সাব্বিরের অনবদ্য ব্যাটিংয়ে চ্যাম্পিয়ন ময়মনসিংহ রাইডার্স
jugantor
সাব্বিরের অনবদ্য ব্যাটিংয়ে চ্যাম্পিয়ন ময়মনসিংহ রাইডার্স

  ময়মনসিংহ ব্যুরো  

২৫ ডিসেম্বর ২০২০, ২১:১৬:৩৯  |  অনলাইন সংস্করণ

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে ময়মনসিংহ মাস্টার্স ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন আয়োজিত তারকাবহুল ময়মনসিংহ প্রিমিয়ার লিগের (এমপিএল) ফাইনালে ময়মনসিংহ থান্ডার্সকে ৮ উইকেটে উড়িয়ে দিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে রাইডার্স।

শুক্রবার পৌনে ১২টায় নগরীর সার্কিট হাউস মাঠে ১০০ বলের এ টুর্নামেন্টের ফাইনালে প্রথমে টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় ময়মনসিংহ রাইডার্স।

আগে ব্যাটিংয়ে নেমে দ্বিতীয় ওভারেই রনির ঘূর্ণিতে ওপেনার অনিকের উইকেট হারায় থান্ডার্স। এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারালে ১০ ওভার ৫ বলে থান্ডার্সের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৪ উইকেটে ৫৬ রান। জিমি-শুভাগতের ভুল বোঝাবুঝিতে রান আউট জিমি। ওভারের তৃতীয় বলে দলীয় ৬১ রানে ফেরেন শুভাগত।

এরপর জাতীয় দলের অনিয়মিত ক্রিকেটার ফরহাদ রেজা নেমে চার-ছয়ে রানের চাকা সচল করার চেষ্টা করেন। তবে ১৪তম ওভারে তার উইকেটটি তুলে নেন রাইডার্সের মুক্তার আলী। শেষদিকে অর্কের ২২ রানের ওপর ভর করে ৯ উইকেটে ১১৬ রান করতে সক্ষম হয় ময়মনসিংহ থান্ডার্স।

সহজ টার্গেট তাড়া করতে নেমে উড়ন্ত সূচনা করেন রাইডার্সের দুই ওপেনার উত্তম ও মুনির। এই দুই ওপেনারের বিদায়ের পর জয়ের জন্য দুশ্চিন্তা করতে হয়নি রাইডার্সকে।

জাতীয় দলের হার্ডহিটার ব্যাটসম্যান সাব্বির রহমান রুম্মন অনবদ্য ব্যাটিং করে শেষদিকে পরপর দুই বলে ছক্কা হাঁকিয়ে নির্ধারিত ওভারের ৮ বল আগেই ময়মনসিংহ রাইডার্সের জয় নিশ্চিত করেন। দলের জয়ে সাব্বির ৩৭ আর আল আমিন করেন ২৩ রান।

ফাইনালের মতো গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে মাত্র ৯ রানে ৩ উইকেট শিকার করে ম্যাচসেরার পুরস্কার জিতেন রাইডার্সের স্পিনার রনি। টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ ১২ উইকেট শিকার করে ম্যান অব দ্য টুর্নামেন্ট হয়েছেন থান্ডার্সের অলরাউন্ডার শুভাগত হোম।

সাব্বিরের অনবদ্য ব্যাটিংয়ে চ্যাম্পিয়ন ময়মনসিংহ রাইডার্স

 ময়মনসিংহ ব্যুরো 
২৫ ডিসেম্বর ২০২০, ০৯:১৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে ময়মনসিংহ মাস্টার্স ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন আয়োজিত তারকাবহুল ময়মনসিংহ প্রিমিয়ার লিগের (এমপিএল) ফাইনালে ময়মনসিংহ থান্ডার্সকে ৮ উইকেটে উড়িয়ে দিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে রাইডার্স।  

শুক্রবার পৌনে ১২টায় নগরীর সার্কিট হাউস মাঠে ১০০ বলের এ টুর্নামেন্টের ফাইনালে প্রথমে টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় ময়মনসিংহ রাইডার্স। 

আগে ব্যাটিংয়ে নেমে দ্বিতীয় ওভারেই রনির ঘূর্ণিতে ওপেনার অনিকের উইকেট হারায় থান্ডার্স। এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারালে ১০ ওভার ৫ বলে থান্ডার্সের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৪ উইকেটে ৫৬ রান। জিমি-শুভাগতের ভুল বোঝাবুঝিতে রান আউট জিমি। ওভারের তৃতীয় বলে দলীয় ৬১ রানে ফেরেন শুভাগত।

এরপর জাতীয় দলের অনিয়মিত ক্রিকেটার ফরহাদ রেজা নেমে চার-ছয়ে রানের চাকা সচল করার চেষ্টা করেন। তবে ১৪তম ওভারে তার উইকেটটি তুলে নেন রাইডার্সের মুক্তার আলী। শেষদিকে অর্কের ২২ রানের ওপর ভর করে ৯ উইকেটে ১১৬ রান করতে সক্ষম হয় ময়মনসিংহ থান্ডার্স। 

সহজ টার্গেট তাড়া করতে নেমে উড়ন্ত সূচনা করেন রাইডার্সের দুই ওপেনার উত্তম ও মুনির। এই দুই ওপেনারের বিদায়ের পর জয়ের জন্য দুশ্চিন্তা করতে হয়নি রাইডার্সকে।

জাতীয় দলের হার্ডহিটার ব্যাটসম্যান সাব্বির রহমান রুম্মন অনবদ্য ব্যাটিং করে শেষদিকে পরপর দুই বলে ছক্কা হাঁকিয়ে নির্ধারিত ওভারের ৮ বল আগেই ময়মনসিংহ রাইডার্সের জয় নিশ্চিত করেন। দলের জয়ে সাব্বির ৩৭ আর আল আমিন করেন ২৩ রান। 

ফাইনালের মতো গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে মাত্র ৯ রানে ৩ উইকেট শিকার করে ম্যাচসেরার পুরস্কার জিতেন রাইডার্সের স্পিনার রনি। টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ ১২ উইকেট শিকার করে ম্যান অব দ্য টুর্নামেন্ট হয়েছেন থান্ডার্সের অলরাউন্ডার শুভাগত হোম। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন