নারায়ণগঞ্জে ময়দার ফ্যাক্টরিতে ২ শ্রমিকের মৃত্যু
jugantor
নারায়ণগঞ্জে ময়দার ফ্যাক্টরিতে ২ শ্রমিকের মৃত্যু

  নারায়ণগঞ্জ ও বন্দর প্রতিনিধি  

১৯ নভেম্বর ২০২০, ২২:৪১:৫০  |  অনলাইন সংস্করণ

নারায়ণগঞ্জের বন্দরে আটা-ময়দার কারখানার সাইলো পরিষ্কার করতে গিয়ে ভিমে (সাইলোর ভেতরে) পড়ে দুজন শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় অপর একজন গুরুতর আহত হন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ফ্যাক্টরির ভেতরে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে বন্দর ফায়ার সার্ভিস সাইলোতে পড়ে যাওয়া তিনজনকে উদ্ধার করলে দুজন ঘটনাস্থলেই নিহত হন।

নিহতরা হলেন- একরামপুর ইস্পাহানি এলাকার কুদ্দুস মিয়ার ছেলে রাজু আহমেদ (২৭), ফতুল্লার সস্তাপুর এলাকার অন্তর মিয়া (২৫)।

বন্দর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার আবদুল্লাহ জানান, বৃহস্পতিবার দুপুর ১টার দিকে সাইলো পরিষ্কার করতে গিয়ে ৩০ মিটার উচ্চতাবিশিষ্ট আটা তৈরির ভিমের (সাইলো) ভেতরে পড়ে যান ৩ জন। খবর পেয়ে বন্দর ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে গিয়ে ৩ জনকে উদ্ধার করে।

এর মধ্যে রাজু ও অন্তর ঘটনাস্থলেই মারা যান। গুরুতর আহত অবস্থায় আরও একজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

কারখানার প্রোডাকশন ম্যানেজার গালিবুর রহমান জানান, এটি একটি দুর্ঘটনা। তবে অত্যন্ত দুঃখজনক; যা আমারও মানতে কষ্ট হচ্ছে। তারপরও ভাগ্যের নির্মম পরিহাস মেনে নিতে হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, সাইলো পরিষ্কারের জন্য প্রথমে একজন নামতে গিয়ে ভিমের ভেতরে পড়ে যান। অপরজন তাকে বাঁচাতে গেলে তিনিও পড়ে যান। তাদের সহযোগিতা করতে গেলে আরও একজন গুরুতর আহত হন। পরে ফায়ার সার্ভিস এসে তাদের মৃত অবস্থায় উদ্ধার করে।

বন্দর থানার অফিসার ইনচার্জ ফখরুদ্দিন ভূঁইয়া জানান, পরিবারের পক্ষ থেকে কেউ থানায় এলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নারায়ণগঞ্জে ময়দার ফ্যাক্টরিতে ২ শ্রমিকের মৃত্যু

 নারায়ণগঞ্জ ও বন্দর প্রতিনিধি 
১৯ নভেম্বর ২০২০, ১০:৪১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নারায়ণগঞ্জের বন্দরে আটা-ময়দার কারখানার সাইলো পরিষ্কার করতে গিয়ে ভিমে (সাইলোর ভেতরে) পড়ে দুজন শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় অপর একজন গুরুতর আহত হন। 

বৃহস্পতিবার দুপুরে ফ্যাক্টরির ভেতরে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে বন্দর ফায়ার সার্ভিস সাইলোতে পড়ে যাওয়া তিনজনকে উদ্ধার করলে দুজন ঘটনাস্থলেই নিহত হন। 

নিহতরা হলেন- একরামপুর ইস্পাহানি এলাকার কুদ্দুস মিয়ার ছেলে রাজু আহমেদ (২৭), ফতুল্লার সস্তাপুর এলাকার অন্তর মিয়া (২৫)। 

বন্দর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার আবদুল্লাহ জানান, বৃহস্পতিবার দুপুর ১টার দিকে সাইলো পরিষ্কার করতে গিয়ে ৩০ মিটার উচ্চতাবিশিষ্ট আটা তৈরির ভিমের (সাইলো) ভেতরে পড়ে যান ৩ জন। খবর পেয়ে বন্দর ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে গিয়ে ৩ জনকে উদ্ধার করে। 

এর মধ্যে রাজু ও অন্তর ঘটনাস্থলেই মারা যান। গুরুতর আহত অবস্থায় আরও একজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

কারখানার প্রোডাকশন ম্যানেজার গালিবুর রহমান জানান, এটি একটি দুর্ঘটনা। তবে অত্যন্ত দুঃখজনক; যা আমারও মানতে কষ্ট হচ্ছে। তারপরও ভাগ্যের নির্মম পরিহাস মেনে নিতে হচ্ছে। 

তিনি আরও বলেন, সাইলো পরিষ্কারের জন্য প্রথমে একজন নামতে গিয়ে ভিমের ভেতরে পড়ে যান। অপরজন তাকে বাঁচাতে গেলে তিনিও পড়ে যান। তাদের সহযোগিতা করতে গেলে আরও একজন গুরুতর আহত হন। পরে ফায়ার সার্ভিস এসে তাদের মৃত অবস্থায় উদ্ধার করে। 

বন্দর থানার অফিসার ইনচার্জ ফখরুদ্দিন ভূঁইয়া জানান, পরিবারের পক্ষ থেকে কেউ থানায় এলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন