জাহিদ হত্যার ফাঁসির আসামি ভারতে গ্রেফতার
jugantor
জাহিদ হত্যার ফাঁসির আসামি ভারতে গ্রেফতার

  শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি  

২৭ ডিসেম্বর ২০২০, ১৪:২০:১৯  |  অনলাইন সংস্করণ

জাহিদুল হত্যা: ভারতে ইন্টারপোলে গ্রেফতার ফাঁসির আসামি

বাগেরহাটের শরণখোলার চাঞ্চল্যকর জাহিদুল (২৫) হত্যা মামলার ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি মাসুম হাওলাদারকে ইন্টারপোলের মাধ্যমে ভারতের নয়াদিল্লি থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

শরণখোলা থানা পুলিশের তথ্যানুযায়ী, গত বৃহস্পতিবার তাকে ভারতীয় পুলিশ গ্রেফতার করে বলে নিহতের পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে।

গ্রেফতার মাসুম হাওলাদার (৩২) উপজেলার বাধাল গ্রামের আদম আলী হাওলাদারের ছেলে।

শরণখোলা থানা পুলিশ গ্রেফতারের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করে আসামি ফিরিয়ে আনতে প্রক্রিয়া শুরু করেছে।

রোববার শরণখোলা থানার ওসি মো. সাইদুর রহমান বলেন, আসামিকে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন। এ ব্যাপারে আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন না হওয়া পর্যন্ত কোনো তথ্য প্রকাশ করা যাবে না।

জানা গেছে, উপজেলার নলবুনিয়া গ্রামের মৃত ছিদ্দিক তালুকদারের ছেলে জাহিদুল ইসলামকে ২০০৫ সালের ৬ জুন রাতে পার্শ্ববর্তী ফসলের মাঠে ডেকে নিয়ে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছিল। নিহত জাহিদুল নলবুনিয়া বাজারে মোবাইল ফোন ও ফ্লেক্সির ব্যবসা করতেন।

জাহিদুলের চাচাতো ভাই উপজেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আলমগীর হোসেন জানান, ওই হত্যা মামলায় পাঁচ আসামি থাকলেও একমাত্র মাসুমের ফাঁসির আদেশ দেন আদালত। বাকি চারজন খালাস পেয়ে যান।

জাহিদুল একটি সংঘবদ্ধ অপরাধ চক্রের সদস্য। দেশে ও ভারতের নায়াদিল্লিতে তার বিরুদ্ধে অপরাধ কর্মকাণ্ডের অভিযোগ রয়েছে।

জাহিদ হত্যার ফাঁসির আসামি ভারতে গ্রেফতার

 শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি 
২৭ ডিসেম্বর ২০২০, ০২:২০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
জাহিদুল হত্যা: ভারতে ইন্টারপোলে গ্রেফতার ফাঁসির আসামি
মাসুম হাওলাদার। ছবি: যুগান্তর

বাগেরহাটের শরণখোলার চাঞ্চল্যকর জাহিদুল (২৫) হত্যা মামলার ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি মাসুম হাওলাদারকে ইন্টারপোলের মাধ্যমে ভারতের নয়াদিল্লি থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

শরণখোলা থানা পুলিশের তথ্যানুযায়ী, গত বৃহস্পতিবার তাকে ভারতীয় পুলিশ গ্রেফতার করে বলে নিহতের পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে।

গ্রেফতার মাসুম হাওলাদার (৩২) উপজেলার বাধাল গ্রামের আদম আলী হাওলাদারের ছেলে।

শরণখোলা থানা পুলিশ গ্রেফতারের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করে আসামি ফিরিয়ে আনতে প্রক্রিয়া শুরু করেছে।

রোববার শরণখোলা থানার ওসি মো. সাইদুর রহমান বলেন, আসামিকে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন। এ ব্যাপারে আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন না হওয়া পর্যন্ত কোনো তথ্য প্রকাশ করা যাবে না।

জানা গেছে, উপজেলার নলবুনিয়া গ্রামের মৃত ছিদ্দিক তালুকদারের ছেলে জাহিদুল ইসলামকে ২০০৫ সালের ৬ জুন রাতে পার্শ্ববর্তী ফসলের মাঠে ডেকে নিয়ে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছিল। নিহত জাহিদুল নলবুনিয়া বাজারে মোবাইল ফোন ও ফ্লেক্সির ব্যবসা করতেন।

জাহিদুলের চাচাতো ভাই উপজেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আলমগীর হোসেন জানান, ওই হত্যা মামলায় পাঁচ আসামি থাকলেও একমাত্র মাসুমের ফাঁসির আদেশ দেন আদালত। বাকি চারজন খালাস পেয়ে যান।

জাহিদুল একটি সংঘবদ্ধ অপরাধ চক্রের সদস্য। দেশে ও ভারতের নায়াদিল্লিতে তার বিরুদ্ধে অপরাধ কর্মকাণ্ডের অভিযোগ রয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর
 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন