ক্রিকেট বল দেয়ার লোভ দেখিয়ে ৫ বছরের শিশুকে ধর্ষণ
jugantor
ক্রিকেট বল দেয়ার লোভ দেখিয়ে ৫ বছরের শিশুকে ধর্ষণ

  কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি  

২৩ নভেম্বর ২০২০, ২২:৫৯:৪১  |  অনলাইন সংস্করণ

কালীগঞ্জে সাড়ে পাঁচ বছরের এক শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় কালীগঞ্জ থানায় একটি মামলা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার মালিয়াট ইউনিয়নে।

কালীগঞ্জ থানায় দায়ের করা মামলা সূত্রে জানা গেছে, সাড়ে পাঁচ বছরের ওই শিশু ১৪ নভেম্বর বাড়ির বাইরে খেলতে যায়। প্রতিবেশী আবদুল লতিফের লম্পট ছেলে শাহিন হোসেন (১৯) শিশুটিকে ক্রিকেট খেলার বল দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করে।

১৭ নভেম্বর শিশুটি অসুস্থ হয়ে পড়লে সে তার পিতামাতার কাছে সব কিছু জানালে ১৯ নভেম্বর শিশুটিকে চিকিৎসার জন্য কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়। পরীক্ষা শেষে শিশুটি ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে ডাক্তাররা জানান।

এ ব্যাপারে কালীগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মতলেবুর রহমান জানান, এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। ধর্ষক শাহিন পলাতক রয়েছে। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

এদিকে মামলার বাদী শিশুটির মা অভিযোগ করেন, ধর্ষক শাহিনের পরিবার প্রভাবশালী হওয়ায় সামাজিকভাবে মামলা তুলে নিতে চাপ দিচ্ছে। ফলে তারা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন।

ক্রিকেট বল দেয়ার লোভ দেখিয়ে ৫ বছরের শিশুকে ধর্ষণ

 কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি 
২৩ নভেম্বর ২০২০, ১০:৫৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কালীগঞ্জে সাড়ে পাঁচ বছরের এক শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় কালীগঞ্জ থানায় একটি মামলা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার মালিয়াট ইউনিয়নে।

কালীগঞ্জ থানায় দায়ের করা মামলা সূত্রে জানা গেছে, সাড়ে পাঁচ বছরের ওই শিশু ১৪ নভেম্বর বাড়ির বাইরে খেলতে যায়। প্রতিবেশী আবদুল লতিফের লম্পট ছেলে শাহিন হোসেন (১৯) শিশুটিকে ক্রিকেট খেলার বল দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করে।

১৭ নভেম্বর শিশুটি অসুস্থ হয়ে পড়লে সে তার পিতামাতার কাছে সব কিছু জানালে ১৯ নভেম্বর শিশুটিকে চিকিৎসার জন্য কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়। পরীক্ষা শেষে শিশুটি ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে ডাক্তাররা জানান।

এ ব্যাপারে কালীগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মতলেবুর রহমান জানান, এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। ধর্ষক শাহিন পলাতক রয়েছে। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

এদিকে মামলার বাদী শিশুটির মা অভিযোগ করেন, ধর্ষক শাহিনের পরিবার প্রভাবশালী হওয়ায় সামাজিকভাবে মামলা তুলে নিতে চাপ দিচ্ছে। ফলে তারা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন