প্রেমিকের হাত ধরে নিখোঁজ, ৩ মাস পর কলেজছাত্রীর কঙ্কাল উদ্ধার  
jugantor
প্রেমিকের হাত ধরে নিখোঁজ, ৩ মাস পর কলেজছাত্রীর কঙ্কাল উদ্ধার  

  দামুড়হুদা (চুয়াডাঙ্গা) প্রতিনিধি  

২১ নভেম্বর ২০২০, ২২:৪৩:১৮  |  অনলাইন সংস্করণ

তিন মাস আগে প্রেমিকের হাত ধরে নিখোঁজ হয় মিম খাতুন (১৯) নামে এক কলেজছাত্রী। শনিবার বিকাল ৫টার দিকে চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার উজিরপুর গ্রামে মাদ্রাসার পেছনে মাথাভাঙ্গা নদীর কিনারা থেকে তার কঙ্কাল উদ্ধার করে পুলিশ।

তার পরিহিত জামা-কাপড় ও একটি ভ্যানিটি ব্যাগ দেখে শনাক্ত করেন স্বজনরা। নিহত মিম কুষ্টিয়া জেলার দৌলতপুর উপজেলার পিপুলবাড়িয়া গ্রামের মধু খানের মেয়ে। সে এইচএসসি ২য় বর্ষের ছাত্রী ছিল।

দামুড়হুদা মডেল থানার ওসি আবদুল খালেক জানান, শনিবার বিকালে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি নারীর কঙ্কাল উদ্ধার করে। এ সময় উদ্ধার করা হয় কঙ্কালের শরীরের পরিহিত জামা-কাপড় ও একটি ভ্যানিটি ব্যাগ।

তিনি জানান, কুষ্টিয়া জেলার দৌলতপুর উপজেলার পিপুলবাড়িয়া গ্রামের মধু খানের কন্যা গত তিন মাস আগে এলাকার এক ছেলের সঙ্গে বাড়ি থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হয়।

লাশের আলামত দেখে ও মিমের স্বজনদের সঙ্গে কথা বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে উদ্ধারকৃত কঙ্কাল মিমের হতে পারে। কঙ্কালটির ময়নাতদন্তের জন্য চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

প্রেমিকের হাত ধরে নিখোঁজ, ৩ মাস পর কলেজছাত্রীর কঙ্কাল উদ্ধার  

 দামুড়হুদা (চুয়াডাঙ্গা) প্রতিনিধি 
২১ নভেম্বর ২০২০, ১০:৪৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

তিন মাস আগে প্রেমিকের হাত ধরে নিখোঁজ হয় মিম খাতুন (১৯) নামে এক কলেজছাত্রী। শনিবার বিকাল ৫টার দিকে চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার উজিরপুর গ্রামে মাদ্রাসার পেছনে মাথাভাঙ্গা নদীর কিনারা থেকে তার কঙ্কাল উদ্ধার করে পুলিশ। 

তার পরিহিত জামা-কাপড় ও একটি ভ্যানিটি ব্যাগ দেখে শনাক্ত করেন স্বজনরা। নিহত মিম কুষ্টিয়া জেলার দৌলতপুর উপজেলার পিপুলবাড়িয়া গ্রামের মধু খানের মেয়ে। সে এইচএসসি ২য় বর্ষের ছাত্রী ছিল।

দামুড়হুদা মডেল থানার ওসি আবদুল খালেক জানান, শনিবার বিকালে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি নারীর কঙ্কাল উদ্ধার করে। এ সময় উদ্ধার করা হয় কঙ্কালের শরীরের পরিহিত জামা-কাপড় ও একটি ভ্যানিটি ব্যাগ। 

তিনি জানান, কুষ্টিয়া জেলার দৌলতপুর উপজেলার পিপুলবাড়িয়া  গ্রামের মধু খানের কন্যা গত তিন মাস আগে এলাকার এক ছেলের সঙ্গে বাড়ি থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হয়।

লাশের আলামত দেখে ও মিমের স্বজনদের সঙ্গে কথা বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে উদ্ধারকৃত কঙ্কাল মিমের হতে পারে। কঙ্কালটির ময়নাতদন্তের জন্য চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। 

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন