বেগমগঞ্জে বিবস্ত্র করে নারী নির্যাতন, সোহাগ মেম্বারের জামিন আবেদন নাকচ
jugantor
বেগমগঞ্জে বিবস্ত্র করে নারী নির্যাতন, সোহাগ মেম্বারের জামিন আবেদন নাকচ

  নোয়াখালী প্রতিনিধি  

২০ ডিসেম্বর ২০২০, ১৮:২১:২৯  |  অনলাইন সংস্করণ

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন মামলায় চার্জশিটভুক্ত আসামি মোয়াজ্জেম হোসেন সোহাগ মেম্বারের জামিন আবেদন নাকচ করেছেন নোয়াখালীর চিফ জুডিসিয়াল আদালতের বিচারক উৎপল চৌধুরী।

নোয়াখালীর চিফ জুডিসিয়াল আদালত সূত্র জানায়, রোববার বেগমগঞ্জের একলাসপুর ইউনিয়নের জয়কৃষ্ণপুর গ্রামের গৃহবধূকে (২৮) বিবস্ত্র করে নির্যাতন মামলায় এজাহারবহির্ভূত এবং পিবিআইর চার্জশিটে অন্তর্ভুক্ত আসামি মোয়াজ্জেম হোসেন সোহাগ মেম্বারের জামিনের আবেদন করেন তার আইনজীবী মো. আলী সেলিম।

এ ব্যাপারে আসামি পক্ষের কৌঁসুলি ও সরকার পক্ষের দীর্ঘ শুনানির পর চিফ জুডিসিয়াল আদালতের বিচারক উৎপল চৌধুরী জামিনের আবেদন নাকচ করে বলেন, এটি একটি চাঞ্চল্যকর মামলা। এ ঘটনার পর দেশ-বিদেশে প্রতিবাদের ঝড় ওঠে এবং গোটা দেশ বিক্ষোভে ফেটে পড়ে।

উল্লেখ্য, ২ সেপ্টেম্বর রাত ৯টায় একলাসপুরের কুখ্যাত দেলোয়ার বাহিনী জয়কৃষ্ণপুর গ্রামের গৃহবধূর (২৮) বাড়িতে হামলা করে তার স্বামীকে ঘরের বাহিরে গাছের সঙ্গে বেঁধে রাখে। এ সময় তাকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের দৃশ্য মোবাইলে ধারণ করে এবং তা সামাজিক যোগাযোগে ভাইরাল করে।

এ ব্যাপারে ওই নারী ৪ অক্টোবর ৯ জনের নাম উল্লেখ করে বেগমগঞ্জ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে করেন।

বেগমগঞ্জে বিবস্ত্র করে নারী নির্যাতন, সোহাগ মেম্বারের জামিন আবেদন নাকচ

 নোয়াখালী প্রতিনিধি 
২০ ডিসেম্বর ২০২০, ০৬:২১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন মামলায় চার্জশিটভুক্ত আসামি মোয়াজ্জেম হোসেন সোহাগ মেম্বারের জামিন আবেদন নাকচ করেছেন নোয়াখালীর চিফ জুডিসিয়াল আদালতের বিচারক উৎপল চৌধুরী।

নোয়াখালীর চিফ জুডিসিয়াল আদালত সূত্র জানায়, রোববার বেগমগঞ্জের একলাসপুর ইউনিয়নের জয়কৃষ্ণপুর গ্রামের গৃহবধূকে (২৮) বিবস্ত্র করে নির্যাতন মামলায় এজাহারবহির্ভূত এবং পিবিআইর চার্জশিটে অন্তর্ভুক্ত আসামি মোয়াজ্জেম হোসেন সোহাগ মেম্বারের জামিনের আবেদন করেন তার আইনজীবী মো. আলী সেলিম।
 
এ ব্যাপারে আসামি পক্ষের কৌঁসুলি ও সরকার পক্ষের দীর্ঘ শুনানির পর চিফ জুডিসিয়াল আদালতের বিচারক উৎপল চৌধুরী জামিনের আবেদন নাকচ করে বলেন, এটি একটি চাঞ্চল্যকর মামলা। এ ঘটনার পর দেশ-বিদেশে প্রতিবাদের ঝড় ওঠে এবং গোটা দেশ বিক্ষোভে ফেটে পড়ে।

উল্লেখ্য, ২ সেপ্টেম্বর রাত ৯টায় একলাসপুরের কুখ্যাত দেলোয়ার বাহিনী জয়কৃষ্ণপুর গ্রামের গৃহবধূর (২৮) বাড়িতে হামলা করে তার স্বামীকে ঘরের বাহিরে গাছের সঙ্গে বেঁধে রাখে। এ সময় তাকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের দৃশ্য মোবাইলে ধারণ করে এবং তা সামাজিক যোগাযোগে ভাইরাল করে।

এ ব্যাপারে ওই নারী ৪ অক্টোবর ৯ জনের নাম উল্লেখ করে বেগমগঞ্জ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে করেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন