৩২ গরু নিয়ে খাদে পড়ল ট্রাক
jugantor
৩২ গরু নিয়ে খাদে পড়ল ট্রাক

  শেরপুর প্রতিনিধি  

০১ ডিসেম্বর ২০২০, ১৮:১০:৫৪  |  অনলাইন সংস্করণ

শেরপুরের নকলা উপজেলায় ৩২টি গরু নিয়ে নির্মাণাধীন ব্রিজের পাশে খাদে পড়েছে ট্রাক। এতে নির্মাণাধীন ব্রিজ পাহারাদার সোহরাব মিয়া নামে একজনের মৃত্যু হয়। এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও দুইজন। এছাড়া দুর্ঘটনায় ১৩টি গরু মারা গেছে।

সোমবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে শেরপুর-ঢাকা মহাসড়কের নকলা উপজেলার কুর্শাবাদাগৌর এলাকা এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত সোহরাব মিয়া একই এলাকার মৃত সৈয়দ আলীর ছেলে। আহতরা হলেন ট্রাক চালক মোখলেছ মিয়া ও গরু ব্যবসায়ী নবী হোসেন।

শেরপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মো. বিল্লাল হোসেন জানান, কুড়িগ্রামের রৌমারী থেকে ৩২টি গরু ক্রয় করে ব্যবসায়ীরা ট্রাকে করে কিশোরগঞ্জে যাচ্ছিল। পথে শেরপুর-ঢাকা মহাসড়কের নকলা উপজেলার কুর্শবাদাগৈর এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ট্রাকটি নির্মাণাধীন ব্রিজের খাদে পড়ে যায়।

এতে নির্মাণাধীন ব্রিজের পাহারাদার সোহরাব মিয়া ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান। ট্রাকের সামনের অংশ দুমড়ে-মুচড়ে যায়। দুর্ঘটনায় ট্রাকে থাকা ৩২টি গরুর মধ্যে ১৩টি গরু ঘটনাস্থলেই মারা যায়। বাকি গরুগুলো উদ্ধার করে নকলা থানা হেফাজতে নেয়া হয়।

দুর্ঘটনার পর ফায়ার সার্ভিস সংবাদ পেয়ে ট্রাকের দরজা কেটে চালক মোখলেসকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও গরু ব্যবসায়ী নবী হোসেনকে নকলা হাসপাতালে প্রেরণ করেছেন। এ ব্যাপারে নকলা থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

৩২ গরু নিয়ে খাদে পড়ল ট্রাক

 শেরপুর প্রতিনিধি 
০১ ডিসেম্বর ২০২০, ০৬:১০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

শেরপুরের নকলা উপজেলায় ৩২টি গরু নিয়ে নির্মাণাধীন ব্রিজের পাশে খাদে পড়েছে ট্রাক। এতে নির্মাণাধীন ব্রিজ পাহারাদার সোহরাব মিয়া নামে একজনের মৃত্যু হয়। এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও দুইজন। এছাড়া দুর্ঘটনায় ১৩টি গরু মারা গেছে।

সোমবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে শেরপুর-ঢাকা মহাসড়কের নকলা উপজেলার কুর্শাবাদাগৌর এলাকা এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত সোহরাব মিয়া একই এলাকার মৃত সৈয়দ আলীর ছেলে। আহতরা হলেন ট্রাক চালক মোখলেছ মিয়া ও গরু ব্যবসায়ী নবী হোসেন।

শেরপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মো. বিল্লাল হোসেন জানান, কুড়িগ্রামের রৌমারী থেকে ৩২টি গরু ক্রয় করে ব্যবসায়ীরা ট্রাকে করে কিশোরগঞ্জে যাচ্ছিল। পথে শেরপুর-ঢাকা  মহাসড়কের নকলা উপজেলার কুর্শবাদাগৈর এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ট্রাকটি নির্মাণাধীন ব্রিজের খাদে পড়ে যায়।

এতে নির্মাণাধীন ব্রিজের পাহারাদার সোহরাব মিয়া ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান। ট্রাকের সামনের অংশ দুমড়ে-মুচড়ে যায়। দুর্ঘটনায় ট্রাকে থাকা ৩২টি গরুর মধ্যে ১৩টি গরু ঘটনাস্থলেই মারা যায়। বাকি গরুগুলো উদ্ধার করে নকলা থানা হেফাজতে নেয়া হয়।

দুর্ঘটনার পর ফায়ার সার্ভিস সংবাদ পেয়ে ট্রাকের দরজা কেটে চালক মোখলেসকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও গরু ব্যবসায়ী নবী হোসেনকে নকলা হাসপাতালে প্রেরণ করেছেন। এ ব্যাপারে নকলা থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন