ফেসবুকে মেয়ে সেজে ব্ল্যাকমেইল, অতঃপর
jugantor
ফেসবুকে মেয়ে সেজে ব্ল্যাকমেইল, অতঃপর

  সিলেট ব্যুরো  

০২ ডিসেম্বর ২০২০, ২২:২৫:২৫  |  অনলাইন সংস্করণ

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে মেয়েদের নামে ভুয়া আইডি খুলে বয়স্ক পুরুষদের টার্গেট করে সম্পর্ক গড়ে তুলে ব্ল্যাকমেইল করাই ছিল তার কাজ।

এরই ধারাবাহিকতায় সর্ম্পক গড়ে তুলে সিলেটের এক পঞ্চাশোর্ধ্ব ব্যক্তির সঙ্গে। নিয়মিত কথা বলার ফাঁকে ফাঁকে ওই ব্যক্তির অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ছবি ও ভিডিও সংগ্রহ করে।

পরবর্তীতে মোবাইল ফোনে কল দিয়ে ৫০ হাজার টাকা দাবি করে। টাকা না দিলে এসব ছবি ও ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দেয় মাগুরার মহম্মদপুর থানার রামদেবপুর গ্রামের আকবর মোল্লার ছেলে মো. শফিকুল ইসলাম (২২)।

পরবর্তীতে ওই ব্যক্তি নিরুপায় হয়ে এ বিষয়ে সিলেট মহানগর পুলিশের (এসএমপি) এয়ারপোর্ট থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। পুলিশ প্রযুক্তির সহায়তায় অভিযুক্তকে শনাক্ত করার পর তিনি থানায় মামলা করেন।

তদন্ত কর্মকর্তা এয়ারপোর্ট থানার এসআই খোকন দাস মহম্মদপুর থানা পুলিশের সহায়তায় সোমবার সন্ধ্যায় অভিযান চালিয়ে শফিকুলকে গ্রেফতার করে। তার কাছ থেকে দুটি মোবাইল ফোন সেট জব্দ করে পুলিশ। এতে ওই ব্যক্তির সঙ্গে চ্যাট ও হুমকি দেয়ার প্রমাণ পাওয়া যায় বলে যুগান্তরকে নিশ্চিত করেন তদন্ত কর্মকর্তা।

এসআই খোকন দাস বলেন, তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে ৩ দিনের রিমান্ড চাওয়া হয়েছে।

ফেসবুকে মেয়ে সেজে ব্ল্যাকমেইল, অতঃপর

 সিলেট ব্যুরো 
০২ ডিসেম্বর ২০২০, ১০:২৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে মেয়েদের নামে ভুয়া আইডি খুলে বয়স্ক পুরুষদের টার্গেট করে সম্পর্ক গড়ে তুলে ব্ল্যাকমেইল করাই ছিল তার কাজ।

এরই ধারাবাহিকতায় সর্ম্পক গড়ে তুলে সিলেটের এক পঞ্চাশোর্ধ্ব ব্যক্তির সঙ্গে। নিয়মিত কথা বলার ফাঁকে ফাঁকে ওই ব্যক্তির অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ছবি ও ভিডিও সংগ্রহ করে।

পরবর্তীতে মোবাইল ফোনে কল দিয়ে ৫০ হাজার টাকা দাবি করে। টাকা না দিলে এসব ছবি ও ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দেয় মাগুরার মহম্মদপুর থানার রামদেবপুর গ্রামের আকবর মোল্লার ছেলে মো. শফিকুল ইসলাম (২২)।

পরবর্তীতে ওই ব্যক্তি নিরুপায় হয়ে এ বিষয়ে সিলেট মহানগর পুলিশের (এসএমপি) এয়ারপোর্ট থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। পুলিশ প্রযুক্তির সহায়তায় অভিযুক্তকে শনাক্ত করার পর তিনি থানায় মামলা করেন।

তদন্ত কর্মকর্তা এয়ারপোর্ট থানার এসআই খোকন দাস মহম্মদপুর থানা পুলিশের সহায়তায় সোমবার সন্ধ্যায় অভিযান চালিয়ে শফিকুলকে গ্রেফতার করে। তার কাছ থেকে দুটি মোবাইল ফোন সেট জব্দ করে পুলিশ। এতে ওই ব্যক্তির সঙ্গে চ্যাট ও হুমকি দেয়ার প্রমাণ পাওয়া যায় বলে যুগান্তরকে নিশ্চিত করেন তদন্ত কর্মকর্তা।

এসআই খোকন দাস বলেন, তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে ৩ দিনের রিমান্ড চাওয়া হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন