চট্টগ্রামে খালপাড় থেকে দুই নবজাতকের লাশ উদ্ধার 
jugantor
চট্টগ্রামে খালপাড় থেকে দুই নবজাতকের লাশ উদ্ধার 

  চট্টগ্রাম ব্যুরো  

২৮ নভেম্বর ২০২০, ১৯:৪৮:১৪  |  অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রাম নগরীতে একটি খালেরপাড় থেকে দুই নবজাতকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৫টার দিকে বন্দর থানার নিমতলা এলাকার একটি খালেরপাড় থেকে নবজাতকদ্বয়ের লাশ উদ্ধার করা হয়।

মেয়ে নবজাতকদ্বয় যমজ বোন ছিল বলে ধারণা পুলিশের। বন্দর থানা পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। সন্ধ্যা ৬টায় নবজাতকদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছিল।

পুলিশ জানায়, সন্ধ্যা সাড়ে ৫টার দিকে নিমতলার একটি খালের পাড়ে নবজাতকের লাশ দেখে স্থানীয়রা থানা পুলিশকে খবর দেন। পরে বন্দর থানা থেকে পুলিশের একটি টিম মৃত নবজাতকদের লাশ উদ্ধার করে বন্দর থানায় নিয়ে আসে। সন্ধ্যা পর্যন্ত এ ঘটনায় কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

একজন পুলিশ কর্মকর্তারা জানান, নবজাতকের লাশ উদ্ধারের পর বন্দর থানার একটি টিম নিমতলা এলাকার আশপাশের সিসি ক্যামেরা ভিডিও ফুটেজ পর্যবেক্ষণ শুরু করেছে; যারা নবজাতকদের ফেলে রেখে গেছে তাদের শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে।
বন্দর থানার ওসি নিজাম উদ্দিন যুগান্তরকে বলেন, বিষয়টি নিয়ে আমরা তদন্ত শুরু করেছি। এ ঘটনায় কাউকে শনাক্ত করা সম্ভব হয়নি। নবজাতকদের চমেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। জন্মের পরপরই তাদের এখানে ফেলে যাওয়া হয়েছে বলে আমরা ধারণা করছি।

চট্টগ্রামে খালপাড় থেকে দুই নবজাতকের লাশ উদ্ধার 

 চট্টগ্রাম ব্যুরো 
২৮ নভেম্বর ২০২০, ০৭:৪৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রাম নগরীতে একটি খালেরপাড় থেকে দুই নবজাতকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৫টার দিকে বন্দর থানার নিমতলা এলাকার একটি খালেরপাড় থেকে নবজাতকদ্বয়ের লাশ উদ্ধার করা হয়।

মেয়ে নবজাতকদ্বয় যমজ বোন ছিল বলে ধারণা পুলিশের। বন্দর থানা পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। সন্ধ্যা ৬টায় নবজাতকদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছিল।

পুলিশ জানায়, সন্ধ্যা সাড়ে ৫টার দিকে নিমতলার একটি খালের পাড়ে নবজাতকের লাশ দেখে স্থানীয়রা থানা পুলিশকে খবর দেন। পরে বন্দর থানা থেকে পুলিশের একটি টিম মৃত নবজাতকদের লাশ উদ্ধার করে বন্দর থানায় নিয়ে আসে। সন্ধ্যা পর্যন্ত এ ঘটনায় কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

একজন পুলিশ কর্মকর্তারা জানান, নবজাতকের লাশ উদ্ধারের পর বন্দর থানার একটি টিম নিমতলা এলাকার আশপাশের সিসি ক্যামেরা ভিডিও ফুটেজ পর্যবেক্ষণ শুরু করেছে; যারা নবজাতকদের ফেলে রেখে গেছে তাদের শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে।
বন্দর থানার ওসি নিজাম উদ্দিন যুগান্তরকে বলেন, বিষয়টি নিয়ে আমরা তদন্ত শুরু করেছি। এ ঘটনায় কাউকে শনাক্ত করা সম্ভব হয়নি। নবজাতকদের চমেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। জন্মের পরপরই তাদের এখানে ফেলে যাওয়া হয়েছে বলে আমরা ধারণা করছি।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন