সিলেটে তালাবদ্ধ ঘরে মিলল নববধূর লাশ
jugantor
সিলেটে তালাবদ্ধ ঘরে মিলল নববধূর লাশ

  সিলেট ব্যুরো  

২৩ নভেম্বর ২০২০, ২০:০৬:১৯  |  অনলাইন সংস্করণ

সিলেট নগরীতে তালাবদ্ধ ঘর থেকে সৈয়দা তামান্না বেগম (১৯) নামে এক নববধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার দুপুর দেড়টার দিকে নগরীর উত্তর কাজলশাহ এলাকা থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

নিহত তামান্না বেগমের স্বামী আল মামুন (২৮) পলাতক রয়েছেন। গত ৩০ সেপ্টেম্বর পারিবারিকভাবে তাদের বিয়ে হয় বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, রাতে তামান্নাকে শ্বাসরোধে হত্যার পর পালিয়েছেন স্বামী আল মামুন।

জানা যায়, সিলেট নগরীর উত্তর কাজলশাহ এলাকার ৪/১নং বাসা থেকে কোতোয়ালি মডেল থানার একদল পুলিশ সৈয়দা তামান্না বেগম নামের এক নববধূর লাশ উদ্ধার করে।

এর আগে তামান্না বেগমের ঘরের দরজা তালাবদ্ধ দেখে বাড়িওয়ালা ও প্রতিবেশীদের সন্দেহ হয়। তারা পুলিশকে খবর দেন। দুপুর দেড়টার দিকে পুলিশ এসে দরজা ভেঙে তামান্না বেগমের লাশ উদ্ধার করে। তবে তার স্বামী আল মামুন পলাতক রয়েছেন।

তামান্না বেগমের গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

সৈয়দা তামান্না বেগমের বাবার বাড়ি বরিশাল জেলার বাবুগঞ্জ থানায়। স্বামী আল মামুনের বাড়ি সিলেটের দক্ষিণ সুরমা উপজেলার বলদি এলাকায়। দুই মাস আগে স্বামী-স্ত্রী নগরীর উত্তর কাজলশাহ এলাকার ৪/১নং বাসায় ভাড়াটে হিসেবে উঠেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সিলেট মহানগর পুলিশের কোতোয়ালি থানার ওসি সেলিম মিঞা যুগান্তরকে বলেন, তামান্নার গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান সেলিম মিঞা।

সিলেটে তালাবদ্ধ ঘরে মিলল নববধূর লাশ

 সিলেট ব্যুরো 
২৩ নভেম্বর ২০২০, ০৮:০৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সিলেট নগরীতে তালাবদ্ধ ঘর থেকে সৈয়দা তামান্না বেগম (১৯) নামে এক নববধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার দুপুর দেড়টার দিকে নগরীর উত্তর কাজলশাহ এলাকা থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

নিহত তামান্না বেগমের স্বামী আল মামুন (২৮) পলাতক রয়েছেন। গত ৩০ সেপ্টেম্বর পারিবারিকভাবে তাদের বিয়ে হয় বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, রাতে তামান্নাকে শ্বাসরোধে হত্যার পর পালিয়েছেন স্বামী আল মামুন।

জানা যায়, সিলেট নগরীর উত্তর কাজলশাহ এলাকার ৪/১নং বাসা থেকে কোতোয়ালি মডেল থানার একদল পুলিশ সৈয়দা তামান্না বেগম নামের এক নববধূর লাশ উদ্ধার করে।

এর আগে তামান্না বেগমের ঘরের দরজা তালাবদ্ধ দেখে বাড়িওয়ালা ও প্রতিবেশীদের সন্দেহ হয়। তারা পুলিশকে খবর দেন। দুপুর দেড়টার দিকে পুলিশ এসে দরজা ভেঙে তামান্না বেগমের লাশ উদ্ধার করে। তবে তার স্বামী আল মামুন পলাতক রয়েছেন।

তামান্না বেগমের গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

সৈয়দা তামান্না বেগমের বাবার বাড়ি বরিশাল জেলার বাবুগঞ্জ থানায়। স্বামী আল মামুনের বাড়ি সিলেটের দক্ষিণ সুরমা উপজেলার বলদি এলাকায়। দুই মাস আগে স্বামী-স্ত্রী নগরীর উত্তর কাজলশাহ এলাকার ৪/১নং বাসায় ভাড়াটে হিসেবে উঠেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সিলেট মহানগর পুলিশের কোতোয়ালি থানার ওসি সেলিম মিঞা যুগান্তরকে বলেন, তামান্নার গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান সেলিম মিঞা।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন