বিষ দিয়ে মারা হলো ১৮ লাখ টাকার মাছ
jugantor
বিষ দিয়ে মারা হলো ১৮ লাখ টাকার মাছ

  মদন (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি  

১৯ নভেম্বর ২০২০, ২২:০৪:৫৪  |  অনলাইন সংস্করণ

নেত্রকোনার মদন উপজেলার তিয়শ্রী ইউনিয়নের কুঠুরীকোনা মৌজার বড়রুকশি বিলে বুধবার বিকালে বিষ দিয়ে কয়েক টন মাছ মেরে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা। এতে প্রায় ১৮ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি ক্ষতিগ্রস্ত বিলের ইজারাদারদের।

এ ব্যাপারে বৃহস্পতিবার বিলের ইজারাদারের পক্ষে তাজ্জত মিয়া সাতজনকে আসামি করে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

বিলের ইজারাদার তাজ্জত মিয়া বলেন, বড়রুকশি বিলের জমি ১২ জন মালিকের কাছ থেকে এক বছরের জন্য ১৮ লাখ টাকায় আমরা নয়জন ইজারা নিয়েছি। বিলের বাঁধ দেয়ার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছি। বুধবার বিকালে পাহাড়পুর গ্রামের সেকুল ও রিপন নৌকা নিয়ে বাঁধের ভেতরে ঘোরাফেরা করে। এতে লোকজনের সন্দেহ হলে তাদের ধাওয়ায় ওরা পালিয়ে যায়।

তিনি বলেন, বিলে সন্ধ্যা থেকে মাছ মরে ভেসে উঠতে থাকে। এতে আমরা নিশ্চিত হয়েছি যে তাদের মাধ্যমেই পানিতে বিষ ট্যাবলেট ফেলা হয়েছে। এ ব্যাপারে মদন থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছি।

এ বিষয়ে সেকুল মিয়া জানান, বড়রুকশি বিলে বৃহৎ অংশের ইজারা আমরা নিয়েছি। এখানে আমরা বিষ ঢেলে দিলে আমাদেরই তো বেশি ক্ষতি হবে। প্রতিহিংসায় আমাদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে। নিরপেক্ষ তদন্ত করলেই মূল বিষয় বের হয়ে আসবে।

ওসি মাসুদুজ্জামান জানান, এ ব্যাপারে থানায় একটি অভিযোগ পাওয়া গেছে। সত্য-মিথ্যা যাচাই করার জন্য ঘটনাস্থলে পুলিশ প্রেরণ করা হয়েছে।

বিষ দিয়ে মারা হলো ১৮ লাখ টাকার মাছ

 মদন (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি 
১৯ নভেম্বর ২০২০, ১০:০৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নেত্রকোনার মদন উপজেলার তিয়শ্রী ইউনিয়নের কুঠুরীকোনা মৌজার বড়রুকশি বিলে বুধবার বিকালে বিষ দিয়ে কয়েক টন মাছ মেরে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা। এতে প্রায় ১৮ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি ক্ষতিগ্রস্ত বিলের ইজারাদারদের।

এ ব্যাপারে বৃহস্পতিবার বিলের ইজারাদারের পক্ষে তাজ্জত মিয়া সাতজনকে আসামি করে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

বিলের ইজারাদার তাজ্জত মিয়া বলেন, বড়রুকশি বিলের জমি ১২ জন মালিকের কাছ থেকে এক বছরের জন্য ১৮ লাখ টাকায় আমরা নয়জন ইজারা নিয়েছি। বিলের বাঁধ দেয়ার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছি। বুধবার বিকালে পাহাড়পুর গ্রামের সেকুল ও রিপন নৌকা নিয়ে বাঁধের ভেতরে ঘোরাফেরা করে। এতে লোকজনের সন্দেহ হলে তাদের ধাওয়ায় ওরা পালিয়ে যায়।

তিনি বলেন, বিলে সন্ধ্যা থেকে মাছ মরে ভেসে উঠতে থাকে। এতে আমরা নিশ্চিত হয়েছি যে তাদের মাধ্যমেই পানিতে বিষ ট্যাবলেট ফেলা হয়েছে। এ ব্যাপারে মদন থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছি।

এ বিষয়ে সেকুল মিয়া জানান, বড়রুকশি বিলে বৃহৎ অংশের ইজারা আমরা নিয়েছি। এখানে আমরা বিষ ঢেলে দিলে আমাদেরই তো বেশি ক্ষতি হবে। প্রতিহিংসায় আমাদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে। নিরপেক্ষ তদন্ত করলেই মূল বিষয় বের হয়ে আসবে।

ওসি মাসুদুজ্জামান জানান, এ ব্যাপারে থানায় একটি অভিযোগ পাওয়া গেছে। সত্য-মিথ্যা যাচাই করার জন্য ঘটনাস্থলে পুলিশ প্রেরণ করা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন