বাড়িতে একা পেয়ে শিশুকে ধর্ষণ, যুবক গ্রেফতার
jugantor
বাড়িতে একা পেয়ে শিশুকে ধর্ষণ, যুবক গ্রেফতার

  রায়পুর (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি  

১৯ নভেম্বর ২০২০, ১৩:৪৪:৩০  |  অনলাইন সংস্করণ

শিশু ধর্ষণ

লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলায় বাড়িতে একা পেয়ে এক শিশুকে (১০) ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে বাবুল মিয়া (৪০) নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে।

এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার ভুক্তভোগী শিশুটির বাবা বাদী অভিযুক্ত বাবুল মিয়াকে আসামি করে রায়পুর থানায় ধর্ষণ মামলা করেছেন।

অভিযুক্ত বাবুল মিয়া পৌরসভার পূর্বলাচ গ্রামের মৃত মমিন মিয়ার ছেলে। তিনি পেশায় সুইপার। তবে ঘটনার পর থেকে বাবুল মিয়া পলাতক রয়েছেন।

মামলার এজাহারে জানা যায়, ১৬ নভেম্বর দুপুরে পৌরসভার পোস্ট অফিসসংলগ্ন ওয়াপদা কলোনিতে শিশুটিকে বসতঘরে রেখে তার বাবা ও মা লক্ষ্মীপুর শহরে যান।

এ সুযোগে শিশুটিকে একা পেয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে বাবুল মিয়া। এ সময় শিশুটির চিৎকারে প্রতিবেশী নারী এগিয়ে গেলে বাবুল পালিয়ে যায়।

পরে বাবা-মা এসে শিশুটিকে উদ্ধার করে রায়পুর সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করেন। শিশুর বাবা অসুস্থ থাকার কারণে মামলা করতে সময়ক্ষেপণ হয় বলে জানায় ভুক্তভোগী শিশুর পরিবার।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত বাবুল মিয়া বলেন, শয়তানের ধোঁকায় পড়ে এ জঘন্য কাজ করায় সে অনুতপ্ত।

রায়পুর থানার ওসি আবদুল জলিল বলেন, সুইপার বাবুল মিয়াকে আসামি করে ধর্ষণের মামলা করেছেন শিশুর বাবা। শিশুর মেডিকেল পরীক্ষার জন্য তাকে সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আসামি বাবুল মিয়াকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

বাড়িতে একা পেয়ে শিশুকে ধর্ষণ, যুবক গ্রেফতার

 রায়পুর (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি 
১৯ নভেম্বর ২০২০, ০১:৪৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
শিশু ধর্ষণ
ফাইল ছবি

লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলায় বাড়িতে একা পেয়ে এক শিশুকে (১০) ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে বাবুল মিয়া (৪০) নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে।

এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার ভুক্তভোগী শিশুটির বাবা বাদী অভিযুক্ত বাবুল মিয়াকে আসামি করে রায়পুর থানায় ধর্ষণ মামলা করেছেন।

অভিযুক্ত বাবুল মিয়া পৌরসভার পূর্বলাচ গ্রামের মৃত মমিন মিয়ার ছেলে।  তিনি পেশায় সুইপার। তবে ঘটনার পর থেকে বাবুল মিয়া পলাতক রয়েছেন।  

মামলার এজাহারে জানা যায়, ১৬ নভেম্বর দুপুরে পৌরসভার পোস্ট অফিসসংলগ্ন ওয়াপদা কলোনিতে শিশুটিকে বসতঘরে রেখে তার বাবা ও মা লক্ষ্মীপুর শহরে যান।

এ সুযোগে শিশুটিকে একা পেয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে বাবুল মিয়া। এ সময় শিশুটির চিৎকারে প্রতিবেশী নারী এগিয়ে গেলে বাবুল পালিয়ে যায়।

পরে বাবা-মা এসে শিশুটিকে উদ্ধার করে রায়পুর সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করেন। শিশুর বাবা অসুস্থ থাকার কারণে মামলা করতে সময়ক্ষেপণ হয় বলে জানায় ভুক্তভোগী শিশুর পরিবার।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত বাবুল মিয়া বলেন, শয়তানের ধোঁকায় পড়ে এ জঘন্য কাজ করায় সে অনুতপ্ত।

রায়পুর থানার ওসি আবদুল জলিল বলেন, সুইপার বাবুল মিয়াকে আসামি করে ধর্ষণের মামলা করেছেন শিশুর বাবা। শিশুর মেডিকেল পরীক্ষার জন্য তাকে সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আসামি বাবুল মিয়াকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন