খুলনার সব উপজেলায় অক্সিজেন ব্যাংক প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন
jugantor
খুলনার সব উপজেলায় অক্সিজেন ব্যাংক প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন

  খুলনা ব্যুরো  

২৮ নভেম্বর ২০২০, ২৩:০৬:১৭  |  অনলাইন সংস্করণ

আসন্ন শীতে করোনার সেকেন্ড ওয়েভ বা দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় খুলনার সব উপজেলায় আইসিইউ সেবা, অক্সিজেন ব্যাংক, হাই-ফ্লো ন্যাজাল ক্যানুলা স্থাপনের কার্যক্রম গ্রহণ করেছে খুলনা জেলা প্রশাসন।

এরই অংশ হিসেবে শনিবার সকালে দাকোপ উপজেলায় মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব (সমন্বয় ও সংস্কার) মো. কামাল হোসেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ২০ বেডের জন্য অক্সিজেন সিলিন্ডার ব্যাংক ও হাই-ফ্লো ন্যাজাল ক্যানুলা স্থাপন প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন শেষে খুলনার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনায় সভায় বক্তৃতা করেন- স্বাস্থ্য অধিদফতরের লাইন ডিরেক্টর ডা. মো. শামসুল হক, ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মো. সাইদুল ইসলাম, দাকোপ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মুনসুর আলী খান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মিন্টু বিশ্বাস, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান গৌরপদ বাছাড়, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. মোজাম্মেল হক নিজামী প্রমুখ।

এ সময় উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন দফতরের কর্মকর্তা, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, স্থানীয় জনগণ ও ইলেকট্রনিক এবং প্রিন্ট মিডিয়ার কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব (সমন্বয় ও সংস্কার) মো. কামাল হোসেন জেলা প্রশাসনের এ সময়োপযোগী উদ্যোগের ভূয়সী প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, এতে বর্তমান সরকারের নির্বাচনী ইশতেহারের ৩.১০ মোতাবেক 'আমার গ্রাম আমার শহর' পরিকল্পনার আওতায় গ্রামেও শহরের মতো স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করা সম্ভব হবে।

জানা যায়, খুলনা জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বিশেষ ব্যবস্থপনায় জরুরি স্বাস্থ্যসেবাটি চালু করা হচ্ছে।
এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন বলেন, করোনাপরবর্তী সময়েও যেন প্রত্যেক এলাকার মানুষকে জরুরি অক্সিজেন ও আইসিইউ সেবা দেয়া যায় সেই কারণে স্থায়ীভাবে এ সেবাটি চালু করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, স্থানীয়ভাবে কয়েকটি রিসোর্সকে একত্রিত করে আইসিইউ সেবা, অক্সিজেন ব্যাংক ও হাই-ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলা স্থাপন করা হচ্ছে। তৃণমূলের দৃষ্টান্তমূলক স্বাস্থ্যসেবা চালুর পরিকল্পনাকে স্বাগত জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা।

খুলনা জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বাংলাদেশের প্রথম এ স্বাস্থ্যসেবাটি ডিসেম্বরের মধ্যেই খুলনার সব উপজেলায় বাস্তবায়িত হবে।

বিভাগীয় শহর হিসেবে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে লিক্যুইড অক্সিজেন প্লান্ট চালুর বিষয়ে অগ্রগতি হয়েছে। এরই মধ্যে অক্সিজেন প্লান্ট তৈরির জায়গা নির্ধারণ করা হয়েছে। অক্সিজেন প্লান্ট নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠানটিও জায়গাটি দেখেছে। আগামী ডিসেম্বরনাগাদ কাজ শুরু করা যাবে মর্মে সংশ্লিষ্টরা আশা করছেন।

খুলনার সব উপজেলায় অক্সিজেন ব্যাংক প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন

 খুলনা ব্যুরো 
২৮ নভেম্বর ২০২০, ১১:০৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আসন্ন শীতে করোনার সেকেন্ড ওয়েভ বা দ্বিতীয় ঢেউ  মোকাবেলায় খুলনার সব উপজেলায় আইসিইউ সেবা, অক্সিজেন ব্যাংক, হাই-ফ্লো ন্যাজাল ক্যানুলা স্থাপনের কার্যক্রম গ্রহণ করেছে খুলনা জেলা প্রশাসন।

এরই অংশ হিসেবে শনিবার সকালে দাকোপ উপজেলায় মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব (সমন্বয় ও সংস্কার) মো. কামাল হোসেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ২০ বেডের জন্য অক্সিজেন সিলিন্ডার ব্যাংক ও হাই-ফ্লো ন্যাজাল ক্যানুলা স্থাপন প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। 

ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন শেষে খুলনার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনায় সভায় বক্তৃতা করেন- স্বাস্থ্য অধিদফতরের লাইন ডিরেক্টর ডা. মো. শামসুল হক,  ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মো. সাইদুল ইসলাম, দাকোপ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মুনসুর আলী খান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মিন্টু বিশ্বাস, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান গৌরপদ বাছাড়, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. মোজাম্মেল হক নিজামী প্রমুখ। 

এ সময় উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন দফতরের কর্মকর্তা, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, স্থানীয় জনগণ ও ইলেকট্রনিক এবং প্রিন্ট মিডিয়ার কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।  

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের  সচিব (সমন্বয় ও সংস্কার) মো. কামাল হোসেন জেলা প্রশাসনের এ সময়োপযোগী উদ্যোগের ভূয়সী প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, এতে বর্তমান সরকারের নির্বাচনী ইশতেহারের ৩.১০ মোতাবেক 'আমার গ্রাম আমার শহর' পরিকল্পনার আওতায় গ্রামেও শহরের মতো স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করা সম্ভব হবে।  

জানা যায়, খুলনা জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বিশেষ ব্যবস্থপনায় জরুরি স্বাস্থ্যসেবাটি চালু করা হচ্ছে।
এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন বলেন, করোনাপরবর্তী সময়েও যেন প্রত্যেক এলাকার মানুষকে জরুরি অক্সিজেন ও আইসিইউ সেবা দেয়া যায় সেই কারণে স্থায়ীভাবে এ সেবাটি চালু করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, স্থানীয়ভাবে কয়েকটি রিসোর্সকে একত্রিত করে আইসিইউ সেবা, অক্সিজেন ব্যাংক ও হাই-ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলা স্থাপন করা হচ্ছে। তৃণমূলের দৃষ্টান্তমূলক স্বাস্থ্যসেবা চালুর পরিকল্পনাকে স্বাগত জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা। 

খুলনা জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বাংলাদেশের প্রথম এ স্বাস্থ্যসেবাটি ডিসেম্বরের মধ্যেই খুলনার সব উপজেলায় বাস্তবায়িত হবে।

বিভাগীয় শহর হিসেবে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে লিক্যুইড অক্সিজেন প্লান্ট চালুর বিষয়ে অগ্রগতি হয়েছে। এরই মধ্যে অক্সিজেন প্লান্ট তৈরির জায়গা নির্ধারণ করা হয়েছে। অক্সিজেন প্লান্ট নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠানটিও জায়গাটি দেখেছে। আগামী ডিসেম্বরনাগাদ কাজ শুরু করা যাবে মর্মে সংশ্লিষ্টরা আশা করছেন।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন