নবম শ্রেণির ছাত্রীকে বিয়ে করে ইউপি চেয়ারম্যান বরখাস্ত
jugantor
নবম শ্রেণির ছাত্রীকে বিয়ে করে ইউপি চেয়ারম্যান বরখাস্ত

  উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি  

১৭ ডিসেম্বর ২০২০, ২২:১৪:৫১  |  অনলাইন সংস্করণ

কুড়িগ্রামের উলিপুরে নবম শ্রেণির ছাত্রীকে বিয়ে করে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করা ৪৯ বছর বয়সী সেই ইউপি চেয়ারম্যান আবু তালেবকে অবশেষে বরখাস্ত করা হয়েছে।

১৫ ডিসেম্বর স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব স্বাক্ষরিত পত্রে তাকে সাময়িক বরখাস্তের প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। বৃহস্পতিবার মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে এটি প্রকাশ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ১ নভেম্বর রাতে উপজেলার বুড়াবুড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবু তালেব সরকার ওই ইউনিয়নের নবম শ্রেণিতে পড়ুয়া বর্ণিতা ওসমান বর্ণিকে (১৫) জন্ম তারিখ পরিবর্তন করে বিয়ে করেন। বিয়ের সেই ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ায় এলাকায় ব্যাপক সমালোচনার ঝড় উঠে।

ওই সময় ইউপি চেয়ারম্যান প্রকাশ্যে বাল্যবিয়ে করলেও প্রশাসন কোনো আইনগত ব্যবস্থা না নেয়ায় জনমনে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। ওই সময় বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় বিষয়টি প্রকাশিত হলে প্রশাসন নড়েচড়ে বসে। এরপর প্রশাসনের পক্ষ থেকে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

পরে স্থানীয় তদন্তে বিষয়টি প্রমাণিত হওয়ায় জেলা প্রশাসক কুড়িগ্রাম স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন-২০০৯ এর ৩৪ (১) ধারা অনুযায়ী ওই ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে গত ১৫ ডিসেম্বর স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সহকারী সচিব মো. আবু জাফর রিপন স্বাক্ষরিত পত্রে তাকে সাময়িক বরখাস্তের প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

এ বিষয়ে বুড়াবুড়ি ইউপি চেয়ারম্যান আবু তালেব সরকারের সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, বরখাস্তের বিষয়টি আমার জানা নেই। আপনার কাছেই প্রথম শুনলাম।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নূর-এ-জান্নাত রুমি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, তাকে এ বিষয়ে শোকজ করা হয়েছে।

নবম শ্রেণির ছাত্রীকে বিয়ে করে ইউপি চেয়ারম্যান বরখাস্ত

 উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি 
১৭ ডিসেম্বর ২০২০, ১০:১৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কুড়িগ্রামের উলিপুরে নবম শ্রেণির ছাত্রীকে বিয়ে করে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করা ৪৯ বছর বয়সী সেই ইউপি চেয়ারম্যান আবু তালেবকে অবশেষে বরখাস্ত করা হয়েছে।

১৫ ডিসেম্বর স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব স্বাক্ষরিত পত্রে তাকে সাময়িক বরখাস্তের প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। বৃহস্পতিবার মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে এটি প্রকাশ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ১ নভেম্বর রাতে উপজেলার বুড়াবুড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবু তালেব সরকার ওই ইউনিয়নের নবম শ্রেণিতে পড়ুয়া বর্ণিতা ওসমান বর্ণিকে (১৫) জন্ম তারিখ পরিবর্তন করে বিয়ে করেন। বিয়ের সেই ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ায় এলাকায় ব্যাপক সমালোচনার ঝড় উঠে।

ওই সময় ইউপি চেয়ারম্যান প্রকাশ্যে বাল্যবিয়ে করলেও প্রশাসন কোনো আইনগত ব্যবস্থা না নেয়ায় জনমনে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। ওই সময় বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় বিষয়টি প্রকাশিত হলে প্রশাসন নড়েচড়ে বসে। এরপর প্রশাসনের পক্ষ থেকে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

পরে স্থানীয় তদন্তে বিষয়টি প্রমাণিত হওয়ায় জেলা প্রশাসক কুড়িগ্রাম স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন-২০০৯ এর ৩৪ (১) ধারা অনুযায়ী ওই ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে গত ১৫ ডিসেম্বর স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সহকারী সচিব মো. আবু জাফর রিপন স্বাক্ষরিত পত্রে তাকে সাময়িক বরখাস্তের প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

এ বিষয়ে বুড়াবুড়ি ইউপি চেয়ারম্যান আবু তালেব সরকারের সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, বরখাস্তের বিষয়টি আমার জানা নেই। আপনার কাছেই প্রথম শুনলাম।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নূর-এ-জান্নাত রুমি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, তাকে এ বিষয়ে শোকজ করা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন