ট্রাক উল্টে চাপা পড়ে প্রাণ গেল ২ নারীর
jugantor
ট্রাক উল্টে চাপা পড়ে প্রাণ গেল ২ নারীর

  মাগুরা প্রতিনিধি  

০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ২০:২০:১১  |  অনলাইন সংস্করণ

স্বজনদের আহাজারি

মাগুরায় ট্রাক উল্টে চাপা পড়ে প্রাণ ২ নারীর মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া পৃথক আরেকটি দুর্ঘটনায় আরেকজনের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার জেলার পৃথক স্থানে এ দুর্ঘটনাগুলো ঘটে।

নিহতরা হলেন- স্বর্ণলতা মজুমদার (২৫), সাথী মজুমদার (৩৫) এবং আহাদ আলি মোল্যা (৬০)।

পুলিশ জানায়, শালিখার থৈপাড়া গ্রামের মিল্টন বিশ্বাসের স্ত্রী স্বর্ণলতা তার ভাইয়ের স্ত্রী সাথী মজুমদারকে নিয়ে একটি অটোরিকশায় মাগুরার রামনগর এলাকায় এক নিকটাত্মীয়ের বাড়িতে যাচ্ছিলেন। বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে তারা মাগুরা-ফরিদপুর সড়কের ঠাকুরবাড়ি এলাকায় পৌঁছে অটোরিকশা থেকে নেমে রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন।

এ সময় ঢাকাগামী সবজিবোঝাই একটি ট্রাক অন্য একটি অটোরিকশাকে সাইড দিতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পড়ে যায়। এতে ট্রাকের নিচে চাপা পড়েন স্বর্ণলতা, সাথী এবং একই পরিবারের সেতু এবং অপর্ণা।

ঘটনার পর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা তাদের উদ্ধার করে মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে গেলে স্বর্ণলতা মজুমদারের মৃত্যু হয়। সাথী মজুমদারকে সেখান থেকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে তারও মৃত্যু হয়।

দুর্ঘটনায় আহত সেতু মজুমদার ও অপর্ণা মজুমদারকে মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

এদিকে আহাদ আলি মোল্যা (৬০) নামে এক পল্লী চিকিৎসক সকালে মহম্মদপুর উপজেলার রাজাপুর এলাকায় নছিমনের ধাক্কায় গুরুতর আহত হন। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সন্ধ্যায় তার মৃত্যু হয়েছে। তার বাড়ি নড়াইল জেলার লোহাগড়া এলাকায়।

ট্রাক উল্টে চাপা পড়ে প্রাণ গেল ২ নারীর

 মাগুরা প্রতিনিধি 
০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ০৮:২০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
স্বজনদের আহাজারি
স্বজনদের আহাজারি। ছবি: যুগান্তর

মাগুরায় ট্রাক উল্টে চাপা পড়ে প্রাণ ২ নারীর মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া পৃথক আরেকটি দুর্ঘটনায় আরেকজনের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার জেলার পৃথক স্থানে এ দুর্ঘটনাগুলো ঘটে। 

নিহতরা হলেন- স্বর্ণলতা মজুমদার (২৫), সাথী মজুমদার (৩৫) এবং আহাদ আলি মোল্যা (৬০)।

পুলিশ জানায়, শালিখার থৈপাড়া গ্রামের মিল্টন বিশ্বাসের স্ত্রী স্বর্ণলতা তার ভাইয়ের স্ত্রী সাথী মজুমদারকে নিয়ে একটি অটোরিকশায় মাগুরার রামনগর এলাকায় এক নিকটাত্মীয়ের বাড়িতে যাচ্ছিলেন। বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে তারা মাগুরা-ফরিদপুর সড়কের ঠাকুরবাড়ি এলাকায় পৌঁছে অটোরিকশা থেকে নেমে রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন।

এ সময় ঢাকাগামী সবজিবোঝাই একটি ট্রাক অন্য একটি অটোরিকশাকে সাইড দিতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পড়ে যায়। এতে ট্রাকের নিচে চাপা পড়েন স্বর্ণলতা, সাথী এবং একই পরিবারের সেতু এবং অপর্ণা।

ঘটনার পর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা তাদের উদ্ধার করে মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে গেলে স্বর্ণলতা মজুমদারের মৃত্যু হয়। সাথী মজুমদারকে সেখান থেকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে তারও মৃত্যু হয়। 

দুর্ঘটনায় আহত সেতু মজুমদার ও অপর্ণা মজুমদারকে মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

এদিকে আহাদ আলি মোল্যা (৬০) নামে এক পল্লী চিকিৎসক সকালে মহম্মদপুর উপজেলার রাজাপুর এলাকায় নছিমনের ধাক্কায় গুরুতর আহত হন। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সন্ধ্যায় তার মৃত্যু হয়েছে। তার বাড়ি নড়াইল জেলার লোহাগড়া এলাকায়।

 

ঘটনাপ্রবাহ : সড়কে মৃত্যুর মিছিল

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন