৪ লাখ ৫০ হাজার ইয়াবাসহ তিন মিয়ানমার নাগরিক আটক
jugantor
৪ লাখ ৫০ হাজার ইয়াবাসহ তিন মিয়ানমার নাগরিক আটক

  টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি  

০৭ ডিসেম্বর ২০২০, ২১:১৩:২৯  |  অনলাইন সংস্করণ

কক্সবাজার

সেন্টমার্টিন সংলগ্ন বঙ্গোপসাগরে অভিযান চালিয়ে ৪ লাখ ৫০ হাজার ইয়াবাসহ মিয়ানমারের তিন নাগরিককে আটক করেছে বাংলাদেশ কোস্টগার্ড সদস্যরা। এ সময় পাচারে ব্যবহৃত ট্রলারটি জব্দ করা হয়েছে।

সোমবার ভোরে সেন্টমার্টিন ছেঁড়াদ্বীপ থেকে ৫ নটিক্যাল মাইল দক্ষিণে টেকনাফ ও সেন্টমার্টিন কোস্টগার্ড যৌথ অভিযান চালিয়ে ইয়াবার চালানসহ তাদের আটক করা হয়।

টেকনাফ কোস্টগার্ড স্টেশন কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আমিরুল হক বলেন, মিয়ানমার থেকে সাগরপথে ইয়াবার বড় চালান পাচার হচ্ছে- এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কোস্টগার্ডের একটি যৌথ অভিযানে সেন্টমার্টিন ছেঁড়াদ্বীপের দক্ষিণে সাগরে অভিযান পরিচালনা করা হয়। কোস্টগার্ড সদস্যরা তাদের ধাওয়া করে ট্রলারটি ধরে ফেলে। একপর্যায়ে ট্রলারসহ মিয়ানমারের তিন পাচারকারীকে আটক করে। তাদের স্বীকারোক্তিতে ট্রলারে তল্লাশি চালিয়ে ৪ লাখ ৫০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে এবং মিয়ানমারের ৯ লাখ ৫১ হাজার কিয়েতসহ তাদেরকে আটক করা হয়েছে। তারা স্বীকার করেছে- মিয়ানমার থেকে ইয়াবার চালানটি সাগরপথে বাংলাদেশের দিকে নিয়ে আসছিল।

লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আমিরুল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, উদ্ধার হওয়া ইয়াবার আনুমানিক মূল্য ১৩ কোটি ৫০ লাখ টাকা। ইয়াবা ও কাঠের নৌকা টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

৪ লাখ ৫০ হাজার ইয়াবাসহ তিন মিয়ানমার নাগরিক আটক

 টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি 
০৭ ডিসেম্বর ২০২০, ০৯:১৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
কক্সবাজার
কক্সবাজার

সেন্টমার্টিন সংলগ্ন বঙ্গোপসাগরে অভিযান চালিয়ে ৪ লাখ ৫০ হাজার ইয়াবাসহ মিয়ানমারের তিন নাগরিককে আটক করেছে বাংলাদেশ কোস্টগার্ড সদস্যরা। এ সময় পাচারে ব্যবহৃত ট্রলারটি জব্দ করা হয়েছে।

সোমবার ভোরে সেন্টমার্টিন ছেঁড়াদ্বীপ থেকে ৫ নটিক্যাল মাইল দক্ষিণে টেকনাফ ও সেন্টমার্টিন কোস্টগার্ড যৌথ অভিযান চালিয়ে ইয়াবার চালানসহ তাদের আটক করা হয়।

টেকনাফ কোস্টগার্ড স্টেশন কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আমিরুল হক বলেন, মিয়ানমার থেকে সাগরপথে ইয়াবার বড় চালান পাচার হচ্ছে- এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কোস্টগার্ডের একটি যৌথ অভিযানে সেন্টমার্টিন ছেঁড়াদ্বীপের দক্ষিণে সাগরে অভিযান পরিচালনা করা হয়। কোস্টগার্ড সদস্যরা তাদের ধাওয়া করে ট্রলারটি ধরে ফেলে। একপর্যায়ে ট্রলারসহ মিয়ানমারের তিন পাচারকারীকে আটক করে। তাদের স্বীকারোক্তিতে ট্রলারে তল্লাশি চালিয়ে ৪ লাখ ৫০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে এবং মিয়ানমারের ৯ লাখ ৫১ হাজার কিয়েতসহ তাদেরকে আটক করা হয়েছে। তারা স্বীকার করেছে- মিয়ানমার থেকে ইয়াবার চালানটি সাগরপথে বাংলাদেশের দিকে নিয়ে আসছিল।

 

লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আমিরুল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, উদ্ধার হওয়া ইয়াবার আনুমানিক মূল্য ১৩ কোটি ৫০ লাখ টাকা। ইয়াবা ও কাঠের নৌকা টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন