বিছানায় মেয়ের, ঘরের আড়ায় মায়ের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার
jugantor
বিছানায় মেয়ের, ঘরের আড়ায় মায়ের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

  মেহেন্দিগঞ্জ (বরিশাল) প্রতিনিধি  

০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১১:৪৫:০০  |  অনলাইন সংস্করণ

লাশ উদ্ধার

বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলায় নিজ ঘর থেকে মা ও মেয়ের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার দিকে উপজেলার পৌর এলাকার বদরপুর গ্রাম থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত মেয়ের মরদেহ বিছানায় ও মায়ের লাশ ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়।

পারিবারিক কলহের কারণে মেয়েকে শ্বাসরোধে হত্যার পর মা গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে ধারণা করছে পুলিশ।

নিহতরা হলেন- মা সালমা (৩০) একই এলাকার আমজাদ হোসেনের স্ত্রী ও তাদের মেয়ে তাসবির আকতার জান্নাত (২)।

মেহেন্দিগঞ্জ থানার ওসি আবিদুর রহমান জানান, উপজেলার পৌর এলাকার বদরপুর গ্রামে আমজাদের বাড়ি সংস্কারের কাজ চলছিল। রাতের খাবার খেয়ে স্বামী আমজাদ হোসেন পাশের ঘরে ও তার স্ত্রী-সন্তান রান্নাঘরে খাট পেতে ঘুমিয়ে পড়ে।

বৃহস্পতিবার সকালে ঘুম থেকে উঠে আমজাদ দেখেন মেয়ের মরদেহ বিছানায় ও তার স্ত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলছে। পরে স্থানীয়রা বিষয়টি দেখে পুলিশে খবর দেন।

তবে ধারণা করা হচ্ছে, পারিবারিক কলহের কারণে মেয়েকে শ্বাসরোধে হত্যার পর তার মা গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (শেবাচিম) পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে বলে জানান ওসি।

বিছানায় মেয়ের, ঘরের আড়ায় মায়ের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

 মেহেন্দিগঞ্জ (বরিশাল) প্রতিনিধি 
০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১১:৪৫ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
লাশ উদ্ধার
ফাইল ছবি

বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলায় নিজ ঘর থেকে মা ও মেয়ের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার দিকে উপজেলার পৌর এলাকার বদরপুর গ্রাম থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত মেয়ের মরদেহ বিছানায় ও মায়ের লাশ ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়।

পারিবারিক কলহের কারণে মেয়েকে শ্বাসরোধে হত্যার পর মা গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে ধারণা করছে পুলিশ।

নিহতরা হলেন- মা সালমা (৩০) একই এলাকার আমজাদ হোসেনের স্ত্রী ও তাদের মেয়ে তাসবির আকতার জান্নাত (২)।  

মেহেন্দিগঞ্জ থানার ওসি আবিদুর রহমান জানান, উপজেলার পৌর এলাকার বদরপুর গ্রামে আমজাদের বাড়ি সংস্কারের কাজ চলছিল। রাতের খাবার খেয়ে স্বামী আমজাদ হোসেন পাশের ঘরে ও তার স্ত্রী-সন্তান রান্নাঘরে খাট পেতে ঘুমিয়ে পড়ে।

বৃহস্পতিবার সকালে ঘুম থেকে উঠে আমজাদ দেখেন মেয়ের মরদেহ বিছানায় ও তার স্ত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলছে। পরে স্থানীয়রা বিষয়টি দেখে পুলিশে খবর দেন।

তবে ধারণা করা হচ্ছে, পারিবারিক কলহের কারণে মেয়েকে শ্বাসরোধে হত্যার পর তার মা গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (শেবাচিম) পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে বলে জানান ওসি।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন