ফেসবুকে ছাত্রীকে যুবকের কুপ্রস্তাব, অতঃপর...
jugantor
ফেসবুকে ছাত্রীকে যুবকের কুপ্রস্তাব, অতঃপর...

  তারাগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধি  

০৩ জানুয়ারি ২০২১, ২১:০৭:১৮  |  অনলাইন সংস্করণ

রংপুরের তারাগঞ্জে এক স্কুলছাত্রীর ফেসবুক আইডিতে আপত্তিকর মেসেজ করার অভিযোগে মাহাবুব রহমান (২৯) নামের এক যুবককে আটক করে জেলহাজতে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত মাহাবুব রহমানের বিরুদ্ধে থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করলে পুলিশ তাকে রোববার জেলহাজতে প্রেরণ করে।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার আলমপুর ইউনিয়নের এক ছাত্রীর সঙ্গে কয়েক মাস পূর্বে ফেসবুক আইডিতে পরিচয় হয় গাইবান্ধা জেলার সুন্দরগঞ্জ থানার চাচিয়া মীরগঞ্জ তারাপুর গ্রামের আবদুল হাকিমের পুত্র মাহাবুব রহমানের (২৯)। অভিযুক্ত মাহাবুব তার নামে ব্যবহৃত ফেসবুক আইডি দিয়ে ওই ছাত্রীর সঙ্গে কথা বলে আসছিল।

কথা বলার একপর্যায়ে তাদের দুজনের মধ্যে বন্ধুত্বের সম্পর্ক গড়ে উঠলে ছবি আদান-প্রদান হয়। এরই একপর্যায়ে গত ১৩ ডিসেম্বর অভিযুক্ত মাহাবুব ওই ছাত্রীর সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক তৈরির জন্য ফেসবুক আইডিতে কুপ্রস্তাব দেয়। এমন আচরণে মাহাবুব রহমানকে কথা বলতে নিষেধ করেন ওই ছাত্রী।

এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মাহাবুব ওই ছাত্রীর ছবি দিয়ে একটি আইডি খুলে ফেসবুক বন্ধুদের অশ্লীল কথা লিখে পোস্ট করে। পরে ওই ছাত্রী কৌশলে মাহাবুবকে তারাগঞ্জে আসতে বললে শনিবার মাহাবুব তারাগঞ্জে আসে। তারাগঞ্জ থেকে মাহাবুবকে রিসিভ করেন ওই ছাত্রী। বাসার সবাই আত্মীয়ের বাড়িতে গেছেন- এই বলে মাহাবুবকে বাড়িতে নিয়ে যায় ওই ছাত্রী।

পরে এলাকার লোকজন তারাগঞ্জ থানায় খবর দিলে থানার এসআই মশিউর রহমান সঙ্গীয় পুলিশ নিয়ে গিয়ে মাহাবুবকে থানায় নিয়ে আসে। এ ঘটনায় ছাত্রীর মা অভিযুক্ত মাহাবুব রহমানের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করলে পুলিশ অভিযুক্ত মাহাবুবকে জেলহাজতে প্রেরণ করেন।

তারাগঞ্জ থানার এসআই ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মশিউর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

ফেসবুকে ছাত্রীকে যুবকের কুপ্রস্তাব, অতঃপর...

 তারাগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধি 
০৩ জানুয়ারি ২০২১, ০৯:০৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রংপুরের তারাগঞ্জে এক স্কুলছাত্রীর ফেসবুক আইডিতে আপত্তিকর মেসেজ করার অভিযোগে মাহাবুব রহমান (২৯) নামের এক যুবককে আটক করে জেলহাজতে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত মাহাবুব রহমানের বিরুদ্ধে থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করলে পুলিশ তাকে রোববার জেলহাজতে প্রেরণ করে।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার আলমপুর ইউনিয়নের এক ছাত্রীর সঙ্গে কয়েক মাস পূর্বে ফেসবুক আইডিতে পরিচয় হয় গাইবান্ধা জেলার সুন্দরগঞ্জ থানার চাচিয়া মীরগঞ্জ তারাপুর গ্রামের আবদুল হাকিমের পুত্র মাহাবুব রহমানের (২৯)। অভিযুক্ত মাহাবুব তার নামে ব্যবহৃত ফেসবুক আইডি দিয়ে ওই ছাত্রীর সঙ্গে কথা বলে আসছিল।

কথা বলার একপর্যায়ে তাদের দুজনের মধ্যে বন্ধুত্বের সম্পর্ক গড়ে উঠলে ছবি আদান-প্রদান হয়। এরই একপর্যায়ে গত ১৩ ডিসেম্বর অভিযুক্ত মাহাবুব ওই ছাত্রীর সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক তৈরির জন্য ফেসবুক আইডিতে কুপ্রস্তাব দেয়। এমন আচরণে মাহাবুব রহমানকে কথা বলতে নিষেধ করেন ওই ছাত্রী।

এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মাহাবুব ওই ছাত্রীর ছবি দিয়ে একটি আইডি খুলে ফেসবুক বন্ধুদের অশ্লীল কথা লিখে পোস্ট করে। পরে ওই ছাত্রী কৌশলে মাহাবুবকে তারাগঞ্জে আসতে বললে শনিবার মাহাবুব তারাগঞ্জে আসে। তারাগঞ্জ থেকে মাহাবুবকে রিসিভ করেন ওই ছাত্রী। বাসার সবাই আত্মীয়ের বাড়িতে গেছেন- এই বলে মাহাবুবকে বাড়িতে নিয়ে যায় ওই ছাত্রী।

পরে এলাকার লোকজন তারাগঞ্জ থানায় খবর দিলে থানার এসআই মশিউর রহমান সঙ্গীয় পুলিশ নিয়ে গিয়ে মাহাবুবকে থানায় নিয়ে আসে। এ ঘটনায় ছাত্রীর মা অভিযুক্ত মাহাবুব রহমানের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করলে পুলিশ অভিযুক্ত মাহাবুবকে জেলহাজতে প্রেরণ করেন।

তারাগঞ্জ থানার এসআই ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মশিউর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন