বগুড়ায় সড়কে সেনা সদস্যসহ দুজন নিহত
jugantor
বগুড়ায় সড়কে সেনা সদস্যসহ দুজন নিহত

  বগুড়া ব্যুরো  

০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ১৪:৩৮:৪৯  |  অনলাইন সংস্করণ

বগুড়ায় সড়কে সেনা সদস্যসহ দুজন নিহত

বগুড়ার দুপচাঁচিয়া ও শেরপুর উপজেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় এক সেনা সদস্যসহ দুজন নিহত হয়েছেন।

শনিবার সকালে দুপচাঁচিয়া উপজেলায় সিও অফিস বাসস্ট্যান্ড এলাকায় ও শেরপুর উপজেলায় চৌমুহনী বাজারে শুক্রবার রাতে এ দুর্ঘটনাগুলো ঘটে।

নিহতরা হলেন- নওগাঁর বদলগাছি উপজেলার আরজি পাঁচঘড়িয়া গ্রামের মোসলেম উদ্দিনের ছেলে ও বগুড়ার মাঝিরা সেনানিবাসে কর্মকর্তা কর্পোরাল মামুনুর রশিদ (৪৫) এবং শেরপুরের বিশালপুর ইউনিয়নের নাগরপুর গ্রামের গোপাল চন্দ্রের ছেলে নেপাল চন্দ্র (৫০)।

দুপচাঁচিয়া থানার ওসি হাসান আলী ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সেনা কর্পোরাল মামুনুর রশিদ শনিবার সকালে কর্মস্থল মাঝিরা সেনানিবাস থেকে মোটরসাইকেলে নওগাঁর বাড়ি ফিরছিলেন।

তিনি সকাল ৮টার দিকে বগুড়া-নওগাঁ সড়কে দুপচাঁচিয়া সিও অফিস বাসস্ট্যান্ড এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি মাইক্রোবাস তার মোটরসাইকেলে ধাক্কা দেয়। এতে মামুনুর রশিদ রাস্তায় ছিটকে পড়ে ওই মাইক্রোবাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান।

পরে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এসে তার মরদেহ উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠান।

ওসি আরও জানান, এ ব্যাপারে নিহতের ভাই আবদুস সালাম দুপচাঁচিয়া থানায় মামলা করেছেন। মাইক্রোবাসটি শনাক্ত ও এর চালককে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

এদিকে শেরপুর ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের স্টেশন অফিসার রতন হোসেন জানান, নেপাল চন্দ্র শুক্রবার রাত ৮টার দিকে শেরপুরের বিশালপুর বাজার থেকে একটি অটোরিকশাভ্যানে নাগরপুর গ্রামের বাড়িতে ফিরছিলেন।

ভ্যানটি শেরপুর-রানীরহাট সড়কের চৌমুহনী বাজার এলাকায় পৌঁছালে চালক একই গ্রামের অখিল চন্দ্র নিয়ন্ত্রণ হারান। এতে ভ্যানটি রাস্তার পাশে খাদে উল্টে যায়। এতে নেপাল চন্দ্র ও অখিল চন্দ্র আহত হন। এদের মধ্যে গুরুতর নেপাল চন্দ্রকে বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে স্থানান্তর করার চেষ্টা করলে তিনি পথিমধ্যে মারা যান।

ভ্যানচালক অখিলকে শেরপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে

বগুড়ায় সড়কে সেনা সদস্যসহ দুজন নিহত

 বগুড়া ব্যুরো 
০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ০২:৩৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বগুড়ায় সড়কে সেনা সদস্যসহ দুজন নিহত
ফাইল ছবি

বগুড়ার দুপচাঁচিয়া ও শেরপুর উপজেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় এক সেনা সদস্যসহ দুজন নিহত হয়েছেন।

শনিবার সকালে দুপচাঁচিয়া উপজেলায় সিও অফিস বাসস্ট্যান্ড এলাকায় ও শেরপুর উপজেলায় চৌমুহনী বাজারে শুক্রবার রাতে এ দুর্ঘটনাগুলো ঘটে।

নিহতরা হলেন- নওগাঁর বদলগাছি উপজেলার আরজি পাঁচঘড়িয়া গ্রামের মোসলেম উদ্দিনের ছেলে ও বগুড়ার মাঝিরা সেনানিবাসে কর্মকর্তা কর্পোরাল মামুনুর রশিদ (৪৫) এবং শেরপুরের বিশালপুর ইউনিয়নের নাগরপুর গ্রামের গোপাল চন্দ্রের ছেলে নেপাল চন্দ্র (৫০)।

দুপচাঁচিয়া থানার ওসি হাসান আলী ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সেনা কর্পোরাল মামুনুর রশিদ শনিবার সকালে কর্মস্থল মাঝিরা সেনানিবাস থেকে মোটরসাইকেলে নওগাঁর বাড়ি ফিরছিলেন।

তিনি সকাল ৮টার দিকে বগুড়া-নওগাঁ সড়কে দুপচাঁচিয়া সিও অফিস বাসস্ট্যান্ড এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি মাইক্রোবাস তার মোটরসাইকেলে ধাক্কা দেয়। এতে মামুনুর রশিদ রাস্তায় ছিটকে পড়ে ওই মাইক্রোবাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান।

পরে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এসে তার মরদেহ উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠান।

ওসি আরও জানান, এ ব্যাপারে নিহতের ভাই আবদুস সালাম দুপচাঁচিয়া থানায় মামলা করেছেন। মাইক্রোবাসটি শনাক্ত ও এর চালককে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

এদিকে শেরপুর ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের স্টেশন অফিসার রতন হোসেন জানান, নেপাল চন্দ্র শুক্রবার রাত ৮টার দিকে শেরপুরের বিশালপুর বাজার থেকে একটি অটোরিকশাভ্যানে নাগরপুর গ্রামের বাড়িতে ফিরছিলেন।

ভ্যানটি শেরপুর-রানীরহাট সড়কের চৌমুহনী বাজার এলাকায় পৌঁছালে চালক একই গ্রামের অখিল চন্দ্র নিয়ন্ত্রণ হারান। এতে ভ্যানটি রাস্তার পাশে খাদে উল্টে যায়। এতে নেপাল চন্দ্র ও অখিল চন্দ্র আহত হন। এদের মধ্যে গুরুতর নেপাল চন্দ্রকে বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে স্থানান্তর করার চেষ্টা করলে তিনি পথিমধ্যে মারা যান।

ভ্যানচালক অখিলকে শেরপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন