহ ঘটনার সঙ্গে জড়িত সাগর, শ্রী সাগর হাওলাদারের বিরুদ্ধে ২০০০ সালে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন (সংশোধিত/০৩) আইনে আমতলী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে চার্জশিট দিয়েছেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই গোলাম সরোয়ার। 

এদিকে চার্জশিট দেয়ার পর থেকেই যুবলীগ নেতা কামাল মোল্লা ও তার সহযোগীরা মামলা তুলে নিতে মামলার বাদীকে জীবননাশের হুমকি দিচ্ছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। মামলা তুলে না নিলে নোয়াখালীর মতো বিবস্ত্র করে ছবি ধারণের হুমকি দিচ্ছেন যুবলীগ নেতা কামাল ও তার সহযোগীরা। মঙ্গলবার মামলার বাদী রোজিনা আক্তার এ অভিযোগ করেন। 

তালতলী উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক হাবিবুর রহমান কামাল মোল্লা হুমকি দেয়ার কথা অস্বীকার করে বলেন, মামলার চার্জশিট দেয়া হয়েছে, এখন হুমকি দেয়ার প্রশ্নই আসে না। আমার বিরুদ্ধে এসব অভিযোগ ষড়যন্ত্রমূলক।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই গোলাম সরোয়ার বলেন, সত্য ঘটনা উদঘাটন করে যথাসময়েই আদালতে চার্জশিট দেয়া হয়েছে।  

তালতলী থানার ওসি মো. কামরুজ্জামান বলেন, এ বিষয়টি রোজিনা মোবাইলে আমাকে জানিয়েছেন। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন