নবজাতককে খালপাড়ে ফেলে যান বাবা-মা!
jugantor
নবজাতককে খালপাড়ে ফেলে যান বাবা-মা!

  বন্দর (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি  

২০ নভেম্বর ২০২০, ২০:৩১:৩৬  |  অনলাইন সংস্করণ

বন্দরের ফরাজীকান্দা খালেরপাড় থেকে এক নবজাতককে উদ্ধার করা হয়েছে। অভাবের কারণে নবজাতককে খালেরপাড়ে ফেলে রেখে যান বলে বাবা-মা জানান।

শুক্রবার দুপুরে ওই নবজাতককে উদ্ধারের পর সন্ধ্যায় ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়। নবজাতক উদ্ধারের ঘটনায় এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে।

উদ্ধারের পর পুলিশ নবজাতকের বাবা-মাকে খুঁজে বের করে। পরে তাদের কাছে নবজাতককে হস্তান্তর করে। নবজাতকের বাবার নাম লাল মিয়া ও মায়ের নাম রিক্তা বেগম। তাদের বাড়ি বন্দরের ফরাজীকান্দা এলাকায়।

লাল মিয়া ও রিক্তা বেগম জানান, অভাবের কারণে নবজাতককে খালেরপাড়ে ফেলে রেখে যান তারা।

নবজাতক উদ্ধারকারী বন্দরের ফরাজীকান্দা এলাকার সজিব জানান, তিনি শুক্রবার দুপুরে বাজার থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। এ সময় ফরাজীকান্দা খালেরপাড় থেকে শিশুর কান্নার আওয়াজ শুনতে পান। সামনে গিয়ে কাপড়ে মোড়ানো অবস্থায় নবজাতককে দেখতে পান। এরপর উদ্ধার করে বন্দর থানায় নিয়ে আসেন।

এ ব্যাপারে বন্দর থানার ওসি ফখরুদ্দীন ভুঁইয়া জানান, নবজাতককে উদ্ধারের পর স্থানীয় একটি ক্লিনিকে চিকিৎসা দেয়া হয়। পরে ফরাজীকান্দায় অভিযান চালিয়ে তার বাবা-মাকে খুঁজে বের করে পুলিশ। এরপর নবজাতককে বাবা-মার কাছে দেয়া হয়। এর মধ্যে নবজাতকটি খুব অসুস্থ হয়ে পড়লে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। শুক্রবার সন্ধ্যায় মারা যায় নবজাতকটি।

এ ব্যাপারে নবজাতকের বাবা লাল মিয়া জানান, তিনি একটি আটার মিলে স্বল্প বেতনে কাজ করেন। তার স্ত্রী গার্মেন্ট শ্রমিক। অভাবের সংসারে বাচ্চার ভরণপোষণ সম্ভব নয় ভেবে তারা নবজাতককে খালপাড়ে ফেলে রেখে যান।

নবজাতককে খালপাড়ে ফেলে যান বাবা-মা!

 বন্দর (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি 
২০ নভেম্বর ২০২০, ০৮:৩১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বন্দরের ফরাজীকান্দা খালেরপাড় থেকে এক নবজাতককে উদ্ধার করা হয়েছে। অভাবের কারণে নবজাতককে খালেরপাড়ে ফেলে রেখে যান বলে বাবা-মা জানান।

শুক্রবার দুপুরে ওই নবজাতককে উদ্ধারের পর সন্ধ্যায় ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়। নবজাতক উদ্ধারের ঘটনায় এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে।

উদ্ধারের পর পুলিশ নবজাতকের বাবা-মাকে খুঁজে বের করে। পরে তাদের কাছে নবজাতককে হস্তান্তর করে। নবজাতকের বাবার নাম লাল মিয়া ও মায়ের নাম রিক্তা বেগম। তাদের বাড়ি বন্দরের ফরাজীকান্দা এলাকায়।

লাল মিয়া ও রিক্তা বেগম জানান, অভাবের কারণে নবজাতককে খালেরপাড়ে ফেলে রেখে যান তারা।

নবজাতক উদ্ধারকারী বন্দরের ফরাজীকান্দা এলাকার সজিব জানান, তিনি শুক্রবার দুপুরে বাজার থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। এ সময় ফরাজীকান্দা খালেরপাড় থেকে শিশুর কান্নার আওয়াজ শুনতে পান। সামনে গিয়ে কাপড়ে মোড়ানো অবস্থায় নবজাতককে দেখতে পান। এরপর উদ্ধার করে বন্দর থানায় নিয়ে আসেন।

এ ব্যাপারে বন্দর থানার ওসি ফখরুদ্দীন ভুঁইয়া জানান, নবজাতককে উদ্ধারের পর স্থানীয় একটি ক্লিনিকে চিকিৎসা দেয়া হয়। পরে ফরাজীকান্দায় অভিযান চালিয়ে তার বাবা-মাকে খুঁজে বের করে পুলিশ। এরপর নবজাতককে বাবা-মার কাছে দেয়া হয়। এর মধ্যে নবজাতকটি খুব অসুস্থ হয়ে পড়লে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। শুক্রবার সন্ধ্যায় মারা যায় নবজাতকটি।

এ ব্যাপারে নবজাতকের বাবা লাল মিয়া জানান, তিনি একটি আটার মিলে স্বল্প বেতনে কাজ করেন। তার স্ত্রী গার্মেন্ট শ্রমিক। অভাবের সংসারে বাচ্চার ভরণপোষণ সম্ভব নয় ভেবে তারা নবজাতককে খালপাড়ে ফেলে রেখে যান।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন