বিয়ের আশ্বাস দিয়ে অপহরণ করে আটকে রেখে ধর্ষণ
jugantor
বিয়ের আশ্বাস দিয়ে অপহরণ করে আটকে রেখে ধর্ষণ

  ফরিদগঞ্জ (চাঁদপুর) প্রতিনিধি  

১৬ ডিসেম্বর ২০২০, ১৯:১৫:১৩  |  অনলাইন সংস্করণ

ফরিদগঞ্জে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে কৌশলে অপহরণ করে এক কিশোরীকে (১৬) ধর্ষণের অভিযোগে মিজানুর রহমান (২৫) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ ব্যাপারে বুধবার বিকালে ওই কিশোরীর পিতা থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

জানা গেছে, কয়েক মাস পূর্বে চাঁদপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির আওতাধীন একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের কর্মী মিজানুর রহমান ফরিদগঞ্জ পৌর এলাকার সাফুয়া এলাকায় কাজ করার সময় পরিচয় হয় পার্শ্ববর্তী খেয়াঘাটের মাঝির মেয়ে ওই কিশোরীর সঙ্গে। পরবর্তীতে পরিচয় সূত্র ধরে মোবাইল ফোনে আলাপের এক পর্যায়ে গত ১ ডিসেম্বর রাতে মিজানুর রহমান ওই কিশোরীকে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে কৌশলে অপহরণ করে ঢাকায় নিয়ে যায়। সেখানে তার এক নিকটাত্মীয়ের বাসায় তাকে আটকে রেখে ধর্ষণ করে। পরে ওই কিশোরীটি পালিয়ে এসে তার পরিবারকে ঘটনা জানায়।

মঙ্গলবার রাতে ওই কিশোরীকে আবারও অপহরণের চেষ্টা করে মিজানুর রহমান। পরিবারের লোকজন টের পেলে সে পালিয়ে যায়। পরে বুধবার ওই কিশোরীর পিতা বাদী হয়ে ফরিদগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ অভিযুক্ত মিজানুর রহমানকে আটক করে।

ফরিদগঞ্জ থানার ওসি মোহাম্মদ শহিদ হোসেন অভিযুক্তকে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করে পরবর্তী আইনি পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে।

বিয়ের আশ্বাস দিয়ে অপহরণ করে আটকে রেখে ধর্ষণ

 ফরিদগঞ্জ (চাঁদপুর) প্রতিনিধি 
১৬ ডিসেম্বর ২০২০, ০৭:১৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ফরিদগঞ্জে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে কৌশলে অপহরণ করে এক কিশোরীকে (১৬) ধর্ষণের অভিযোগে মিজানুর রহমান (২৫) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ ব্যাপারে বুধবার বিকালে ওই কিশোরীর পিতা থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

জানা গেছে, কয়েক মাস পূর্বে চাঁদপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির আওতাধীন একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের কর্মী মিজানুর রহমান ফরিদগঞ্জ পৌর এলাকার সাফুয়া এলাকায় কাজ করার সময় পরিচয় হয় পার্শ্ববর্তী খেয়াঘাটের মাঝির মেয়ে ওই কিশোরীর সঙ্গে। পরবর্তীতে পরিচয় সূত্র ধরে মোবাইল ফোনে আলাপের এক পর্যায়ে গত ১ ডিসেম্বর রাতে মিজানুর রহমান ওই কিশোরীকে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে কৌশলে অপহরণ করে ঢাকায় নিয়ে যায়। সেখানে তার এক  নিকটাত্মীয়ের বাসায় তাকে আটকে রেখে ধর্ষণ করে। পরে ওই কিশোরীটি পালিয়ে এসে তার পরিবারকে ঘটনা জানায়।

মঙ্গলবার রাতে ওই কিশোরীকে আবারও অপহরণের চেষ্টা করে মিজানুর রহমান। পরিবারের লোকজন টের পেলে সে পালিয়ে যায়। পরে বুধবার ওই কিশোরীর পিতা বাদী হয়ে ফরিদগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ অভিযুক্ত মিজানুর রহমানকে আটক করে।

ফরিদগঞ্জ থানার ওসি মোহাম্মদ শহিদ হোসেন অভিযুক্তকে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করে পরবর্তী আইনি পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন