রাজৈরে যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু
jugantor
রাজৈরে যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু

  টেকেরহাট (মাদারীপুর) প্রতিনিধি  

২৬ ডিসেম্বর ২০২০, ১৯:১২:৩১  |  অনলাইন সংস্করণ

মাদারীপুর

মাদারীপুরের রাজৈরে পারভেজ হাওলাদার নামে (২২) এক যুবকের রহস্যজনক মুত্যু হয়েছে। স্বজনদের অভিযোগ তাকে গলায় রশি দিয়ে ফাঁস লাগিয়ে হত্যা করা হয়েছে। শনিবার ভোর ৪টার দিকে পারভেজকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান, হাসপাতালে আনার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে।

নিহত পারভেজ হাওলাদার উপজেলার কবিরাজপুর ইউনিয়নের কাঁচাবালি গ্রামের সরোয়ার হাওলাদারের ছেলে। পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করেছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, উপজেলার কবিরাজপুর ইউনিয়নের কাঁচাবালি গ্রামের সরোয়ার হাওলাদারের ছেলে নেশাখোর পারভেজ হাওলাদারের সাথে এলাকার রিয়াদসহ কয়েকজন নেশাখোর যুবকের তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার হাতাহাতি ও মারামারি হয়। এতে আহত পারভেজকে রাজৈর হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাড়ি নিয়ে যাওয়া হয়।

এ ঘটনায় শনিবার সকালে সালিশ মীমাংসার কথা ছিল। কিন্তু ভোরের দিকে পরিবারের লোকজন পারভেজকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা প্রদীপ চন্দ্র মণ্ডল জানান,পারভেজকে মৃত অবস্থায় দেখে আমি পুলিশে অবহিত করি।

নিহত পারভেজ হাওলাদারের পিতা সরোয়ার হাওলাদার জানান, শুক্রবার রাতে আমার ছেলেকে ওরা গলায় রশি দিয়ে ফাঁস লাগিয়ে হত্যা করে ঘরের দুয়ারে রেখে গেছে। আমি মামলা করব।

ওসি শেখ সাদিক জানান, মৃত্যুর সঠিক কারণ উদ্ঘাটনের জন্য লাশ উদ্ধার করে মাদারীপুর মর্গে প্রেরণ করেছি। লাশের বাঁ-হাতে ব্লেডের অসংখ্য আঁচড় ও গলায় ফাঁসের চিহ্ন রয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

রাজৈরে যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু

 টেকেরহাট (মাদারীপুর) প্রতিনিধি 
২৬ ডিসেম্বর ২০২০, ০৭:১২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
মাদারীপুর
মাদারীপুর

মাদারীপুরের রাজৈরে পারভেজ হাওলাদার নামে (২২) এক যুবকের রহস্যজনক মুত্যু হয়েছে। স্বজনদের অভিযোগ তাকে গলায় রশি দিয়ে ফাঁস লাগিয়ে হত্যা করা হয়েছে। শনিবার ভোর ৪টার দিকে পারভেজকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান, হাসপাতালে আনার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে।

 

নিহত পারভেজ হাওলাদার উপজেলার কবিরাজপুর ইউনিয়নের কাঁচাবালি গ্রামের সরোয়ার হাওলাদারের ছেলে। পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করেছে।

 

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, উপজেলার কবিরাজপুর ইউনিয়নের কাঁচাবালি গ্রামের সরোয়ার হাওলাদারের ছেলে নেশাখোর পারভেজ হাওলাদারের সাথে এলাকার রিয়াদসহ কয়েকজন নেশাখোর যুবকের তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার হাতাহাতি ও মারামারি হয়। এতে আহত পারভেজকে রাজৈর হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাড়ি নিয়ে যাওয়া হয়।

 

এ ঘটনায় শনিবার সকালে সালিশ মীমাংসার কথা ছিল। কিন্তু ভোরের দিকে পরিবারের লোকজন পারভেজকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসেন।

 

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা প্রদীপ চন্দ্র মণ্ডল জানান,পারভেজকে মৃত অবস্থায় দেখে আমি পুলিশে অবহিত করি।

 

নিহত পারভেজ হাওলাদারের পিতা সরোয়ার হাওলাদার জানান, শুক্রবার রাতে আমার ছেলেকে ওরা গলায় রশি দিয়ে ফাঁস লাগিয়ে হত্যা করে ঘরের দুয়ারে রেখে গেছে। আমি মামলা করব।

 

ওসি শেখ সাদিক জানান, মৃত্যুর সঠিক কারণ উদ্ঘাটনের জন্য লাশ উদ্ধার করে মাদারীপুর মর্গে প্রেরণ করেছি। লাশের বাঁ-হাতে ব্লেডের অসংখ্য আঁচড় ও গলায় ফাঁসের চিহ্ন রয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন